[x]
[x]
ঢাকা, বুধবার, ৬ চৈত্র ১৪২৫, ২০ মার্চ ২০১৯
bangla news

উঠে যাচ্ছে সুপ্রিম কোর্টের ‘কাগজের কার্যতালিকা’

552 |
আপডেট: ২০১৫-০৭-২৬ ৫:০৪:০০ এএম

বিচার বিভাগের ডিজিটালাইজেশনের অংশ হিসেবে উঠে যাচ্ছে কাগজে ছাপানো সুপ্রিম কোর্টের দৈনন্দিন কার্যতালিকা। শুধু অনলাইনে এ কার্যতালিকা প্রকাশ করা হবে। আগামী ২/১ মাসের মধ্যে এ উদ্যোগ বাস্তবায়িত হতে পারে বলে জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট ‍সূত্র।

ঢাকা: বিচার বিভাগের ডিজিটালাইজেশনের অংশ হিসেবে উঠে যাচ্ছে কাগজে ছাপানো সুপ্রিম কোর্টের দৈনন্দিন কার্যতালিকা। শুধু অনলাইনে এ কার্যতালিকা প্রকাশ করা হবে। আগামী ২/১ মাসের মধ্যে এ উদ্যোগ বাস্তবায়িত হতে পারে বলে জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট ‍সূত্র।

যদিও এখনো অনলাইনে কার্যতালিকা প্রকাশ করা হয়। কিন্তু হাইকোর্টের সব বেঞ্চে এটা এখনো কার্যকর হয়নি। কেবল নিয়মিত আপিল বিভাগের কার্যতালিকা অনলাইনে প্রকাশ হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার সাব্বির ফয়েজ জানান, সুপ্রিম কোর্টকে পুরোপুরি ডিজিটালাইজেশনের আওতায় আনতে প্রধান বিচারপতি অনেক ধরনের উদ্যোগ নিয়েছেন। এর মধ্যে এটা অন্যতম। কিছু দিনের মধ্যে এটা বাস্তবায়িত হতে পারে।

অনলাইন সুবিধা থাকতে এখন এত বড় কাগজের বইয়ের (দৈনন্দিন কার্যতালিকা) প্রয়োজন আছে কিনা সেটাও ভেবে দেখার বিষয়।
সূত্রমতে, দৈনন্দিন এ বই ছাপাতে বাৎসরিক খরচ হয় প্রায় ২০ কোটি টাকা।

চলতি বছরের শুরুতে প্রধান বিচারপতি ‍সুরেন্দ্র কুমার সিনহা দায়িত্ব নেওয়ার পর বিচার বিভাগকে ডিজিটালাইজেশনের জন্য বিভিন্ন কর্মসূচি নেন। এর মধ্যে ভয়েস রেকর্ডের মাধ্যমে অটোমেটিকভাবে সাক্ষ্য নেওয়া, ফিল্ড লেভেলের প্রত্যেক বিচারককে তিন মাসের মধ্যে দেওয়া হবে ল্যাপটপ।

অধঃস্তন আদালতের বিচারকদের মধ্যে ইতিমধ্যে বিতরণ করা হয়েছে ১২৫টি ল্যাপটপ ও দুইশ’ ট্যাব।
 
এর আগে আইন কমিশন মামলার জট কমানো ও দ্রুত বিচার নিষ্পত্তির লক্ষ্যে একটি কার্যপত্র প্রস্তুত করে।

এতে বলা হয়, মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির লক্ষ্যে সমগ্র বিচার ব্যবস্থাকে ডিজিটালাইজেশনের উদ্যোগ নিতে হবে। সহকারী জজসহ প্রত্যেক বিচারকের জন্য একজন করে দক্ষ স্টেনোগ্রাফার নিয়োগ দিতে হবে। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে বিচারকদের নিজ হাতে সাক্ষীর জবানবন্দি রেকর্ড করার পরিবর্তে কম্পিউটার টাইপ চালু করা দরকার। প্রত্যেক আদালতে প্রিন্টারসহ একটি কম্পিউটার ও আরও তিনটি মনিটর সরবরাহ করতে হবে।

বিচার কাজে স্বচ্ছতা আনার লক্ষ্যে সাক্ষীর জবানবন্দি স্টেনোগ্রাফার কম্পিউটারে টাইপ করবেন এবং তা সঠিকভাবে রেকর্ড হচ্ছে কি না তা পর্যবেক্ষণের জন্য বিচারকসহ উভয়পক্ষের আইনজীবীদের সামনে একটি করে মোট তিনটি মনিটর থাকবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫৮ ঘণ্টা, জুলাই ২৬, ২০১৫
ইএস/জেডএম

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db