ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ ভাদ্র ১৪২৬, ২০ আগস্ট ২০১৯
bangla news

অবৈধ বিলবোর্ড উচ্ছেদের ঘোষণা মেয়রের

1044 |
আপডেট: ২০১৫-০৫-১৬ ১:৪৪:০০ এএম
ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম (ফাইল ফটো)

ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম (ফাইল ফটো)

নগরী থেকে অবৈধ বিলবোর্ড উচ্ছেদের ঘোষণা দিয়েছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন। শনিবার সকালে নগর পুলিশের পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচি উদ্বোধনকালে মেয়র এ ঘোষণা দেন।

চট্টগ্রাম: নগরী থেকে অবৈধ বিলবোর্ড উচ্ছেদের ঘোষণা দিয়েছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন।

শনিবার সকালে নগর পুলিশের পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচি উদ্বোধনকালে মেয়র এ ঘোষণা দেন।

মেয়র বলেন, ‘আমি স্পষ্ট ভাষায় বলতে চাই, নগরীতে অবৈধ বিলবোর্ড উচ্ছেদ করা হবে। শুধু অবৈধ বিলবোর্ড নয়, সিটি করপোরেশন থেকে অনুমোদন নিয়ে যারা সেটা ম্যানিপুলেট করেছেন সেগুলোও উচ্ছেদ করা হবে। সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তাদের বলেছি আর কোন বিলবোর্ড স্থাপনের অনুমতি যেন দেয়া না হয়।’

তিনি বলেন, ‘বিলবোর্ড নিয়ে অনেক আলোচনা-সমালোচনা হয়েছে। কিন্তু কাঙ্খিত কোন ফল আমরা পাইনি। সিএমপি কমিশনার বিলবোর্ড উচ্ছেদে এগিয়ে এসেছিলেন, কিন্তু সিটি করপোরেশন থেকে সহযোগিতা না পাওয়ায় এ কাজে সফল হতে পারেননি।’

মেয়র বলেন, ‘আমি করপোরেশনের কর্মকর্তাদের কাছে বিলবোর্ডের তালিকা চেয়েছি। সেই তালিকা আমি যাচাই বাছাই করব। অনুমোদনবিহীন বিলবোর্ডের আলাদা তালিকা করব। ’

তিনি বলেন, ‘অনেকে করপোরেশন থেকে অনুমোদন নিয়েছেন। কিন্তু সেটা যে স্থানে বসানোর কথা সেখানে না বসিয়ে অন্য জায়গায় বসিয়েছেন। আবার যে পরিমাপের বসানোর কথা তার থেকে পাঁচ গুণ, দশ গুণ বড় বিলবোর্ড বসিয়েছেন। সেগুলোও আমরা উচ্ছেদ করব।’

মেয়র জানান, বিলবোর্ড স্থাপনের বিষয়ে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নেয়া হবে। বিশেষজ্ঞদের মতামত অনুযায়ী বিলবোর্ড স্থাপনের অনুমোদন দেয়া হবে। বিশেষজ্ঞরা যদি বলেন চট্টগ্রামে বিলবোর্ড স্থাপনের প্রয়োজন নেই সেক্ষেত্রে নতুন করে আর কোন অনুমোদন দেয়া হবেনা।

পরিচ্ছন্নতা নিয়ে মেয়র বলেন, আমাদের অসচেতনতার কারণেই চট্টগ্রাম শহর দুর্গন্ধযুক্ত, অপরিচ্ছন্ন শহরে পরিণত হয়েছে। অথচ এ শহরকে সুন্দর পরিচ্ছন্ন রাখা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব।

তিনি বলেন, আমি দায়িত্ব নেয়ার পর ছয় মাস নগরীতে জনসচেতনতা কর্মসূচি পালন করব। টিভিতে-পত্রিকায় বিজ্ঞাপন, স্ক্রল দেয়া হবে। নিজের বাসার সামনের নালা-নর্দমা পরিস্কার রাখা, ডাস্টবিনে ময়লা ফেলার ব্যাপারে সচেতনতা কর্মসূচি পালন করা হবে।

‘ছয় মাস পর আমরা সিটি করপোরেশনের বিদ্যমান যে আইন আছে সেটার প্রয়োগ করব। এক্ষেত্রে কারও রাজনৈতিক, আর্থিক, সামাজিক পরিচয় বিবেচনায় নেয়া হবেনা।’ বলেন আ জ ম নাছির।

তবে শপথ গ্রহণের পর থেকে নগরীতে দৃশ্যমান পরিবর্তন এসেছে বলে দাবি করেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন।

পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচিতে সিএমপি কমিশনার মোহা. আব্দুল জলিল মন্ডল বলেন, ‘যারা অবৈধ বিলবোর্ডের ব্যবসা করছেন ১৫ দিনের মধ্যে অর্থাৎ ৩১ মে’র মধ্যে সেগুলো সরিয়ে ফেলুন। অন্যথায় ১ জুন থেকে আমরা অবৈধ বিলবোর্ড স্থাপনকারীদের বিরুদ্ধে মামলা করব।’

বাংলাদেশ সময়: ১১৪৩ ঘণ্টা, মে ১৬, ২০১৫
আরডিজি/আইএসএ/টিসি  

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2015-05-16 01:44:00