ঢাকা, রবিবার, ২৭ আষাঢ় ১৪২৭, ১২ জুলাই ২০২০, ২০ জিলকদ ১৪৪১

মনোকথা

জলনার ইল্যুশন: মনে হয় সোজা লাইন নড়ছে

মনোকথা ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৬-০১-০৬ ০৬:৫৬:১৭ পিএম
জলনার ইল্যুশন: মনে হয় সোজা লাইন নড়ছে

ঢাকা: অপটিক্যাল ইল্যুশন ভিজুয়্যাল ইল্যুশন নামেও পরিচিত। ইমেজ ব্যবস্থাপনা, কালার ইফেক্ট, আলোক উৎস ও পরিবর্তনশীল বস্তু, বিভ্রান্তিকর ভিজ্যুয়াল ইফেক্টের কারণে অপটিক্যাল ইল্যুশন হয়।



অপনি যদি স্টেরেওগ্রামের মধ্যে লুকোনো কোনো একক ছবি দেখতে চেষ্টা করেন, তবে দেখবেন সবার ভিজুয়্যাল ইল্যুশন এক নয়। অপটিক্যাল ইল্যুশন নিয়ে বাংলনিউজে থাকছে আমাদের ধারাবাহিক আয়োজন। এ আয়োজনে জানবো কেন ও কীভাবে এ বিভ্রমগুলো ঘটে।

বিভিন্ন রকম ইল্যুশনের মধ্যে জলনার ইল্যুশন একটি। আজ জানবো জলনার ইল্যুশন কী ও কীভাবে হয় সে সম্পর্কে-



জলনার ইল্যুশন
জলনার ইল্যুশনে সোজা লাইনগুলো অনড় অবস্থায় থাকার পরও নড়ানড়া করছে বলে মনে হয়।

কী দেখতে পাচ্ছেন?
জলনার ইল্যুশন প্রথম আবিষ্কার হয় ১৮৬০ সালে। জার্মান জ্যোতিঃপদার্থবিজ্ঞানী জোহান কার্ল ফ্রেডরিখ এ ইল্যুশনটি আবিষ্কার করেন। এতে অনেকগুলো তীর্যকরেখা একদিক থেকে বসানো থাকে। প্রতিটি তীর্যকরেখার পুরো গায়ে ছোট ছোট অনেকগুলো রেখা টানা থাকে। একসঙ্গে সবগুলো তীর্যকরেখাকে মনে হয় এরা ধাপে ধাপে উল্টে গড়িয়ে পড়ছে। কিন্তু বাস্তবে এরা সমান্তরালে স্থিরভাবে অবস্থান করছে।



কীভাবে কাজ করে?
ম্যুলার লায়ার ও হেরিং ইল্যুশনের মতো এই অপটিক্যাল ইল্যুশনেও স্পষ্ট প্রমাণ পাওয়া যায় কীভাবে ছবির ব্যকগ্রাউন্ড সোজা লাইনগুলোকে বিকৃত দেখাতে সাহায্য করে। জলনার ইল্যুশনের ভিন্ন ভিন্ন বেশ ক’টি ব্যাখ্যা রয়েছে। প্রথমত, ছোট ও বড় তীর্যকরেখাগুলোর মধ্যকার কোণগুলো এদের গভীরতা বা ঘনত্ব বাড়ায়। যার ফলে লাইনগুলোর কোনো একটিকে আমাদের খুব কাছে ও অন্যগুলোকে দূরে অবস্থান করছে বলে মনে হয়। অন্য একটি সাম্ভাব্য ব্যাখ্যা হচ্ছে, মস্তিষ্ক বড় ও ছোট তীর্যক রেখার মধ্যবর্তী কোণগুলোকে বাড়িয়ে দিতে চেষ্টা করে। যার ফলে আমরা বিভ্রম হিসেবে লাইনগুলোকে একে অপরের সন্নিকটে বা দূরে দেখি।

তবে মজার ব্যাপার হচ্ছে, যদি এই তীর্যকরেখার রঙ সবুজ হয় ও ব্যাকগ্রাউন্ডে লাল রঙ থাকে তাহলে দুটি রঙের সমান উজ্জ্বলতার কারণে ছবির বিকৃত প্রভাব পুরোপুরি অদৃশ্য হয়ে যায়।

বাংলাধেশ সময়: ১৮৫৫ ঘণ্টা, জুন ০১, ২০১৬
এসএমএন/এটি

 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa