ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ ভাদ্র ১৪২৬, ২০ আগস্ট ২০১৯
bangla news

অপহরণের ১৯ দিন পর স্কুলছাত্রের মৃতদেহ উদ্ধার

306 |
আপডেট: ২০১৫-০৫-১৫ ১০:১১:০০ এএম

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলায় অপহরণের ১৯ দিন পর ইব্রাহিম খলিল মহসিন (১২) নামে এক স্কুলছাত্রের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১৫ মে) বিকেল ৫টার দিকে আটক দুই অপহরণকারীর তথ্য অনুযায়ী উপজেলার কালিকাপুর এলাকায় মাটির নিচে পুঁতে রাখা অবস্থায় তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

নোয়াখালী: নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলায় অপহরণের ১৯ দিন পর ইব্রাহিম খলিল মহসিন (১২) নামে এক স্কুলছাত্রের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (১৫ মে) বিকেল ৫টার দিকে আটক দুই অপহরণকারীর তথ্য অনুযায়ী উপজেলার কালিকাপুর এলাকায় মাটির নিচে পুঁতে রাখা অবস্থায় তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

মৃত ইব্রাহিম খলিল মহসিন উপজেলার জগজীবনপুর গ্রামের প্রবাসী আবদুল কাদেরের ছেলে এবং কালিকাপুর জাকিয়া মেমোরিয়াল কেজি স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র। গত ২৬ এপ্রিল বাড়ি থেকে স্কুলে যাওয়ার পর থেকে খোঁজ মিলছিল না তার।

অপহরণকারীরা হলেন, জগজীবনপুর গ্রামের ইসমাইল হোসেনের ছেলে মো. ওসমান (২২) ও একই গ্রামের শাকিব (২২)। তাদের বৃহস্পতিবার গভীর রাতে ঢাকার চকবাজারের ইসলামবাগ এলাকা থেকে আটক করা হয়।

সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী হানিফ উল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বাংলানিউজকে জানান, গত ২৬ এপ্রিল ইব্রাহিম স্কুলে গিয়ে নিখোঁজ হয়। পরে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করে তার পরিবার।

গত ৪/৫ দিন আগে থেকে ইব্রাহিমের পরিবারের কাছে মোটা অংকের মুক্তিপণ দাবি করে আসছে অজ্ঞাতপরিচয় এক ব্যক্তি। বিষয়টি পুলিশকে জানানো হলে অপহরণকারীর মোবাইল ফোন ট্র্যাক করে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে ঢাকা থেকে আটক করা হয়।

তাদের শুক্রবার সকালে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলে ইব্রাহিমকে হত্যা করে মাটি চাপা দিয়ে রাখার কথা জানায়। পরে বিকেলে মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২০১০ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০১৫
এসআর

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2015-05-15 10:11:00