ঢাকা, রবিবার, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৬ মে ২০১৯
bangla news

রিসার্চ সেন্টার হবে হোমিওপ্যাথির: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৪-১০ ৯:২২:৩৯ পিএম
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক/ফাইল ফটো

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক/ফাইল ফটো

ঢাকা: হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা গবেষণার জন্য রিসার্চ সেন্টার করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।

বুধবার (১০ এপ্রিল) হোমিওপ্যাথি দিবস উপলক্ষে রাজধানীর কাকরাইলের ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউট মিলনায়তনে আয়োজিত আলোচনা সভায় একথা বলেন। বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথি বোর্ড আলোচনা সভাটির আয়োজন করে। 

জাহিদ মালেক বলেন, আমাদের দেশে হোমিওপ্যাথি নিয়ে রিসার্চ কম ছিল। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর এই চিকিৎসাব্যবস্থায় ব্যাপক পরিবর্তন আনা হয়েছে। আমরা সরকারিভাবে হোমিওপ্যাথি চিকিৎসার মানোন্নয়নে একটি রিচার্স সেন্টার গড়ে তুলবো। 

তিনি বলেন, প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর সেবায় হোমিওপ্যাথি চিকিৎসকরা বেশি অবদান রাখছেন। যতই যুগ পাল্টাক, বিজ্ঞানের পরিবর্তন খুব কম হয়। এখনও হতদরিদ্র মানুষ হোমিওপ্যাথি চিকিৎসককে খুব সহজেই কাছে পাচ্ছে৷ পাশাপাশি এই চিকিৎসা খরচ স্বল্পমূল্যে থাকার কারণে হতদরিদ্র মানুষ এই চিকিৎসা বেশি গ্রহণ করছেন৷ 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, হোমিওপ্যাথি চিকিৎসার ওষুধের কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই, যেটা অন্য পদ্ধতিতে আছে। যেহেতু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই, তাই এখানে আরোগ্যের হারও অনেক বেশি৷

বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথি বোর্ডের চেয়ারম্যান ডা. দিলীপ কুমার রায়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব জি এম সালেহ উদ্দিন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। 

হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা বিজ্ঞানের জনক ডা. স্যামুয়েল হ্যানিমেনের জন্মবার্ষিকীর দিনে সারা পৃথিবীব্যাপী এই দিবসটি পালন করা হয়। ২০০৩ সাল থেকে বিশ্বব্যাপী হ্যানিমেনের জন্মদিন পালিত হচ্ছে বিশ্ব হোমিওপ্যাথি দিবস হিসেবে। তবে ২০১৪ সালের ১০ এপ্রিল বাংলাদেশে যাত্রা শুরু বিশ্ব হোমিওপ্যাথি দিবসের এবং বিশ্ব হোমিওপ্যাথি আন্দোলনে যুক্ত হয় বাংলাদেশ। 

বাংলাদেশ সময়: ২১১৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ১০, ২০১৯
এমএএম/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-04-10 21:22:39