bangla news

দি এইমস রুম ইল্যুশন: একই আকারের বস্তুকে মনে হয় ছোট-বড়

মনোকথা ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৬-০৬-১৩ ৭:০৭:২০ পিএম

অপটিক্যাল ইল্যুশন কী? অপটিক্যাল ইল্যুশন ভিজুয়্যাল ইল্যুশন নামেও পরিচিত। ইমেজ ব্যবস্থাপনা, কালার ইফেক্ট, আলোক উৎস ও পরবির্তনশীল বস্তু, বিভ্রান্তিকর ভিজ্যুয়াল ইফেক্টের কারণে অপটিক্যাল ইল্যুশন হয়।

ঢাকা: অপটিক্যাল ইল্যুশন কী? অপটিক্যাল ইল্যুশন ভিজুয়্যাল ইল্যুশন নামেও পরিচিত। ইমেজ ব্যবস্থাপনা, কালার ইফেক্ট, আলোক উৎস ও পরবির্তনশীল বস্তু, বিভ্রান্তিকর ভিজ্যুয়াল ইফেক্টের কারণে অপটিক্যাল ইল্যুশন হয়।

অপনি যদি স্টেরেওগ্রামের মধ্যে লুকোনো কোনো একক ছবি দেখার চেষ্টা করেন, তবে দেখবেন সবার ভিজুয়্যাল ইল্যুশন এক নয়। অপটিক্যাল ইল্যুশন নিয়ে বাংলনিউজে থাকছে আমাদের ধারাবাহিক আয়োজন। এ আয়োজনে জানবো কেন ও কীভাবে এ বিভ্রমগুলো ঘটে।
ইতোমধ্যেই কয়েক রকমের ইল্যুশন নিয়ে আমরা কথা বলেছি। অপটিক্যাল ইল্যুশন সিরিজের আজ চতুর্থ পর্ব। এ পর্বে থাকছে দি এইমস রুম ইল্যুশন।



দি এইমস রুম ইল্যুশন
এইমস রুম ইল্যুশনে একই ঘরে দাঁড়ানো, একই দৈর্ঘ্যের দু’জন ব্যক্তির একজনকে খুব বড় ও অন্যজনকে খুব ছোট লাগে। যদিও তারা আকারে একই সমান।



কী দেখতে পাচ্ছেন?
উপরের ছবিটি প্যারিসে ভিলেট সায়েন্স জাদুঘরের এইমস রুম থেকে তুলেছেন এক দর্শনার্থী। তিনি ফটো শেয়ারিং ওয়েবসাইট ফ্লিকারে ছবিটি আপলোড করেন। ছবিতে বামপাশের ব্যক্তিকে খুবই লম্বা ও ডানপাশের ব্যক্তিকে খুবই খাটো দেখাচ্ছে। কিন্তু বাস্তবে তারা দু’জন প্রায় একই সমান লম্বা।



কীভাবে কাজ করে?
আকারের নাটকীয় অসমতার এই ইল্যুশন ইফেক্ট কাজ করে বিকৃত ঘরটি ব্যবহারের ওপর। দর্শকদের দিক থেকে ঘরটি বর্গাকার দেখালেও এটি আসলে ট্র্যাপিজয়েড শেপের। ছবির ডানে যে নারী দাঁড়িয়ে, তিনি আসলে বাম পাশের নারীর তুলনায় অনেক দূরে একটি কোনায় দাঁড়িয়ে। কিন্তু ইল্যুশন ভিউয়ারদের বিশ্বাস করাচ্ছে, তারা একই ক্ষেত্র গভীরতায় দাঁড়িয়ে। চিত্রে বামপাশের নারীকে বড় দেখাচ্ছে। দেখাচ্ছে ডানপাশে যিনি দাঁড়িয়ে রয়েছেন, তিনি অনেক কাছে। পাশাপাশি বামপাশের নারীর ক্ষুদ্র আকার ডানপাশের নারীকে বড় দেখাতে সাহায্য করছে।

দ্য লর্ড অব দ্য রিংসসহ এ ইফেক্টটি কয়েকটি সিনেমায় দেখা গেছে। দ্য ফেলোশিপ অব দ্য রিংয়ে গ্যান্ডাল্ফকে হবিটদের চেয়ে আকারে বড় দেখানোর জন্য স্পষ্টরূপে ইফেক্টটি ব্যবহার করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ০৫০৬ ঘণ্টা, জুন ১৪, ২০১৬
এসএমএন/এটি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2016-06-13 19:07:20