bangla news

উচ্চ রক্তচাপে ভুগছেন ১ কোটি ২০ লাখ মানুষ

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৩-০৪-০৪ ১০:৪৫:৪৩ এএম

বাংলাদেশে উচ্চ রক্তচাপের রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ২০ লাখ। এ রোগীর মধ্যে শহরাঞ্চলে ২১ শতাংশ পুরুষ এবং ১৮ শতাংশ নারী । আর গ্রামাঞ্চলে ১৬ শতাংশ পুরুষ এবং নারী ১৫ শতাংশ।

ঢাকা: বাংলাদেশে উচ্চ রক্তচাপের রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ২০ লাখ। এ রোগীর মধ্যে শহরাঞ্চলে ২১ শতাংশ পুরুষ এবং ১৮ শতাংশ নারী । আর গ্রামাঞ্চলে ১৬ শতাংশ পুরুষ এবং নারী ১৫ শতাংশ।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. আ.ফ.ম রুহুল হক এ তথ্য দেন।  

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, “দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় ২৫ বছরের ঊর্ধ্বে জনসংখ্যার প্রায় ৩৬ শতাংশ উচ্চ রক্তচাপে ভোগেন। এদের প্রতি তিন জনে একজন আক্রান্ত হন এবং প্রতি ১০ জনে একজন মারা যান।”

স্বাস্থ্যমন্ত্রী এ প্রসঙ্গে জানান, এ অঞ্চলে বছরে দেড় বিলিয়ন মানুষ উচ্চ রক্তচাপে মারা যান।

উচ্চ রক্তচাপ প্রসঙ্গ তুলে স্বাস্ত্যমন্ত্রী আরও বলেন, “উচ্চ রক্তচাপের কোনো উপসর্গ না থাকায় আক্রান্ত ব্যক্তি প্রাথমিক পর্যায়ে বুঝতে পারেন না। এ কারণে উচ্চ রক্তচাপ নীরব ঘাতকের মতো কাজ করে। প্রাথমিকভাবে উচ্চ রক্তচাপ নির্ণয় করতে না পারায় হৃদরোগ, স্ট্রোক, কিডনি ও চক্ষু রোগে আক্রান্ত্র হওয়ার ঝঁকি বাড়ে।”
 
তিনি বলেন, “বাংলাদেশে জনসংখ্যা জ্যামিতিক হারে বেড়ে চলেছে। জনসংখ্যা বৃদ্ধির পাশাপাশি প্রাপ্ত বয়স্ক জনগোষ্ঠীর মধ্যে উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্তের সংখ্যাও বাড়ছে।”

হৃদরোগ নিয়ন্ত্রণে রাখতে স্বাস্থ্যসম্মত ও দুশ্চিন্তা মুক্ত জীবনযাপন করা, কায়িক পরিশ্রম করা, খেলাধুলা করা, ব্যায়াম ও হাঁটা, চর্বি ও লবন জাতীয় খাবার এবং ধূমপান ও মাদকজাত দ্রব্য পরিহার, টাটকা ফল ও সবজি খাওয়ার পরামর্শ দেন।

সংবাদ সম্মেলনে দেশের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপ তুলে ধরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, “জনগণের স্বাস্থ্য সেবার প্রত্যাশা পূরণে বর্তমান সরকার সক্ষম হবে।”

সংবাদ সম্মেলনে আরও জানানো হয়, বর্তমানে দেশে স্বাস্থ্য খাতে মোট ব্যয়ে পরিমাণ হচ্ছে জিডিপির ৩ দশমিক ১ শতাংশ। বর্তমানে দেশে সরকারি পর্যায়ে ৫৮৩টি এবং বেসরকারি পর্যায়ে ২ হাজার ৫০১টি হাসপাতাল রয়েছে। দেশে বর্তমানে ৩ হাজার ১২ জনের বিপরীতে ১ জন ডাক্তার, ২ হাজার ৬৬৫ জনের বিপরীতে ১টি শয্যা এবং ৬ হাজার ৩৪২ জনের বিপরীতে ১ জন মাত্র নার্স রয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ক্যাপ্টেন (অব) মজিবুর রহমান ফকির ও স্বাস্থ্য সচিব রিয়াজ উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ৪, ২০১৩
এসএমএ/সম্পাদনা: হাছান শাহরিয়ার, শামীম হোসেন, নিউজরুম এডিটর

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2013-04-04 10:45:43