ঢাকা, শনিবার, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৮ আগস্ট ২০২০, ১৭ জিলহজ ১৪৪১

স্বাস্থ্য

স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানে কমছে না দালালের দৌরাত্ম্য

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩৫৭ ঘণ্টা, জানুয়ারী ১৪, ২০২০
স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানে কমছে না দালালের দৌরাত্ম্য সনাক বরিশাল আয়োজিত স্বাস্থ্যসেবা দেওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর কর্মকর্তাদের সঙ্গে অধিপরামর্শ সভা।

বরিশাল: নিরাপত্তাহীনতার কারণে স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানগুলোতে দালালের দৌরাত্ম্য কমানো সম্ভব হচ্ছে না বলে মন্তব্য করেছেন বরিশালের সিভিল সার্জন ডা. মো. মনোয়ার হোসেন। সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) বরিশাল আয়োজিত স্বাস্থ্য সেবা দেওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর কর্মকর্তাদের সঙ্গে অধিপরামর্শ সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি সীমিত জনবল ও স্বল্প সম্পদের সঠিক ব্যবহারের মাধ্যমে সর্বোচ্চ সেবা দিয়ে মুজিববর্ষ পালনের অঙ্গীকার করেন।

টিআইবির সহায়তায় মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুরে জেলা সিভিল সার্জনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এ অধিপরামর্শ সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সনাক উপদেষ্টা ডা. সৈয়দ হাবিবুর রহমান, সনাকের স্বাস্থ্য বিষয়ক উপকমিটির সদস্য জীবন কৃষ্ণ দে, উপজেরা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. রেজওয়ানুর আলম প্রমুখ।  

সভায় বরিশালের জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে স্বাস্থ্য সেবা দেওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা এবং সেবার সার্বিক মানোন্নয়নে সিটিজেন চার্টার স্থাপন, নারীসেবা সংক্রান্ত পৃথক তথ্য বোর্ড স্থাপন, তথ্যপত্র প্রকাশ, তথ্য অধিকার আইন অনুযায়ী তথ্য কর্মকর্তা নিয়োগ, তথ্য কর্মকর্তার নামফলক স্থাপন, টিকিট কাউন্টার ও ওষুধ কাউন্টারে নারী-পুরুষ ভেদে আলাদা লাইনের ব্যবস্থা করা, নারী-পুরুষ ভেদে পৃথক টয়লেট নির্ধারণ, ব্রেস্টফিডিং কর্নার স্থাপন, বিভিন্ন সেবার মূল্য তালিকা দেওয়া, অভিযোগ বাক্স স্থাপন, অভিযোগ নিরসন কমিটি গঠন, অভিযোগ গ্রহণ ও নিরসন রেজিস্ট্রার সংরক্ষণ, প্রতিদিনের ওষুধের তালিকা প্রতিদিন হালনাগাদ করা, ডাক্তার ও নার্সদের ডিউটি রোস্টার দৃশ্যমান করা, সেবাগ্রহীতাদের সঙ্গে কর্তৃপক্ষের মতবিনিময় সভার আয়োজন, ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধিদের সাক্ষাতের সময়সূচি দৃশ্যমান করা, তথ্য অনুসন্ধান কেন্দ্র স্থাপন, প্রতিটি সভায় জেন্ডার ইস্যু আলোচ্যসূচিতে অন্তর্ভুক্ত করা, ডাক্তার, টেকনেসিয়ান, সিকিউরিটি গার্ড ও সুইপারের শুণ্য পদ পূরণ করা, জেনারেল হাসপাতালে উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন জেনারেটর ও ডিজিটাল এক্সরে মেশিন চালু, দালালের দৌরাত্ম্য নিরসন ও ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধি নিয়ন্ত্রণ, ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয় এবং সমস্যাগুলো সমাধানের জন্য সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সভায় উপস্থিত ছিলেন বরিশাল জেনারেল (সদর) হাসাপাতালে আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন এবং উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তারা।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৪, ২০২০
এমএস/এফএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa