ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৭ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ আগস্ট ২০১৯
bangla news

‘জ্বলছে মানুষ, তবু দুই নেত্রীর বোধোদয় হচ্ছে না’

990 |
আপডেট: ২০১৫-০৫-১৫ ১১:৪৬:০০ এএম
বঙ্গবীর আবদুল কাদের সিদ্দিকী বীরউত্তম

বঙ্গবীর আবদুল কাদের সিদ্দিকী বীরউত্তম

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর আবদুল কাদের সিদ্দিকী বীরউত্তম বলেছেন, দেশের মানুষ জ্বলে-পুড়ে ছাড়খার হয়ে যাচ্ছে, তবু দুই নেত্রীর বোধোদয় হচ্ছে না। আল্লাহ যাদের কহর মেরে দিয়েছেন, তারা আমার কথা শুনবেন না।

নারায়ণগঞ্জ: কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর আবদুল কাদের সিদ্দিকী বীরউত্তম বলেছেন, দেশের মানুষ জ্বলে-পুড়ে ছাড়খার হয়ে যাচ্ছে, তবু দুই নেত্রীর বোধোদয় হচ্ছে না। আল্লাহ যাদের কহর মেরে দিয়েছেন, তারা আমার কথা শুনবেন না। আজ যদি বঙ্গবন্ধু বা জিয়াউর রহমান বেঁচে থাকতেন, তবে আমার একদিনও রাস্তায় থাকতে হতো না, তারা আমার দাবি মেনে নিতেন।

অবস্থান কর্মসূচির ১০৯তম দিনে শুক্রবার (১৫ মে) বিকেলে নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার ফুলহর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে অবস্থানকালে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

কাদের সিদ্দিকী বলেন, দেশে নারী নেতৃত্বের স্বর্ণযুগ চললেও আজ নারীর সম্ভ্রম রক্ষিত হচ্ছে না, নির্যাতনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে গিয়েও রাষ্ট্রীয় বাহিনীর হাতে নারী নির্যাতিত হচ্ছে। সন্তান কষ্টে থাকলে যেমন মা স্বস্তিতে থাকতে পারে না, তেমনি যুদ্ধ করে বাংলাদেশকে জন্ম দিয়েছিলাম বলেই দেশের এমন অবস্থা দেখে চুপচাপ ঘরে বসে থাকতে পারিনি। মানুষের বিবেক জাগ্রত করতে শান্তির দাবি নিয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছি।

এসময় কাদের সিদ্দিকীর সঙ্গে ছিলেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের যুগ্ম-সম্পাদক ইকবাল সিদ্দিকী, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম দেলোয়ার, কেন্দ্রীয় নেতা ফরিদ আহমেদ, আবুল হোসেন, মাহবুবুর রহমান পারভেজ প্রমুখ।

প্রধানমন্ত্রীকে সংলাপের উদ্যোগ গ্রহণ এবং বিএনপির নেত্রীকে অবরোধ প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়ে বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তম ২৮ জানুয়ারি থেকে মতিঝিলের ফুটপাতে অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেন। হয়রানি, নেতাকর্মীদের গ্রেফতার, শীতের প্রকোপ, ঝড়-বৃষ্টিতেও ফুটপাত থেকে সরেননি তিনি। টানা ৬৪ দিন মতিঝিলে অবস্থানের পর দেশের প্রবীণ নাগরিক, বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের অনুরোধে সাড়া দিয়ে ২ এপ্রিল থেকে শান্তির দাবি নিয়ে সারাদেশ সফর শুরু করেছেন কাদের সিদ্দিকী।

বাংলাদেশ সময়: ২১৪০ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০১৫
এইচএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2015-05-15 11:46:00