ঢাকা, মঙ্গলবার, ১ আষাঢ় ১৪২৮, ১৫ জুন ২০২১, ০৪ জিলকদ ১৪৪২

স্বাস্থ্য

জলাতঙ্ক নির্মূল কর্মসূচি

দেশে ১৫০০ ডগ ক্যাচার

মাজেদুল নয়ন, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯৫২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩০, ২০১৪
দেশে ১৫০০ ডগ ক্যাচার

ঢাকা: সারা দেশে রাস্তায় ঘুরে বেড়ানো বেওয়ারিশ কুকুরদের ধরে টিকা প্রদান করার জন্যে দেড় হাজার কর্মীকে কুকুর ধরার প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে, যাদেরকে বলা হয় প্রশিক্ষিত ডগ ক্যাচার।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক ডা. বেনজির আহমেদ বাংলানিউজকে এ তথ্য জানান।



ডা. বেনজির আহমেদ জানান, জলাতঙ্ক নির্মূলে দেশব্যাপী বেওয়ারিশ কুকুরের জন্যে যে টিকাদান কর্মসূচি পরিচালনা করা হয়, তার প্রয়োজনেই দেড় হাজার কর্মী ডগ ক্যাচারের প্রশিক্ষণ পেয়েছেন।

তিনি বলেন, বেওয়ারিশ কুকুর অনেক সময় বিষাক্ত হয় এবং হিংস্র হয়। এসব কুকুরকে ধরতে বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া হয় ডগ ক্যাচারদের। বিভিন্ন জেলা-উপজেলা শহরের ক্লিনারদের এ প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। সকলকেই ডগ ক্যাচারের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয় না। বরং শারীরিক সামর্থ্যবান এবং কৌশলীদেরকেই ডগ ক্যাচার হিসেবে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।

ঢাকা ছাড়া দেশের ৬৩ জেলায়ই জলাতঙ্ক নির্মূল কর্মসূচি সফল করতে ডগ ক্যাচার রয়েছেন বলে জানান তিনি। বর্তমান পরিস্থিতিতে তাদের দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে ১০ থেকে ১২ লাখ কুকুরকে টিকা দেওয়ার অভিযান পরিচালনা করা যেতে পারে।

একটি এলাকার ৭০ শতাংশ কুকুরকে ৩ রাউন্ড জলাতঙ্কের টিকা দেওয়া হলে জলাতঙ্ক নির্মূল সম্ভব হয় বলেও জানান বেনজির আহমেদ।

তিনি জানান, জলাতঙ্ক টিকাদান কর্মসূচির মাধ্যমে কুকুরকে টিকাদানের বিষয়টি সাধারণের মধ্যে পরিচিত হয়। প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের মাঠকর্মীরাও এ বিষয়ে দক্ষতা অর্জন করেন। এ জনবল দিয়েই এখন পুরো দেশেই জলাতঙ্ক নির্মূল অভিযান পরিচালনা করা সম্ভব।

জলাতঙ্ক নির্মূলের এ অভিযানে স্বাস্থ্য অধিদফতর ছাড়াও প্রাণিসম্পদ অধিদফতর এবং স্থানীয় সরকার অধিদফতর জড়িত বলে জানান স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক।

বাংলাদেশ সময়: ০৯৫৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩০, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa