ঢাকা, বুধবার, ৫ ভাদ্র ১৪২৬, ২১ আগস্ট ২০১৯
bangla news
ঢাকা সিটি নির্বাচন

স্থগিত তিন কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ চলছে

618 |
আপডেট: ২০১৫-০৫-১০ ১১:৪৭:০০ পিএম
ছবি: রাজিব / বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: রাজিব / বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সদ্য অনুষ্ঠিত ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে স্থগিত তিন কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ চলছে। সোমবার (১১ মে) সকাল ৮টায় শুরু হয়ে ভোটগ্রহণ চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

ঢাকা: সদ্য অনুষ্ঠিত ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে স্থগিত তিন কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ চলছে।

সোমবার (১১ মে) সকাল ৮টায় শুরু হয়ে ভোটগ্রহণ চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

গত ২৮ এপ্রিল ডিএসসিসি নির্বাচনে অনিয়মের কারণে ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কমলাপুর শেরে বাংলা রেলওয়ে উচ্চ বিদ্যালয় (কেন্দ্র নম্বর-১), ৩৪ নম্বর ওয়ার্ডের সুরিটোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম সরণি (কেন্দ্র নম্বর-২) ও ৫৩ নম্বর ওয়ার্ডের জুরাইন আশ্রাফ মাস্টার আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় (কেন্দ্র নম্বর-৩) কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করেন প্রিজাইডিং কর্মকর্তা।
 
এই তিন কেন্দ্রে সোমবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোটগ্রহণ হবে। কেন্দ্রগুলোর ভোটগ্রহণের পরই জানা যাবে ৮ নম্বর, ৩৪ নম্বর ও ৫৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কারা হচ্ছেন।
 
ইসির প্রকাশিত গেজেট থেকে জানা গেছে, কমলাপুর শেরে বাংলা রেলওয়ে উচ্চ বিদ্যালয় (কেন্দ্র নম্বর-১) ভোটকেন্দ্রে মোট ভোটার রয়েছেন দুই হাজার ২শ’ ৮৩ জন। সুরিটোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম সরণি (কেন্দ্র নম্বর-২) ভোটকেন্দ্রের ভোটার সংখ্যা দুই হাজার ২শ’ ২৮ জন। এছাড়া জুরাইন আশ্রাফ মাস্টার আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় (কেন্দ্র নম্বর-৩) ভোটকেন্দ্রের মোট ভোটার এক হাজার ৮শ’ ১৫ জন।
 
৮ নম্বর ওয়ার্ডে ১০ জন, ৩৪ নম্বর ওয়ার্ডে আট জন ও ৫৩ নম্বর ওয়ার্ডে ১০ জন প্রার্থী কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
 
পর্যবেক্ষক নিয়োগ
তিন কেন্দ্রের এ নির্বাচনে সরকারি পরিচালক পর্যায়ের তিন কর্মকর্তাকে বিশেষ পর্যবেক্ষক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে ইসি। কোনো অনিয়নম চোখে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে তারা রিটার্নিং কর্মকর্তা, সহাকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও নির্বাচন কমিশনকে অবহিত করবেন। বিশেষ পর্যবেক্ষক হিসেবে তারা পর্যবেক্ষণ শেষ হওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে নির্বাচন কমিশনে প্রতিবেদন জমা দেবেন।
 
কেন্দ্রে থাকবে ৩০ জনের ফোর্স
সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন করার জন্য তিন কেন্দ্রে আগের চেয়ে কয়েকগুণ বেশি ফোর্স মোতায়েন করা হয়েছে। প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে পুলিশ ও আনসারের ৩০ জনের ফোর্স উপস্থিত রয়েছে। এছাড়া প্রতি ভোটকেন্দ্রের জন্য পুলিশের তিনটি ও র‌্যাবের তিনটি মোবাইল টিম নিয়োজিত রয়েছে।

অনিয়ম তদন্ত কমিটি
এদিকে স্থগিত তিন কেন্দ্রের অনিয়মের কারণ খতিয়ে দেখতে দুই সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করছে নির্বাচন কমিশন। কমিটি দোষী বা দায়ী ব্যক্তিদের চিহ্নিত করে একমাসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেবে।
 
বাংলাদেশ সময়: ০৯৪৬ ঘণ্টা, মে ১১, ২০১৫
এসইউজে/এজেডকে/টিএইচ/এমজেএঠ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2015-05-10 23:47:00