ঢাকা, সোমবার, ৩ মাঘ ১৪২৮, ১৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

স্বাস্থ্য

উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে নিয়ম মেনে চলুন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩০৫ ঘণ্টা, মে ১৭, ২০১৩
উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে নিয়ম মেনে চলুন

ঢাকা: ১৭ মে। বিশ্ব উচ্চ রক্তচাপ দিবস।

উচ্চ রক্তচাপ এখন বিশ্বে মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ছে। সারা বিশ্বে ১৫০ কোটি মানুষ উচ্চ রক্তচাপে ভুগছে। প্রতি বছর ৯৪ লাখ লোক উচ্চ রক্তচাপজনিত জটিলতায় মৃত্যুবরণ করছে।

হৃদরোগ, স্ট্রোক এবং কিডনী রোগের জন্য উচ্চ রক্তচাপ একটি ঝুঁকিপূর্ণ উপাদান। জনগণকে উচ্চ রক্তচাপ এবং উচ্চ রক্তচাপজনিত রোগসমূহ সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য জানানো, সচেতন করা, প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ এবং এ রোগের জটিলতা এবং চিকিৎসা সম্পর্কে অবহিত করাই বিশ্ব উচ্চ রক্তচাপ দিবসের উদ্দেশ্য।

বিশ্বের অন্য সব দেশের সঙ্গে ওয়ার্ল্ড হাইপারটেনশন লীগের সদস্য হিসেবে প্রতি বছরের মতো হাইপারটেনশন কমিটি অব ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ নানাবিধ আয়োজনের মাধ্যমে ১৬ মে বৃহস্পতিবার বিশ্ব উচ্চ রক্তচাপ দিবস উদযাপন করেছে।

এবারের প্রতিপাদ্য ‘স্বাভাবিক রক্তচাপ দেয় ছন্দময় হৃদস্পন্দন’। এ ছাড়াও বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে ছিল গণমুখী সেমিনার এবং সারা দেশে বিভিন্ন ধরনের জনসচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ।

ঢাকার মিরপুরে অবস্থিত ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন হাসপাতাল অ্যান্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউট অডিটোরিয়ামে এ সেমিনারের আয়োজন করা হয়। গণমুখী সেমিনারে চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী ছাড়াও সমাজের বিভিন্ন স্তরের প্রায় ৩৫০ জন ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন। এ সম্মেলনে বক্তারা উচ্চ রক্তচাপ প্রতিরোধের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

এবার স্বাভাবিক রক্তচাপ ও স্বাভাবিক ছন্দের হৃদস্পন্দন সুস্থ জীবন-যাপনের জন্য অপরিহার্য। এ বিষয়ের ওপর সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়া হয়। এ জন্য সবার আগে স্বাস্থ্যসম্মত জীবন যাপন করা প্রয়োজন। এ ছাড়াও সুনির্দিষ্ট কিছু পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

এসবের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে নিজের স্বাভাবিক ওজন নিয়ন্ত্রণ, নিয়মিত ব্যায়াম এবং সক্রিয় থাকা, শাকসবজি ও ফলমূল বেশি খাওয়া, অতিরিক্ত ও খাবারে বাড়তি লবণ পরিহার, প্রক্রিয়াজাত এবং ফাস্ট ফুড থেকে বিরত এবং তামাক জাতীয় দ্রব্য থেকে দূরে থাকা।

এ সেমিনারে বক্তব্য প্রদানকারী সম্মানিতদের মধ্যে ছিলেন প্রফেসর আর কে খন্দকার চেয়ারম্যান, হাইপারটেনশন কমিটি অব ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ, অধ্যাপক সোহেল রেজা চৌধুরী অধ্যাপক, ন্যাশনালহার্ট ফাউন্ডেশনহাসপাতালঅ্যান্ডরিসার্চ ইনস্টিটিউট ডাঃ এম সিরাজুল ইসলাম, যুগ্ম মহাসচিব, ন্যাশনালহার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলদেশ, ডাঃ মীর নেসারউদ্দিনআহমেদ, সহযোগী অধ্যাপক, কার্ডিওলজি বিভাগ,  ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন হাসপাতাল অ্যান্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউট, জাতীয় অধ্যাপক ব্রিগেডিয়ার (অব.) আবদুল মালিক-সভাপতিত্ব করেন মহাসচিব, ন্যাশনালহার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলদেশ; সাবেক উপদেষ্টা, স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

বাংলাদেশ সময় ২২৫৯ ঘণ্টা, মে ১৭, ২০১৩
সম্পাদনা: সাব্বিন হাসান, আইসিটি এডিটর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa