ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৬ আগস্ট ২০২০, ১৫ জিলহজ ১৪৪১

স্বাস্থ্য

এনজাইটি বাড়লে বাড়ে অ্যাজমা

ফিচার ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৫-১২-২০ ০১:০০:০০ এএম
এনজাইটি বাড়লে বাড়ে অ্যাজমা

ঢাকা: আপনি কি অ্যাজমা বা এনজাইটি ডিসঅর্ডারে আক্রান্ত? নতুন গবেষণা বলছে, এনজাইটি কমালে অ্যাজমা নিয়ন্ত্রণে আসে। অনুসন্ধানে আরও পাওয়া গেছে, যাদের মধ্যে হাই লেভেল অব এনজাইটি বিদ্যমান, তাদেরও রয়েছে অ্যাজমার লক্ষণ।

আর এ দুইয়ের সম্মিলনে আক্রান্ত ব্যক্তির শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত বিপদজনক অবস্থায় পৌঁছাতে পারে বলে আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের।

আশঙ্কা ও উদ্বেগ হাঁপানির ক্ষতিকারক দিকগুলোকে উন্মোচন করে। জানান যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব সিনসিনাটির মনোবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক অ্যালিসন ম্যাকলিস।


সহজ ভাষায় বলতে গেলে, এনজাইটি সংবেদনশীলতা হচ্ছে ভয়কে ভয় পাওয়া। গবেষকরা অ্যাজমায় আক্রান্ত ১০১ ব্যক্তির ওপর পরীক্ষা করেছেন। পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের ছোট ব্যাসের নলের মধ্যে শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে বলা হয়। নলগুলো ছিলো কফি স্ট্রয়ের মতো সংকীর্ণ। টাস্কটির নাম স্ট্র ব্রিদিং।

যাদের মধ্যে এনজাইটি সংবেদনশীলতা ছিলো তাদের স্ট্র ব্রিদিং টাস্কে উদ্বেগ আরও বেড়ে যায়। একইসঙ্গে যাদের মধ্যে অ্যাজমার লক্ষণ ছিলো তাদেরও ফুসফুসের কার্যকারিতা কমে যায়।


ফলাফলস্বরূপ, এনজাইটি কমাতে আক্রান্ত ব্যক্তিদের এক্সপোজার থেরাপির ব্যবস্থা করা হয়।
 
উক্ত গবেষণার ফলাফলটি শিকাগোর অ্যাসোসিয়েশন ফর বিহেভিওরাল অ্যান্ড কগনিটিভ থেরাপিসের ৪৯তম বার্ষিক অধিবেশনে উপস্থাপনের জন্য নির্ধারণ করা হয়েছে।

তথ্যসূত্র: ইন্টারনেট।

বাংলাদেশ সময়: ০১০০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২০, ২০১৫
এসএমএন/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa