bangla news

চিকিৎসকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী দিচ্ছে ইন্টেগ্রো

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৫-২০ ৫:১৭:৫৭ পিএম
ইন্টেগ্রো ফার্মা বাংলাদেশ এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ডা. জেরিন দেলওয়ার হুসাইন তার কার্যালয়ে এক চিকিৎসক দলের প্রতিনিধির হাতে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রীর উপহারের প্যাকেট তুলে দিচ্ছেন।

ইন্টেগ্রো ফার্মা বাংলাদেশ এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ডা. জেরিন দেলওয়ার হুসাইন তার কার্যালয়ে এক চিকিৎসক দলের প্রতিনিধির হাতে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রীর উপহারের প্যাকেট তুলে দিচ্ছেন।

ঢাকা: দেশের চিকিৎসকদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তায় তাদের জন্য সুরক্ষা সামগ্রী দিচ্ছে ইন্টেগ্রো ফার্মা বাংলাদেশ। পার্সোনাল প্রোটেকটিভ ইকুইপমেন্টসহ (পিপিই) বিভিন্ন স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

ইন্টেগ্রো সূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের সব সদস্য ধাপে ধাপে এসব উপহার সামগ্রী পাবেন। এখন পর্যন্ত প্রায় ১ হাজার ৩০০ চিকিৎসকের কাছে পৌঁছেছে এসব সুরক্ষা সামগ্রী।

ইন্টেগ্রো ফার্মা বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এবং বাংলাদেশ প্যালিয়েটিভ কেয়ার সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক ডা. জেরিন দেলওয়ার হুসাইন বলেন, ‘প্রতিটি স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রীর প্যাকেটে রয়েছে একটি করে নিজস্ব সুরক্ষা স্যুট, একটি হ্যান্ড স্যানিটাইজার, দু’টি হ্যান্ড গ্লাভস এবং একটি উন্নত মানের এন-৯৫ মাস্ক। প্রতিটি স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা মেনে তৈরি এবং সংগ্রহ করা হয়েছে।’

ডা. জেরিন বলেন, ‘প্রায় প্রতিদিন আমরা ডাকযোগে ও সরাসরি বিভিন্ন হাসপাতালে গিয়ে আমাদের এ স্বাস্থ্য সুরক্ষা উপহার সামগ্রীগুলো পৌঁছে দিচ্ছি। আবার কেউ কেউ আমাদের অফিস থেকেও তাদের পরিচয়পত্র ও বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের সনদপত্র দেখিয়ে উপহার সংগ্রহ করছেন। যারা আমাদের অফিসে আসতে পারছেন না এবং ঢাকার বাইরে আছেন, ডাকযোগে পৌঁছে দিচ্ছি তাদের উপহারগুলো।’

এছাড়া, যেসব ডাক্তার করোনা ভাইরাস চিকিৎসার সঙ্গে সরাসরি যুক্ত রয়েছেন তাদের দ্রুত ইন্টেগ্রো কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করারও অনুরোধ জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির ঊর্ধ্বতন এ কর্মকর্তা।

সম্প্রতি বিশ্ব স্বাস্থ্য কংগ্রেসের নির্বাচিত ক্ষমতাধর স্বনামধন্য ১০১ জন চিকিৎসকের মধ্যে একজন ডা. জেরিন বলেন, ‘দেশের এ পরিস্থিতিতে চিকিৎসকরা সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় আছেন। করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসা সেবাদানকারী সব প্রতিষ্ঠান ও যারা সুচিকিৎসা নিশ্চিত করছেন তাদের পাশে থাকতে পেরে আমরা সত্যি খুব আনন্দিত।’

তাদের এ প্রচেষ্টা সবসময় অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৭১৭ ঘণ্টা, মে ২০, ২০২০
এসএইচএস/এফএম

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-05-20 17:17:57