bangla news

সব রোগের চিকিৎসা মিলবে এক ছাদের নিচে: পরিকল্পনামন্ত্রী

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৯-৩০ ১:১৯:২৮ পিএম
মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে পরিকল্পনামন্ত্রীসহ অন্যান্য অতিথিরা। ছবি: বাংলানিউজ

মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে পরিকল্পনামন্ত্রীসহ অন্যান্য অতিথিরা। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, এক ছাদের নিচেই সব রোগের চিকিৎসা দেওয়া হবে। বিভিন্ন রোগের কারণে রোগীদের নানা হাসপাতালে দৌঁড়াতে হবে না। এই জন্য দেশে সমন্বিত ইন্টারনাল মেডিসিন ইনস্টিটিউট নির্মাণ করা হবে।

সোমবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর শেরে বাংলা নগরস্থ পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে ‘ডেঙ্গুগাঁথা’ শীর্ষক বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

ইন্টারনাল মেডিসিন ইনস্টিটিউট প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, এটা একটা বড় প্রতিষ্ঠান। বাংলাদেশে এমন প্রতিষ্ঠান হতেই হবে। প্রধানমন্ত্রী এই বিষয়ে খুবই উদার। আমাদের অর্থের অভাব নাই। ফলে এই প্রতিষ্ঠান নির্মাণ করতে আমরা প্রস্তুত। ব্যক্তিগতভাবে আমি মনে করি, ইন্টারনাল মেডিসিন ইনস্টিটিউট দ্রুত সময়ে হওয়া দরকার। এটা না হওয়ার কোনো কারণ দেখি না।

এসময় ‘ডেঙ্গুগাঁথা’ গ্রন্থের গ্রন্থকার অধ্যাপক ডা. মো. ফয়জুল ইসলাম চৌধুরীর উদ্দেশ্যে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, আপনি ইন্টারনাল মেডিসিন ইনস্টিটিউট নির্মাণে উদ্যোগ নেন। আমার কাছে ইন্টারনাল মেডিসিন ইনস্টিটিউট নির্মাণ প্রকল্প নিয়ে আসেন। আমি কথা দিচ্ছি, এই প্রকল্প পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় থেকে ফিরে যাবে না। এই প্রকল্প অনুমোদনের জন্য সব ধরনের উদ্যোগ নেওয়া হবে। আমাদের প্রধানমন্ত্রী দেশের মানুষের সুচিকিৎসার জন্য উদার।

দেশের মানুষকে সচেতন করতেই ‘ডেঙ্গুগাঁথা’ বইটি প্রকাশ করা হয়। বইটির মূল্য ২৫০ টাকা। যেটি পাওয়া যাবে শিমুল প্রকাশনায়।

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ইনাম আহমেদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে এসময় উপস্থিত ছিলেন- সংসদ সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়েজ (মিলাদ গাজী), নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরী, ফাইন্যান্সিয়াল রিপোর্টিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ও সাবেক সচিব সি কিউ কে মোস্তাক প্রমুখ।

বাংলাদেশে ইন্টারনাল মেডিসিন ইনস্টিটিউট না থাকায় রোগীদের বিভিন্ন রোগের চিকিৎসার জন্য নানা স্থানে যেতে হয়। তবে পাশ্ববর্তী দেশ ভারতেই এ ধরনের ইনস্টিটিউট রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়ে: ১৩১৯ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৯
এমআইএস/এসএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-09-30 13:19:28