bangla news

ধ্যানে কমে মানসিক চাপ

|
আপডেট: ২০১৪-০১-১৭ ৩:৩৬:২৭ পিএম

মাত্র আধা ঘণ্টা ধ্যান (মেডিটেশন) মানসিক চাপ প্রশমনে ওষুধ সেবনের চেয়েও উপকারী। নিয়মিত ধ্যান মানসিক চাপ, উদ্বেগ, অস্থিরতা প্রশমনে ও ভালো ঘুমে সহায়ক।

ঢাকা: মাত্র আধা ঘণ্টা ধ্যান (মেডিটেশন) মানসিক চাপ প্রশমনে ওষুধ সেবনের চেয়েও উপকারী। নিয়মিত ধ্যান মানসিক চাপ, উদ্বেগ, অস্থিরতা প্রশমনে ও ভালো ঘুমে সহায়ক।
 
ধ্যানের এমন উপকারিতার বিষয়টি উঠে এসেছে যুক্তরাষ্ট্রের একটি গবেষণায়। সাড়ে ৩ হাজার মানুষের ওপর গবেষণাটি চালানো হয়।  ২০১৩ সালের জুন পর্যন্ত ৩ হাজার ৫১৫ জন ধ্যানকারীর ওপর ছয় সপ্তাহ পর্যবেক্ষণ চালান গবেষকরা।

গবেষকদলের প্রধান যুক্তরাষ্ট্রের জন হপকিন্স ইউনিভার্সিটির স্কুল অব মেডিসিনের সহকারী অধ্যাপক ড. মাধব গয়াল বলেন, বেশির ভাগ মানুষ ধারণা, ধ্যান হচ্ছে কিছু না করে অলসভাবে বসে থাকা। কিন্তু এটি সত্য নয়। মনের সচেতনতা বাড়ানোর একটি সক্রিয় ব্যায়াম হচ্ছে ধ্যান। বিভিন্ন ধ্যানের ভিন্ন ভিন্ন পদ্ধতি রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ‘হাজার হাজার মানুষ ধ্যানকে মানসিক চাপ প্রশমনের উপায় হিসেবে ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু এটি চিকিৎসার ক্ষেত্রে প্রথাগত কোনো ‘থেরাপি’ হিসেবে প্রয়োগ করা হয় না। অন্যান্য গবেষণায় মানসিক চাপ প্রশমনের উপকারী হিসেবে যেসব ওষুধের কার্যকারিতা প্রমাণিত হয়েছে আমাদের গবেষণায় ধ্যান সেরকম একটি উপায় হিসেবেই উঠে এসেছে।’

বিগত ২০ বছরে বিশেষত নারী রোগীদের মধ্যে মানসিক চাপ প্রশমক ওষুধের ব্যবহার অনেক বেড়েছে উল্লেখ করে ড. মাধব বলেন, এসব রোগী সম্পূর্ণরূপে মানসিক চাপে আছেন তা বলা যাবে না। তবে ব্রিটেনে বর্তমানে প্রতি ১০ জন প্রাপ্ত বয়স্কের মধ্যে একজন মানসিক চাপে ভোগেন।
 
ধ্যান শুধু রোগীকে শান্তনা দেওয়ার কোনো পদ্ধতি নয়, এটি আসলে কার্যকর বলে মন্তব্য করেন তিনি।

তবে মানসিক স্বাস্থ্য ও চাপ সম্পর্কিত আচরণের ক্ষেত্রে ধ্যানের ইতিবাচক প্রভাব নির্ধারণে আর বেশি প্রায়োগিক গবেষণা দরকার বলেও মত দেন তিনি।
 
দীর্ঘদিন ধরে প্রাচ্যের দেশগুলোতে মানসিক চাপ প্রশমনের উপায় হিসেবে ধ্যানের প্রচলন রয়েছে। বিগত কয়েক দশক ধরে পাশ্চাত্যেও জনপ্রিয়তা লাভ করছে ধ্যান।

বাংলাদেশ সময়:  ০২০৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৮, ২০১৪
সম্পাদনা: জাকারিয়া খান, নিউজরুম এডিটর/এসএফআই

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2014-01-17 15:36:27