ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ ভাদ্র ১৪২৬, ২০ আগস্ট ২০১৯
bangla news
গুরুত্ব পাবে মানবপাচার

মালয়েশিয়া গেলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

866 |
আপডেট: ২০১৫-০৫-১৪ ২:৪৮:০০ পিএম
পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী

মালয়েশিয়া গেলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী। দেশটির সঙ্গে চতুর্থ পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ে যৌথ কমিশনের বৈঠকে অংশ বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা ছাড়েন তিনি। মালয়েশিয়ার কোতা কিনাবালুতে অনুষ্ঠিত এ বৈঠকে বাংলাদেশের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেবেন মাহমুদ আলী।

ঢাকা: মালয়েশিয়া গেলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী। দেশটির সঙ্গে চতুর্থ পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ে যৌথ কমিশনের বৈঠকে অংশ বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা ছাড়েন তিনি। মালয়েশিয়ার কোতা কিনাবালুতে অনুষ্ঠিত এ বৈঠকে বাংলাদেশের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেবেন মাহমুদ আলী।

বৃহস্পতিবার রাতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানায়। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে, এ বৈঠকে দু‘দেশের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট নানা বিষয়ের সঙ্গে সমুদ্রপথে অবৈধভাবে মানবপাচার বন্ধের জন্য যৌথ উদ্যোগের বিষয়টি বিশেষভাবে গুরুত্ব পাবে। একই ইঙ্গিত দেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেনও।

পাচাররোধে করণীয় ও পাচারকৃতদের ফিরিয়ে আনার বিষয়ে জানতে চাইলে বৃহস্পতিবার তিনি সাংবাদিকদের বলেন, প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় মূলত বৈধ শ্রমিকদের নিয়ে কাজ করে। অবৈধ শ্রমিক বা পাচারকৃতদের ফিরিয়ে আনা বা পাচাররোধে কর্মকৌশল তৈরি করার দায়িত্ব পররাষ্ট্র ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের। তারা এ বিষয়ে কাজ করছে। এছাড়া পররাষ্ট্র মন্ত্রী আজই (বৃহস্পতিবার) মালয়েশিয়া যাচ্ছেন। বিষয়টি সেখানে আলোচনা হতে পারে।

জানা যায়, মানবপাচার বন্ধে বৃহত্তর পরিসরে সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর মধ্যে আলোচনার জন্য বাংলাদেশ মালয়েশিয়া এবং থাইল্যান্ডকে আগেই চিঠি দিয়েছে।

অবৈধভাবে মালয়েশিয়া বা থাইল্যান্ড গিয়ে বাংলাদেশি যারা আটকা পড়েছেন তাদের ফেরত আনার ব্যাপারেও বাংলাদেশ সহযোগিতা চাইছে।

সূত্র জানায়, যারা ইতোমধ্যে পাচারকারীদের খপ্পরে পড়ে রোহিঙ্গাদের সঙ্গে মালয়েশিয়া বা থাইল্যান্ডে গিয়ে আটকে পড়েছেন তাদের ফেরত আনার বিষয়ে মালয়েশিয়ার সঙ্গে বৈঠকে আলোচনা হবে।

এছাড়া সারওয়াক প্রদেশে শ্রমিক পাঠানো জন্য মালয়েশিয়ার প্রতিশ্রুত চাহিদাপত্রের বিষয়টিতে বিশেষভাবে জোর দেওয়া হবে এবারের বৈঠকে। গত বছরের আগস্ট মাসে ঢাকা সফরে এসে বাংলাদেশ থেকে সারওয়াক প্রদেশের জন্য ১২ হাজার শ্রমিক নেওয়ার কথা জানায় দেশটির মানবসম্পদ উন্নয়নমন্ত্রী দাতো রিচার্ড রিয়ত।

জানা গেছে, দুই দেশের বৈঠকে ভিসা অব্যাহতির বাস্তবায়ন, অর্থনৈতিক সহযোগিতা ও বাণিজ্য বৃদ্ধিসহ দ্বিপক্ষীয় স্বার্থ সংশ্লিষ্ট নানা বিষয়কে গুরুত্ব দেবে বাংলাদেশ।

অন্যদিকে মালয়েশিয়া বাংলাদেশের সঙ্গে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তিকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে। দেশটি চায়, পাকিস্তান ও ভারতের মতো বাংলাদেশের সঙ্গেও তাদের মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি হোক।

বাংলাদেশ সময়: ০০৪৫ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০১৫
জেপি/আরআই

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2015-05-14 14:48:00