ঢাকা, শুক্রবার, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯, ১২ আগস্ট ২০২২, ১৩ মহররম ১৪৪৪

স্বাস্থ্য

ওজন কমানোর ঘরোয়া টিপস

স্বাস্থ্য ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৫৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৯, ২০১২
ওজন কমানোর ঘরোয়া টিপস

ঢাকা: বাড়তি ওজন স্বাস্থ্যের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ হলেও ওজন কমানো অনেকের জন্যই খুবই ঝামেলাপূর্ণ একটা কাজ। তবে এ নিয়ে দুশ্চিন্তা পরিহার করে বাড়তি ওজন আপনি কমাতে পারেন প্রাকৃতিক উপায়েই।

কয়েকটি ঘরোয়া পদ্ধতি অবলম্বন করে খুবই কার্যকরভাবে ওজন কমানো সম্ভব। আপনিও দেখতে পারেন চেষ্টা করে।

তরকারিতে বা খাওয়ার সময় অনেকেই অতিরিক্ত কাচা লবন খেয়ে থাকেন। তবে ওজন কমাতে হলে এই অতিরিক্ত লবণ গ্রহণের প্রবনতা ত্যাগ করতে হবে। কারণ, লবণ শরীরের ওজন বাড়াতে সাহায্য করে।

তিক্ত স্বাদযুক্ত সবজি বিশেষ করে করলা বাড়তি ওজন কমানোর জন্য খুবই কার্যকর।

বেশি করে মসলাজাতীয় খাবার, যেমন: আদা, দারচিনি, কালো মরিচ এগুলোকে রাখতে হবে প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায়। মসলাজাতীয় খাবার ওজন কমাতে সাহায্য করে।

ওজন কমাতে যারা পথ্য নিয়ন্ত্রণের নিয়ম মেনে চলেন বা দিনের পর দিন উপবাস করেন, তাঁদের জন্য মধু ও লেবুর রস খুবই উপকারী।

এছাড়া দুধযুক্ত খাবার, যেমন: পনির, মাখন না খেলেই ভালো। মাংস ও আমিষজাতীয় খাবারও প্রয়োজনের অতিরিক্ত খাওয়া যাবে না।

প্রতিদিনের খাবারকে পরিমাণমতো ভাগ করে কয়েকবারে গ্রহণ করতে পারেন। তবে খেয়াল রাখতে হবে প্রতিটি ভাগই যেন পরিমাণে অল্প হয়। আর খেয়াল রাখতে প্রতিটি ভাগে থাকা ভাতের পরিমাণও যেন কোনোভাবেই এক মুঠের বেশি না হয়।

উচ্চ শ্বেতসার খাদ্য যেমন—চাল, আলু খেতে হবে নিয়ন্ত্রিত মাত্রায়। তবে সবচেয়ে ভালো হয় আর গমজাত খাদ্যগ্রহণের অভ্যাস করলে। এছাড়া তাজা ফলমূল ও সবুজ শাকসবজিও কম ক্যালরিযুক্ত খাদ্য, ওজন বেশি যাদের, তাঁদের বেশি করে এগুলো খাওয়া উচিত।

বাঁধাকপি ওজন কমাতে সাহায্য করে। মিষ্টি ও শর্করাজাতীয় খাবারকে চর্বিতে রূপান্তরিত হতে বাধা দেয় বাঁধাকপি। কাঁচাও খাওয়া যায় এটি , আর রান্নার সুযোগ তো রয়েছেই।

তবে এত কিছুর পরও ওজন কমানোর সবচেয়ে কার্যকর ও গুরুত্বপূর্ণ পদ্ধতি হলো শারীরিক ব্যায়াম। ব্যায়াম চর্বি হিসেবে শরীরে জমা থাকা ক্যালরি খরচে হতে সাহায্য করে।

ব্যায়াম করা মানে আপনাকে এখনই জিমে গিয়ে বডিবিল্ডারদের মতো ভারি ভারি ডাম্বেল ব্যবহার করে শরীরের ঘাম ঝড়াতে হবে না। শুরু করুন হালকভাবে।

হাঁটাচলা, আস্তে আস্তে দৌড়ানো, সাঁতার কাটাও যদি নিয়মিতভাবে চালিয়ে যেতে পারেন তবেই যথেষ্ট।

তবে ঘরোয়া পদ্ধতিতে ওজন কমানোর আরেকটি ভালো উপায় হলো মধু খাওয়া। মধু দেহের অতিরিক্ত চর্বিকে পুড়িয়ে ফেলে। মধু খেতে পারেন অল্প পরিমাণে, খুব বেশি হলে প্রতিবার এক চা চামচ। এমনিও খেতে পারেন অথবা হালকা গরম পানিতে মিশিয়ে এক চামচ লেবুর রস দিয়েও খেয়ে দেখতে পারেন।

উপরোক্ত নির্দেশনাগুলো নিয়মিত মেনে চলুন। দেখবেন ধীরে ধীরে শরীর থেকে ঝড়ে যাচ্ছে বাড়তি চর্বি। পাশাপাশি শরীর হবে ঝরঝরে, সঙ্গে মনটাও থাকবে ফুরফুরে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৯, ২০১২
সম্পাদনা: রাইসুল ইসলাম, নিউজরুম এডিটর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa