ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২১ মে ২০১৯
bangla news

বিএমডিসিতে বিএসএমএমইউ’র ২ শিক্ষক প্রতিনিধি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৪-২৩ ৮:১১:৪৭ পিএম
বিএমডিসিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ছবি: বাংলানিউজ

বিএমডিসিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলে (বিএমডিসি) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতাল থেকে দুই শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচিত হয়েছেন।

এরা হলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ও নবজাতক বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোহাম্মদ সহিদুল্লা এবং সাবেক কোষাধ্যক্ষ ও সার্জারি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. মো. জুলফিকার রহমান খান।

মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) ডা. মিল্টন হলে সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত এ শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। মোট ১৮৩ জন ভোটারের মধ্যে ১৭৪ জন ভোটার দু’টি করে ভোট দেন।

নির্বাচনটিতে মোট চারজন শিক্ষক প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এর মধ্যে অধ্যাপক মোহাম্মদ সহিদুল্লা ১১৭টি ভোট এবং অধ্যাপক ডা. মো. জুলফিকার রহমান খান ১০২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। 

এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রন্থাগারিক কার্ডিওলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক ৬৪ ভোট এবং ইউরোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. এটিএম আমান উল্যাহ ৬২টি ভোট পান। 

নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন বিএসএমএমইউ'র রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. এ বি এম আব্দুল হান্নান এবং প্রিজাইডিং অফিসারের দায়িত্ব পালন করেন পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. ইফতেখার আলম। 

এছাড়া নির্বাচন কমিশনারের সদস্য সচিব ছিলেন উপ-রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ সালাহ উদ্দিন সিদ্দিক।

নির্বাচন কার্যক্রম পরিদর্শন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া। এসময় তিনি ভোট সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে বলে মন্তব্য করেন। 

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. সাহানা আখতার রহমান, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মুহাম্মদ রফিকুল আলম, কোষাধ্যক্ষ ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান প্রমুখ। 

নির্বাচন কার্যক্রম অত্যন্ত সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সম্পন্ন হওয়ায় সবাই সন্তোষ প্রকাশ করেন। 

বাংলাদেশ সময়: ২০০৬ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৩, ২০১৯
এমএএম/আরবি/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2019-04-23 20:11:47