ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৭ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ আগস্ট ২০১৯
bangla news

চট্টগ্রামে পাঁচতলা থেকে পড়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু

706 |
আপডেট: ২০১৫-০৫-১৫ ১১:৩৩:০০ পিএম

নগরীতে বহুতল ভবনের পাঁচতলা থেকে পড়ে ইয়াসিন আহমেদ রাসেল (২৩) নামে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। রাসেল নগরীর দু’নম্বর গেইট এলাকায় একটি বেসরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র।

চট্টগ্রাম: নগরীতে বহুতল ভবনের পাঁচতলা থেকে পড়ে ইয়াসিন আহমেদ রাসেল (২৩) নামে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। রাসেল নগরীর দু’নম্বর গেইট এলাকায় একটি বেসরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র।

শুক্রবার রাত সোয়া ১টার দিকে খুলশী থানার সর্দার বাহাদুরনগর এলাকায় নাইম ম্যানশনে এ ঘটনা ঘটে।

রাসেল বিমানবাহিনীর সাবেক ওয়ারেন্ট অফিসার জয়নাল আবেদিনের ছেলে।

জয়নাল আবেদিন বাংলানিউজকে জানান, রাত সাড়ে ১২টার দিকে ছেলের সঙ্গে তার শেষ কথা হয়। এসময় তিনি ছেলেকে শুয়ে পড়ার আদেশ দিয়ে নিজ কক্ষে যান। রাসেল নিজের কক্ষের দরজা বন্ধ করে দেন। তবে বারান্দা সংলগ্ন দরজা খোলা ছিল।

রাত সোয়া ১টার দিকে হঠাৎ চিৎকার-চেঁচামেচি শুনতে ‍পান জয়নাল আবেদিন। বাইরে বেরিয়ে তিনি শুনতে পান, পাঁচতলার বারান্দা অর্থাৎ তাদের বাসার বারান্দা থেকে তার ছেলে রাসেল নিচে পড়ে গেছে।

গুরুতর আহত ‍অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়িতে কর্তব্যরত নায়েক আবু হামিদ।

জয়নাল আবেদিন বাংলানিউজকে বলেন, ‘আমি যখন আমার ছেলের কক্ষ থেকে নিজের কক্ষে যাই তখন তার সঙ্গে কেউ ছিলনা। সে একাই দরজা বন্ধ করে দেয়। কীভাবে সে বারান্দা থেকে নিচে পড়ল বুঝতে পারছিনা। বারান্দায় তো লোহার গ্রিল আছে। এই পড়ে যাওয়া ইচ্ছাকৃত কিনা সেটাও বুঝতে পারছিনা।

তিনি কান্নাজড়িত কন্ঠে বাংলানিউজকে বলেন, ‘যেভাবেই পড়ুক তার মৃত্যু হয়েছে। আমার একটা মাত্র ছেলে। আমার অনেক বড় ক্ষতি হয়ে গেল। আমার মত আর কোন বাবা যেন সন্তানহারা না হয়।’

বাংলাদেশ সময়: ০৯৩১ ঘণ্টা, মে ১৬, ২০১৫
আরডিজি/আইএসএ/টিসি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2015-05-15 23:33:00