[x]
[x]
ঢাকা, বুধবার, ৬ চৈত্র ১৪২৫, ২০ মার্চ ২০১৯
bangla news

জানুয়ারিতে ৫০ কোটি টাকার মাদক জব্দ

190 |
আপডেট: ২০১৫-০২-০৯ ৬:১৩:০০ এএম
ছবি : প্রতীকী

ছবি : প্রতীকী

চলতি বছরের জানুয়ারি মাসেই দেশের সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে প্রায় ৫০ কোটি ৪ লাখ টাকা মূল্যের মাদক ও চোরাচালানের পণ্য জব্দ করেছে বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

ঢাকা: চলতি বছরের জানুয়ারি মাসেই দেশের সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে প্রায় ৫০ কোটি ৪ লাখ টাকা মূল্যের মাদক ও চোরাচালানের পণ্য জব্দ করেছে বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

সোমবার (০৯ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে বিজিবি সদর দপ্তরের জনসংযোগ কর্মকর্তা মুহম্মদ মোহসিন রেজা বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, দেশের সীমান্ত ও এর আশপাশের এলাকায় অভিযান চালিয়ে জানুয়ারি মাসে ৫০ কোটি ৪ লাখ ৪০ হাজার ৭’শ ৫৬ টাকা মূল্যের বিভিন্ন প্রকারের চোরাচালান ও মাদকদ্রব্য জব্দ করা হয়েছে।

জব্দ অর্ন্তমুখী চোরাচালানের আর্থিক মূল্য ৪২ কোটি ৫৬ লাখ ৩৩ হাজার ৪’শ ৩১ টাকা এবং বহির্মুখী চোরাচালানের আর্থিক মূল্য ৭ কোটি ৪৮ লাখ ৭ হাজার ৩’শ ২৫ টাকা।

ওই জনসংযোগ কর্মকর্তা আরো বলেন, জব্দ মাদকের মধ্যে রয়েছে ৪০ হাজার ৬’শ ২৯ বোতল ফেনসিডিল, ৩ লাখ ৪৭ হাজার ১’শ ৯৭ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ২৪ হাজার ৩৪টি উত্তেজক ট্যাবলেট, ২৩ হাজার ৫’শ ৭২ বোতল বিদেশি মদ, ১ হাজার ২’শ ১০ লিটার স্থানীয় (দেশীয়) মদ, ৬ হাজার ২’শ ৬৫ ক্যান বিয়ার, ৮’শ ৯১ কেজি গাঁজা, ১ কেজি ৫’শ গ্রাম হেরোইন, ১ হাজার ২’শ ৬৩ টি নেশাজাতীয় ইনজেকশন এবং ৩ হাজার ৫’শ ৫০ টি বিভিন্ন প্রকারের ট্যাবলেট।

মোহসিন জানান, জানুয়ারি মাসে ৯টি পিস্তল, ৬টি বন্দুক, ৬টি ম্যাগাজিন, ৩ হাজার ৭’শ ৭২ রাউন্ড গুলি এবং ৩৩ কেজি ৭’শ গ্রাম গান পাউডার অভিযান চালিয়ে উদ্ধার করেছে বিজিবি।

একই মাসে বিজিবির অভিযানে সীমাস্তে অবৈধ পারাপার ও চোরাচালানে জড়িত থাকার অভিযোগে ১’শ ৯৮ জনকে আটক করে নিকটস্থ থানায় সোপর্দ এবং ২ হাজার ৯’শ ৬৫টি চোরাচালান মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এছাড়া অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রমের সময় ১ হাজার ১’শ ৬৯ জনকে আটক করা হয়। এর মধ্যে ২৯৫ জন বাংলাদেশিকে আটক করে থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। আর ভারতীয় ১৮ জনের মধ্যে ১৪ জনকে স্বদেশে ফেরত ও ৪ জনকে থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। পাশাপাশি বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তে মিয়ানমারের ৭’শ ৩৮ জন নাগরিককে আটক করে স্বদেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে বলেও জানান মুহম্মদ মোহসিন রেজা।

তিনি আরো বলেন, একই মাসে ১’শ ১৮ জন নারী-শিশুকে উদ্ধার করা হয়েছে। আদম প্রাচারকারীদের মাধ্যমে সীমান্ত দিয়ে প্রাচার হওয়ার সময় এদের উদ্ধার করা হয়। এর মধ্যে ৮০ জন নারী এবং ৩৮ জন শিশু রয়েছেন।

প্রাচার সংক্রান্ত অপরাধে সংশ্লিষ্ট থানায় ২৩টি মামলাও দায়ের করা হয়েছে বলে জানান মুহম্মদ মোহসিন রেজা।

বাংলাদেশ সময়: ১৭১৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৯, ২০১৫

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db