ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩ কার্তিক ১৪২৮, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

স্বাস্থ্য

স্বাস্থ্যকর নাস্তা কমাবে ডায়াবেটিস

রহমত উল্যাহ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩২৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৪, ২০১৪
স্বাস্থ্যকর নাস্তা কমাবে ডায়াবেটিস ছবি : জি এম মুজিবুর/বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: যারা প্রফেশনাল (চাকরিজীবী) তাদের অনেকেই সকালের নাস্তা দেরিতে করেন। অনেক ক্ষেত্রে নাস্তাই করা হয় না তাদের।

অনেকে নাস্তা করলেও যেনতেনভাবে তা করায় স্বাস্থ্যকর হয় না। এ অবহেলার কারণে বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বে ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। সকালে স্বাস্থ্যকর নাস্তা করলে এ রোগীর সংখ্যা কমে আসবে।  
 
শুক্রবার (১৪ নভেম্বর) বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবসের র্যালি থেকে বাংলানিউজকে এসব বলেন বাংলাদেশ ডায়াবেটিক অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান প্রফেসর এ কে আজাদ খান।
 
তিনি বলেন, নিজ উদ্যোগে ৭০ শতাংশ ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করা সম্ভব। এরমধ্যে জীবনযাপনে পরিবর্তন ও সঠিক পরিবেশ, পুষ্টিকর ও পরিমিত খাদ্যগ্রহণ, শরীর চর্চা, যথা নিয়মে স্বাস্থ্যসেবা, পরিপূর্ণ স্বাস্থ্যশিক্ষা নেওয়া। আমাদের প্রত্যেকেরই মানবিক দায়িত্ব এ আগ্রাসী স্রোতকে প্রতিহত করা।
 
বাংলাদেশ ডায়াবেটিক অ্যাসোসিয়েশন কর্মকর্তারা জানান, ইন্টারন্যাশনাল ডায়াবেটিস ফাউন্ডেশন (আইডিএফ) বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবসে সচেতনতা বাড়াতে তিনবছর মেয়াদী (২০১৪-২০১৬) পরিকল্পনা নিয়েছে। যার প্রথম ধাপ শুরু হচ্ছে স্বাস্থ্যকর নাস্তা দিয়ে।
 
কর্মকর্তারা শঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, বাংলাদেশে ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা ৮ মিলিয়ন। এরমধ্যে ৬০ শতাংশ চিকিৎসা নেন। যে হারে রোগী বাড়ছে তাতে আগামী ২০৩০ সালে এ হার দ্বিগুণ হয়ে যাবে।
 
বিশ্বে প্রতিবছর এক কোটি ডায়াবেটিস রোগী শনাক্ত হয়। তবে প্রতিদিন ৩০ মিনিট ঘাম ঝরানো ব্যায়াম করলে ৩০ শতাংশ ডায়াবেটিস রোগী ভালো হন।
 
বারডেম একাডেমি পরিচালক প্রফেসর জাফর আহমেদ লতিফ বলেন, পরিমিত ভোজন, নিয়ন্ত্রিত ওজন, প্রতিদিন নিয়মিত প্রাতঃভ্রমণ হলো সুস্থ জীবনযাপনের মূলমন্ত্র।
 
‘স্বাস্থ্যকর খাবার, শুরু হোক সকালের নাস্তা থেকেই’ স্লোগানে শুক্রবার সারাবিশ্বের মতো বাংলাদেশেও পালিত হচ্ছে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস।
 
দিবসটি উপলক্ষে ভোর থেকে বাংলাদেশ ডায়াবেটিক অ্যাসোসিয়েশন, ওষুধ কোম্পানি ও সামাজিক সংগঠন বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করছে।
 
কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, ডায়াবেটিস সচেতনতা বৃদ্ধিতে ব্যানারে বিভিন্ন সচেতনতাসূচক বাক্য লেখা, ব্যানার, ফেস্টুন, ঘোড়ার গাড়ি, পিকআপ ভ্যান, সাইকেল র্যালি, বিনামূল্যে ব্লাড গ্লুকোজ পরিমাপ ও রক্তদান।
 
শুক্রবার সকালে বাংলাদেশ ডায়াবেটিক অ্যাসোসিয়েশন, সানোফি বাংলাদেশ লিমিটেড, সামাজিক সংগঠন দৃক যৌথভাবে র্যালির আয়োজন করে।
 
মোটরসাইকেল, পিকআপ ভ্যান ও সাইক্লিক র্যালিতে সাইক্লিস্ট, ডায়াবেটিক রোগী, চিকিৎসক, সানোফি কর্মকর্তা-কর্মচারী ও সাধারণ মানুষ অংশ নেন।
 
র্যালিটি মানিক মিয়া অ্যাভিনিউ (সংসদ ভবনের সামনে) থেকে ফার্মগেট, কারওরান বাজার, বাংলামটর হয়ে শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে এসে শেষ হয়।
 
সেখানে বেলুন উড়িয়ে, স্বাস্থ্যসম্মত প্রাতঃরাশ (সকালের নাস্তা) বিতরণের মাধ্যমে কর্মসূচি সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়।

অপরদিকে সকালে বারডেম হাসপাতালের উদ্যোগে শাহবাগে ডায়াবেটিস সচেতনতায় বের করা হয় র্যালি।
 
ডায়াবেটিস সচেতনতা বাড়াতে এর বিভিন্ন দিক তুলে ধরতে সাইকেল র্যালির আয়োজন করে ইনসেপ্টা বাংলাদেশ লিমিটেড।
 
র্যালিতে মাস্তুল সাইক্লিস্ট, ঢাবি সাইক্লিস্ট রাইডার্স, বাংলাদেশ সাইক্লিস্ট, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় সাইক্লিস্টসহ বেশ কয়েকটি সংগঠনের প্রায় তিনশতাধিক সাইক্লিস্ট রাইডার্স অংশ নেয়। র্যালিটি জাতীয় জাদুঘরের সামনে থেকে শুরু হয়ে দারুস সালাম গিয়ে শেষ হয়।

এছাড়া নভো নরডিস্ক ফার্মা প্রাইভেট লিমিটেড শাহবাগ থেকে র্যালির আয়োজন করে।
 
দিবসটি পালন উপলক্ষে কোম্পানি ও বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্ট ও ভ্রাম্যমাণ গাড়িতে করে বিনামূল্যে ব্লাড গ্লুকোজ পরিমাপ, সচেতনতা লিফলেট বিতরণ করা হচ্ছে।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৩২৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৪, ২০১৪

**রাজধানীতে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালিত

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa