ঢাকা, মঙ্গলবার, ১ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৬ জুলাই ২০১৯
bangla news

কেন পাতে লবণ খাবেন না?

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১১-০৮-০১ ১০:৩১:৩০ এএম

কথায় বলে, যার নুন খাই, তার গুন গাই। তরকারীতে লবণ না দিলে সেটার স্বাদ থাকেনা। স্বামী-স্ত্রীর মধুর ঝগড়ার অন্যতম কারণও কিন্তু তরকারীতে লবণ থাকা না থাকা নিয়ে। প্রতিদিন আয়োডিনযুক্ত লবণ আমাদের গলগন্ড রোগ প্রতিরোধ করে। সভ্যতার শুর থেকে মানুষ লবণ ব্যবহার করতো খাদ্যদ্রব্যকে পচনের হাত থেকে রক্ষার জন্য।

কথায় বলে, যার নুন খাই, তার গুন গাই। তরকারীতে লবণ না দিলে সেটার স্বাদ থাকেনা। স্বামী-স্ত্রীর মধুর ঝগড়ার অন্যতম কারণও কিন্তু তরকারীতে লবণ থাকা না থাকা নিয়ে। প্রতিদিন আয়োডিনযুক্ত লবণ আমাদের গলগন্ড রোগ প্রতিরোধ করে। সভ্যতার শুর থেকে মানুষ লবণ ব্যবহার করতো খাদ্যদ্রব্যকে পচনের হাত থেকে রক্ষার জন্য।

অতিরিক্ত লবণ গ্রহন বিশেষ করে খাবার সময় কাঁচা লবণ বা পাতে লবণ নেওয়া স্বাস্থ্যের জন্য হুমকি। কারণ এর ফলে রক্তচাপ বেড়ে যায়। ভোগে উচ্চ রক্তচাপে।

লবণ কিভাবে রক্তচাপ বাড়ায়:

আমরা যে লবণ খাই তার অন্যতম উপাদান হলো সোডিয়াম। রক্তে এ সোডিয়ামের মাত্রা নিয়ন্ত্রন করে কিডনী বা বৃক্ক। সাধারণ অবস্থায় রক্তে যে পরিমাণ সোডিয়াম থাকে পাতে লবণ খেলে তার পরিমাণ বেড়ে যায়। ফলে অতিরিক্ত পরিমাণ সোডিয়াম বৃক্কের মাধ্যমে মূত্র পরিণত হয়না। বরং আবার রক্তে চলে আসে। আর সোডিয়াম পানিগ্রাহী বলে রক্তে পানির পরিমাণ বেড়ে যায়। এই অতিরিক্ত পরিমাণ পানি রক্তনালীতে বেশি চাপ প্রয়োগ করে। ফলে রক্তের চাপ স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি হয়। এতে রক্তচাপ বৃদ্ধি পায়।

সোডিয়াম শরীরের জন্য অত্যন্ত উপকারী হলেও বেশি পরিমাণ সোডিয়াম ক্ষতিকর। তাই হৃদরোগের হাত থেকে বাচঁতে হলে পাতে লবণ খাবার অভ্যাস ত্যাগ করতে হবে।

মহিউদ্দিন মাসুম

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2011-08-01 10:31:30