ঢাকা, বুধবার, ৪ কার্তিক ১৪২৮, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

স্বাস্থ্য

গরমের খাবার

ডা. আনিসুর রহমান, বিভাগীয় সম্পাদক, স্বাস্থ্য | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৩৮ ঘণ্টা, মে ১৮, ২০১৫
গরমের খাবার

গরমে আমাদের শরীরে নানাধরনের ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। গরমের সময় শরীরের তাপমাত্রা বেড়ে যায়।

যার ফলে শরীর থেকে পানি ও লবণ বের হয়ে যায়। কাজেই শরীর যাতে পানি বা লবণশূন্য না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

গরমে কী খাবেন, কী করবেন
বেশি বেশি পানি পান করতে হবে।
পানির সঙ্গে লবণ মিশিয়ে খেতে পারেন।
মৌসুমি ফল, যেগুলোতে পানির পরিমাণ বেশি সেসব খেতে পারেন।

এতে একদিকে যেমন পানির চাহিদা পূরণ হবে, অন্যদিকে ভিটামিন ও মিনারেলের চাহিদাও মিটবে। এসব মৌসুমি ফলের মধ্যে রয়েছে— তরমুজ, বাঙ্গি, শশা, ডাবের পানি।
বিভিন্ন ফল ব্লেন্ড করে শরবত বানিয়ে খেতে পারেন।
কফি ও চা যথাসম্ভব এড়িয়ে চলুন।
সকালে ঘুম থেকে ওঠে স্বাভাবিক পানি দিয়ে গোসল করুন। রাতের বেলা ঘুমাতে যাবার আগে গোসল করলে ভালো ঘুম হবে।
শিশুরা গরমে বেশি আক্রান্ত হয়। তাদের শরীরে সহজেই পানিশূন্যতা তৈরি হয়। শিশুদের মুখে ঘন ঘন পানি দেন। লক্ষ রাখতে হবে শিশুর ঠোঁট ও জিহ্বা যেন শুকিয়ে না যায়।
বিনা প্রয়োজনে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত রোদে বের হবেন না। এসময় সূর্যের অতিবেগুনী রশ্মি বেশি ক্ষতিকর, যা চামড়া ও শরীরের অধিক ক্ষতিসাধন করে।
গরমের সময় সঙ্গে বিশুদ্ধ পানি রাখবেন। সেজন্য বোতলে পানি নিয়ে চলাচল করতে পারেন।
ছায়ায় বিশ্রাম নিবেন
চোখে রোদ-চশমা পড়লে সূর্যের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে চোখ রক্ষা পাবে।
মাথায় ক্যাপ পরতে পারেন। এতে রোদের প্রভাব থেকে মাথা রক্ষা পাবে।
খাবারের সঙ্গে সালাদ, চাটনি, টকদই খান। এগুলোতে এন্টি-অক্সিডেন্ট থাকে।
প্রস্রাব ঠিকমত হচ্ছে কি-না খেয়াল রাখতে হবে। প্রতিদিন গড়ে ১৫০০-২৫০০ মিলি প্রস্রাব হওয়া স্বাভাবিক।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৪০ ঘণ্টা, ১৮ মে ২০১৫

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa