ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৭ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ আগস্ট ২০১৯
bangla news

তিন সিটিতে আবারও নির্বাচনের দাবি

1106 |
আপডেট: ২০১৫-০৪-৩০ ৩:৫৫:০০ এএম
ছবি: দেলোয়ার হোসেন বাদল/বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: দেলোয়ার হোসেন বাদল/বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

তিন সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে তামাশা ও প্রহসন উল্লেখ করে আবারও নির্বাচন অনুষ্ঠানের দাবি জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা রুহুল আমীন গাজী।

ঢাকা: তিন সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে তামাশা ও প্রহসন উল্লেখ করে আবারও নির্বাচন অনুষ্ঠানের দাবি জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা রুহুল আমীন গাজী।
 
বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের মিলনায়তনে সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ দাবি করেন।
 
পরিষদের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক রুহুল আমীন গাজী বলেন, মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) তামাশা ও প্রহসনের নির্বাচনকে প্রত্যাখান করা ছাড়া বিবেকবান প্রার্থীদের কিছুই করার ছিলো না। কলংকিত এ নির্বাচনকে বাতিল করে আবারও গ্রহণযোগ্য ও সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠান এবং প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিব উদ্দিন আহমেদসহ কমিশনের পদত্যাগের দাবি করছি।
 
লিখিত বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, সিটি নির্বাচনে ১০ শতাংশ ভোটারও ভোট দিতে কেন্দ্রে যাননি। অথচ নির্বাচন কমিশন ৪৪ দশমিক ৯ শতাংশ ভোটার উপস্থিতি দেখিয়েছে যা লজ্জাজনক ও হাস্যকর।
 
রুহুল আমীন বলেন, সিইসি কাজী রকিব উদ্দিন আহমেদের প্রকাশ্য দালালির কারণে নির্বাচন কমিশনের মতো একটি সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়েছে।
 
বিএনপি চেয়ারপার্সনের এ উপদেষ্টা বলেন, সরকার দলীয় যেসব যুবলীগ ও ছাত্রলীগ ক্যাডার নির্বাচনী প্রচারণার সময় খালেদা জিয়ার প্রাণনাশের চেষ্টা করেছে তারাই কেন্দ্র দখল করে ব্যালটে সিল মেরেছে।

নির্বাচনের দিন ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও পুলিশ-র‌্যাব ভোট ডাকাতির মহোৎসবে মেতে উঠেছিলো বলে মন্তব্য করেন তিনি।
 
তিনি বলেন, এদিন বিএনপি মনোনীত প্রার্থীদের পোলিং এজেন্টদের কেন্দ্রে ঢুকতে দেয়া হয়নি। তবে যারা ঢুকতে পেরেছিল তাদের ছাত্রলীগ ও যুবলীগের ক্যাডাররা মারধর করে বের করে দেয়।
 
ভোটের দিন তিন সিটিতে ৮০ হাজার আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী থাকলেও অধিকাংশ কেন্দ্রে তারা সরকার সমর্থকদের সঙ্গে ভোট দখলের উৎসবে মেতেছিল বলে অভিযোগ করেন রুহুল আমীন গাজী। এছাড়া নির্বাচনের দায়িত্বে পাঁচশ’ ম্যাজিস্ট্রেট থাকলেও তাদের অধিকাংশই নিষ্ক্রিয় ছিলো বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
 
সংবাদ সম্মেলনে খালেদা জিয়ার অপর দুই উপদেষ্টা শওকত মাহমুদ ও ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন ছাড়াও সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের একাধিক নেতা উপস্থিত ছিলেন।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৩৫৬ ঘণ্টা, এপ্রিল ৩০, ২০১৫
টিএইচ/এসইউজে/এসএন/আরআই

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2015-04-30 03:55:00