[x]
[x]
ঢাকা, সোমবার, ৭ কার্তিক ১৪২৫, ২২ অক্টোবর ২০১৮
bangla news

অধিকাংশ চাকরিজীবীই কোমর-ঘাড়ের ব্যথায় আক্রান্ত

স্বাস্থ্য ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৬-০৮ ১১:১৩:০৫ পিএম
অধিকাংশ চাকরিজীবীই কোমর-ঘাড়ের ব্যথায় আক্রান্ত।

অধিকাংশ চাকরিজীবীই কোমর-ঘাড়ের ব্যথায় আক্রান্ত।

ঢাকা: কোমরে ও ঘাড়ের ব্যাথার অন্যতম প্রধান কারণ দীর্ঘসময় ধরে চেয়ারে বসে কাজ করা। নিরবিচ্ছিন্নভাবে এভাবে বসে কাজ করার দারুণ দেখা দিতে পারে বিভিন্ন স্বাস্থ্যগত সমস্যা।

বিশেষজ্ঞদের মতে যারা কোমরের ব্যথা নিয়ে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হন, তাদের অধিকাংশই কর্পোরেট অফিসে দীর্ঘক্ষণ ডেস্কে বসে কাজ করেন।

আট ঘণ্টার অধিক সময় ধরে বসে কাজ করার ফলে যেসব স্বাস্থ্যগত সমস্যা দেখা দেয় তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো-

হৃদরোগের সমস্যা: দীর্ঘসময় বসে কাজ করার ফলে উচ্চরক্তচাপে ও কোলেস্টেরলের মাত্রা বৃদ্ধির সম্ভাবনা থাকে।

ডায়াবেটিসের সম্ভাবনা: পেশীর নড়াচড়া কম করার ফলে ইনসুলিন উৎপাদনে তারতম্য দেখা দেয় ফলে ডায়াবেটিসের হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

অলসতা বাড়িয়ে দেয়: পেশী শক্তিশালী ও সচল রাখার জন্য শরীরের নড়াচড়া অবশ্যক। দীর্ঘসময় বসে থাকার ফলে পেশীর কর্ম-উদ্দীপনা কমে গিয়ে অলসতা বাড়িয়ে দেয়।

স্ট্রেসের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়: নড়াচড়া করার ফলে শ্বাসক্রিয়া বৃদ্ধি পায়। এতে মস্তিষ্কে অক্সিজেন বেশি মাত্রায় পৌঁছায় ও এনডর্ফিন নামক হরমোন ক্ষরণ বৃদ্ধি পায়। যা স্ট্রেস কমায়। কম নড়াচড়ার ফলে এই হরমোন কম নিঃসরণের কারণে মানসিক স্ট্রেস বৃদ্ধি পায়।

পিঠে ও মেরুদণ্ডে ব্যাথা: দীর্ঘক্ষণ বসে থাকায় মেরুদণ্ডের স্থিতিশিল অবস্থানের উপর অতিরিক্ত চাপ পড়ে। ফলে ঘাড়ে, পিঠে ও মেরুদণ্ডের ব্যাথা হতে পারে।

কিছু নিয়ম মেনে চললে এই ধরনের সমস্যা কাটিয়ে সুস্থ থাকা যায়

যোগব্যায়াম: যোগব্যায়াম পেশীর স্ট্রেস দূর করে শরীর সচল রাখতে সাহয্য করে।

হাঁটা: দীর্ঘক্ষণ কাজের মাঝখানে কিছু সময়ের জন্য হাঁটাচলা করুন।

নড়াচড়া করা: বসে থাকা অবস্থায় মাঝে মধ্যে হাত-পা নড়াচড়া করুন। এতে পেশীর রক্ত চলাচল বাড়বে। আর সঠিক মাত্রায় রক্ত চলাচল করলে পেশীর অবস্থা ভালো থাকে।

সঠিকভাবে বসা: যখন বসবেন তখন মেরুদণ্ড সোজা করে বসার চেষ্টা করুন।

ঘাড়ের ব্যায়াম: সোজা হয়ে বসে মাথা একপাশের ঘাড়ের দিকে আস্তে আস্তে নামিয়ে দিন, এরপরে অন্যপাশে একই ভাবে করুন।

বাংলাদেশ সময়: ০৯১৬ ঘণ্টা, জুন ০৯, ২০১৮
এএটি 

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache