ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ কার্তিক ১৪২৮, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

স্বাস্থ্য

আদিতমারীতে অজ্ঞাতরোগে ১২ জন অসুস্থ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২০৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৪
আদিতমারীতে অজ্ঞাতরোগে ১২ জন অসুস্থ ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

লালমনিরহাট: লালমনিরহাটের আদিতমারীতে অজ্ঞাতরোগে এক পল্লীচিকিৎসকসহ ১২ জন অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

শুক্রবার রাতে উপজেলার কমলাবাড়ি ইউনিয়নের চন্দনপাট বামনের বাসা এলাকার স্কুল শিক্ষক আবু সাঈদ মিয়ার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।



অসুস্থরা হলেন- ওই বাড়ির কর্তা চন্দনপাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আবু সাঈদ(৪২), তার স্ত্রী রওশনারা বেগম(৩৮), কলেজ পড়–য়া ছেলে রাফিউল ইসলাম সবুজ(১৮), স্কুল পড়–য়া মেয়ে শারমিনা আক্তার ইতি(১২), ছোট ছেলে জুনাইদ(১), বোন রাজিয়া সুলতানা(৩৫), শ্যালিকা সুলতানা(৩০), ভাগ্নি তাসলিমা তমা(৮), ভাইপো সামিউল ইসলাম(২৮) ও তার স্ত্রী চায়না বেগম(২৫) ও ছেলে আল নাহিদ(৫) এবং ওই এলাকার পল্লী চিকিৎসক হরেন্দ্র নাথ(৪০)।

পরিবারের সদস্যরা জানান, সোমবার বিকেলে প্রথমে হঠাৎ মাথা ব্যথা ও জ্বর অনুভব করেন স্কুল শিক্ষক আবু সাঈদের স্ত্রী রওশনারা বেগম(৩৫)। রাতে প্রচণ্ড ঘুম পায় তার। যেকারণে চোখ খুলতে পারেন না তিনি।

মঙ্গলবার সকালে ওই স্কুল শিক্ষক আবু সাঈদ নিজে ও তার কলেজ পড়–য়া ছেলে রাফিউল ইসলাম সবুজ(১৮) এবং মেয়ে শামিমা আক্তার ইতি(১২) একইভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েন। অসুস্থতার খবর পেয়ে আত্মীয় স্বজন তাদের দেখতে এলে পর্যায়েক্রমে তারাও অসুস্থ হয়ে পড়েন। সবার একই সমস্যা মাথা ব্যথা, জ্বর জ্বর ভাব, শরীর দুর্বল, অসংলগ্ন কথা, প্রচণ্ড ঘুম।

এদিকে, অসুস্থদের চিকিৎসা দিতে আসা ওই এলাকার পল্লী চিকিৎসক হরেন্দ্র নাথ শুক্রবার সন্ধ্যায় নিজেই অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপর থেকে স্থানীয়রা ভয়ে ওই বাড়িতে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন। তারা চিকিৎসার অভাবে ঘুমের ঘোরে সবাই পড়ে আছেন নিজ নিজ বিছানায়।

খবর পেয়ে স্থানীয় সংবাদ কর্মীরা শুক্রবার রাতে ওই বাড়িতে গিয়ে এমন দৃশ্য দেখে স্থানীয় হাসপাতালে জানালে আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য পরিদর্শক মাহাবুব আলমের নেতৃত্বে একটি চিকিৎসক টিম ওই বাড়িতে যান। তারাও এখন পর্যন্ত রোগের নাম বা কারণ নির্নয় করতে পারেন নি।

চিকিৎসক টিমের প্রধান আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য পরিদর্শক মাহাবুব আলম বাংলানিউজকে বলেন, এ রোগের নাম কিংবা কারণ এখন পর্যন্ত সনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। তবে, সব রোগীকে আদিতমারী হাসপাতালে নিয়ে আসা হচ্ছে।

আদিতমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জহুরুল ইসলাম বাংলানিউজকে জানান, বিষয়টি তিনি সাংবাদিকদের কাছ থেকে শুনে চিকিৎসক টিম ঘটনাস্থলে পাঠিয়েছেন।

লালমনিরহাট সিভিল সার্জন বাংলানিউজকে বলেন, রোগীদের হাসপাতালে নিয়ে আসা হচ্ছে। তাদের না দেখে কিছু বলা যাচ্ছে না। রোগী দেখতে তিনি নিজেও হাসপাতালে যাচ্ছেন বলে জানান।

বাংলাদেশ সময়: ২২০৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa