bangla news

ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে সেবা দেবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড

354 |
আপডেট: ২০১৫-০২-০৮ ৯:৩৩:০০ এএম

প্রযুক্তির সবচেয়ে বড় মিলন মেলা ‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড-২০১৫’ জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) দু’টি সেবা দেবে। এর মধ্যে রয়েছে কাস্টমসের নতুন সংযোজন অ্যাসাইকুডা ওয়ার্ল্ড ও ই-টিআইএন (ইলেকট্রনিক ট্যাক্স আইডেন্টিফিকেশন নাম্বার)।

ঢাকা: প্রযুক্তির সবচেয়ে বড় মিলন মেলা ‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড-২০১৫’ জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) দু’টি সেবা দেবে। এর মধ্যে রয়েছে কাস্টমসের নতুন সংযোজন অ্যাসাইকুডা ওয়ার্ল্ড ও ই-টিআইএন (ইলেকট্রনিক ট্যাক্স আইডেন্টিফিকেশন নাম্বার)।
 
সোমবার (৯ ফেব্রুয়ারি) চার দিনব্যাপী (৯-১২ ফেব্রুয়ারি) বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এ মেলা অনুষ্ঠিত হবে।
 
প্রতি বছরের মতো এবারও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডে সংযোজিত সর্বশেষ প্রযুক্তি সম্পর্কে জনগণকে জানাতে এ উদ্যোগ নিয়েছে বলে জানা গেছে।
 
প্রযুক্তি মেলায় অংশ নেওয়া অর্থ মন্ত্রণালয়ের অধীনে সাতটি সরকারি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড একটি।
জাতীয় রাজস্ব বোর্ড ছাড়াও রয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক, সাধারণ বিমা ও জীবন বিমা কর্পোরেশন, আইসিবি, বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশন, মাইক্রোক্রেডিট রেগুলারেটি অর্থরিটি।
 
জাতীয় রাজস্ব বোর্ড সূত্র জানায়, প্রতি বছর ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড মেলায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ড সর্বশেষ প্রযুক্তির ব্যবহার নিয়ে আসা হয়।
এবার মেলায় কাস্টমস সর্বশেষ সংযোজিত অ্যাসাইকুডা ওয়ার্ল্ড ও ই-টিআইএন সেবা দেওয়া হবে।
অ্যাসাইকুডা ওয়ার্ল্ড’র ব্যবহার দেখানো হবে।
 
পাশাপাশি করদাতাদের মাঝে ই-টিআইএন সেবা দেওয়া হবে।

এর মধ্যে রয়েছে, নতুন-পুরোনো করদাতাদের রেজিস্ট্রেশন (ই-টিআইএন রেজিস্ট্রেশন ও রি-রেজিস্ট্রেশন) ও ই-টিআইএন ভুল সংশোধন।

এ বিষয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের দ্বিতীয় সচিব জাহিদ হোসেন বাংলানিউজকে বলেন, সর্বশেষ প্রযুক্তি সেবা দিতে আমাদের সব প্রস্তুতি রয়েছে।

নতুন করদাতা শনাক্ত, পুরোনো করদাতাদের নতুন ই-টিআইএন নাম্বার প্রদান ও ভুল সংশোধনের জন্য তিনটি ফর্ম পূরণ করার জন্য দেওয়া হবে।

এসব ফর্মের মাধ্যমে পরবর্তীতে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড থেকে করদাতাদের এসব সেবা দেওয়া হবে বলে জানান জাহিদ হোসেন।

তিনি আরও বলেন, প্রযুক্তি মেলায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সকল সেবার পুস্তিকা সরবরাহ করা হবে।

মেলায় বিশ্বের ২৫টি দেশ থেকে আসা ৮৫ জন তথ্য-প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ, ১২০টি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, ১০০টি সরকারি প্রতিষ্ঠান অংশ নেবে।
 
অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) ও বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের সহযোগিতায় তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অ্যান্ড সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিস (বেসিস) যৌথভাবে এর আয়োজন করছে।
 
মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত চলবে।
 
বাংলাদেশ সময়: ২০৩২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৮, ২০১৫

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2015-02-08 09:33:00