ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

স্বাস্থ্য

রমেক হাসপাতালে উত্তেজনায় চিকিৎসা বন্ধ, বিপাকে রোগীরা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৫৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৭, ২০১৯
রমেক হাসপাতালে উত্তেজনায় চিকিৎসা বন্ধ, বিপাকে রোগীরা

রংপুর​: রংপুর মেডিক্যাল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে নার্স ও ইন্টার্ন চিকিৎসকদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনায় উত্তেজনা চলছে। দ্বিতীয়দিনের মতো প্রতিষ্ঠানটির মধ্যে ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জনসহ রোগীদের চিকিৎসাসেবা দেওয়া থেকে বিরত রয়েছেন ইন্টার্ন চিকিৎসক, নার্স ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এতে চরম বিপাকে পড়েছেন হাসপাতালটির সব রোগী।

তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বুধবার (২৭ নভেম্বর) নার্স ও ইন্টার্ন চিকিৎসকদের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচিতে কাঙ্ক্ষিত চিকিৎসাসেবা পাচ্ছেন না রোগীরা।

এর আগে সোমবার (২৫ নভেম্বর) দিবাগত রাতে এক নার্সকে কর্তব্যরত ইন্টার্ন চিকিৎসক থাপ্পড় মারলে মঙ্গলবার (২৬ নভেম্বর) নার্সরা আন্দোলনে নেমে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কার্যালয় ঘেরাও করে ফেলেন।

এরপর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের আশ্বাসের ভিত্তিতে পরিস্থিতি নীরব হলেও ইন্টার্ন চিকিৎসকদের পুনরায় উদ্ধত আচরণে আবার ফুসে ওঠেন নার্সরা।

রমেক হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, সোমবার রাতে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ডেন্টাল ইউনিটে কর্তব্যরত নার্সিং অফিসার রোগীকে ইনজেকশন দেওয়ার সময় এ ঘটনার সূত্রপাত হয়। তিনি ইনজেকশনের অ্যাম্পুল ভাঙার সময় এক ফোঁটা ডিস্টিল ওয়াটার একজন শিক্ষানবিশ চিকিৎসকের গায়ে গিয়ে পড়ে। এতে দু’জন শিক্ষানবিশ চিকিৎসক মিলে কর্তব্যরত ওই নার্সিং কর্মকর্তাকে লাঞ্ছিত করেন।

পরে মঙ্গলবার সকালে নার্সরা হাসপাতালের পরিচালকের কার্যালয় ঘেরাও করে এর বিচারের দাবিতে আন্দোলন শুরু করেন। তখন ভারপ্রাপ্ত উপ পরিচালক ও সেবা তত্ত্বাবধায়কের উপস্থিতিতে পরিস্থিতি শান্ত হয়। একইসঙ্গে দুয়েকদিনের মধ্যে উভয়পক্ষ মিলে বসে সমাধান করা হবে এই আশ্বাস দেওয়া হয়।

এদিকে, সোমবার রাতে আহত নার্স ওপেন হার্ট সার্জারির রোগী হওয়ায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। মঙ্গলবার এই নার্সের কিছু সহকর্মী তাকে দেখতে গেলে আবারও শিক্ষানবিশ চিকিৎসকরা নার্সদের ওপর চড়াও হন। পরে দু’পক্ষের মধ্যে আবার উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। যা চলমান।

বুধবার সকালে চিকিৎসকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করাসহ নার্স ও ইন্টার্ন চিকিৎসকের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের দাবিতে রংপুর বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে প্রতিষ্ঠানটির সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

মানববন্ধনে পাঁচ দফা দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত সব ধরনের ক্লাস, পরীক্ষা বর্জন এবং ইন্টার্ন চিকিৎসকরা সেবা দেওয়া থেকে বিরত থাকার ঘোষণা দেন রমেক হাসপাতালের সাধারণ শিক্ষার্থী ও ইন্টার্ন চিকিৎসকরা।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন- রমেক হাসপাতালের ডেন্টাল ইউনিটের সহকারী রেজিস্ট্রার ডা. আরিফুল মওলা, ডা. ফেরদৌসি সুলতানা, ডা. আব্দুল্লাহ্ আল মামুন, ডা. ইসরাতুল জান্নাত, ডা. মাহবুব আকতারী, ডা. আশিকুল বারী, ডা. মণিকা রায় প্রমুখ।

এদিকে, মঙ্গলবার দুপুরে বিষয়টি সমঝোতায় আনতে ইন্টার্ন চিকিৎসক ও স্টাফ নার্সদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন দায়িত্বপ্রাপ্ত পরিচালক ডা. শাহাদৎ হোসেন ও রংপুর মেডিক্যাল কলেজের (রমেক) অধ্যক্ষ ডা. নুরুন্নবী লাইজুসহ প্রশাসনিক কর্মকর্তারা। দুপুর ২টা পর্যন্ত চলা বৈঠকে কোনো সমাধান আসেনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫২ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৭, ২০১৯
টিএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa