[x]
[x]
ঢাকা, বুধবার, ৫ চৈত্র ১৪২৫, ২০ মার্চ ২০১৯
bangla news

চেয়ার আসক্তি মৃত্যুর উপসর্গ!

2508 |
আপডেট: ২০১৪-০৭-২৭ ৭:৪৩:০০ পিএম

বসেই এ প্রতিবেদন পড়ছেন তো? তবে প্রতিবেদন শেষ করা পর্যন্ত হয়তো আর বসে থাকতে পারবেন না, ভয়ে দাঁড়িয়ে যেতে হবে আপনাকে। কারণ, চেয়ার আসক্তি নিয়ে ভয়ের সত্যিকার কিছু কারণ জানিয়েছেন গবেষকরা।

ঢাকা: বসেই এ প্রতিবেদন পড়ছেন তো? তবে প্রতিবেদন শেষ করা পর্যন্ত হয়তো আর বসে থাকতে পারবেন না, ভয়ে দাঁড়িয়ে যেতে হবে আপনাকে। কারণ, চেয়ার আসক্তি নিয়ে ভয়ের সত্যিকার কিছু কারণ জানিয়েছেন গবেষকরা।

অবাক লাগলেও গত ২৫ বছর যাবত যুক্তরাজ্যের চিকিৎসক ও বিজ্ঞানীরা প্রথমে নিজ দেশে এবং পরে যুক্তরাষ্ট্রের চেয়ার আসক্তদের নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে।

গবেষকরা কী বলছেন, জানা যাক সেসব।

প্রথমেই জানা যাক পরিচিত রোগ স্থূলতা বা Obesity সম্পর্কে। গবেষণায় উঠে এসেছে যুক্তরাজ্য এবং পশ্চিমা বিশ্বের অন্য দেশগুলোর মানুষ ধীরে ধীরে ‘চেয়ার আসক্তিতে’ মারা যাচ্ছেন।

গবেষণায় দেখা গেছে, ধূমপানের চেয়ে চেয়ারে বসে থাকার কারণে বেশি মানুষ মারা যায়।

এবার আরেকটি সাধারণ রোগ ডায়াবেটিস সম্পর্কে জানা যাক।

একদল বিজ্ঞানী গবেষণা করে দেখেছেন, খাবার ‍খাওয়ার পর বসে থাকলে এবং হাঁটাহাঁটি করলে রক্তে সুগারের পরিমাণে কোনো ধরণের পরিবর্তন আসে কিনা।

ফলাফল হাতে পাওয়া গেল সঙ্গে সঙ্গেই। খাবার খাওয়ার পরেই চেয়ারে বসলে দুই ঘণ্টার মধ্যে রক্তের সুগারের পরিমাণ অনেকটা পাহাড় সমান বেড়ে যায়। অন্য দিকে কেউ যদি খাবার খাওয়ার পরে ১৫ মিনিট হাঁটেন, তবে সুগার বাড়ে তার অর্ধেক।

অনেকেই জানেন, চিংড়ি মাছে প্রচুর কোলেস্টেরল রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষজ্ঞ মার্ক হামিলটন একটি গবেষণায় দেখেছেন, যাদের শরীরে কোলেস্টেরলের পরিমাণ বেশি বা যাদের সহনীয় মাত্রায় কোলেস্টেরল রয়েছে, তারা চিংড়ি খাওয়ার পরে বসে থাকলে হৃদজনিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বহুলাংশে বৃদ্ধি পায়।

মার্ক হাজারেরও বেশি ই‍ঁদুরের ওপর এ গবেষণা চালিয়েছেন।

গবেষকরা বলছেন, বসে থাকার দীর্ঘ চর্চায় শরীরে মৌলিক কিছু পরিবর্তনও আসতে পারে। সুইডেনের কিছু বিজ্ঞানীর গবেষণাতেও একই ধরণের ফলাফল এসেছে।

তাদের মতে, দীর্ঘ সময় বসে থাকা হার্ট অ্যাটাকের কারণও হতে পারে।

অন্যদিকে জার্মান বিজ্ঞানীরা বলছেন, বসে থাকার অভ্যাস শরীরের হাড় নরম করে ফেলে।

পাশাপাশি চেয়ারে বসে থাকার সঙ্গে অস্টিওপোরোসিস (হাড়ক্ষয়িষ্ণু রোগ), স্তন ও প্রোস্টেট ক্যান্সার, ডিপ্রেসন (বিষণ্নতা), ব্যাক পেইন (মেরুদণ্ডে ব্যাথা) এবং হাইপারটেনশন (উচ্চ রক্তচাপ) রোগে আক্রান্ত হওয়ার সরাসরি সম্পর্ক রয়েছে বলে মত দিয়েছেন গবেষকরা।

তাদের মতে, অতিরিক্ত বসে থাকার এই অভ্যাস কারও চিন্তার গতিহ্রাসেরও কারণ হতে পারে।

ভাল করে লক্ষ্য করলে দেখ‍া যাবে, হয়তো কেউ ঘুম থেকে জেগে গাড়িতে বসছেন, অফিসে চেয়ার বা সোফায় বসে কাজ করছেন, বসে থেকেই টিভি দেখছেন। অনেকে কেনাকাটাও করছেন কম্পিউটার মাউসে একটি ক্লিক করে। বিনোদনের জন্যও সিনেমা হলে বা থিয়েটারে দিয়েও সেই চেয়ারে বসে থাকা। অর্থাৎ দিনের অধিকাংশ সময় চেয়ারে বসেই কাটছে আপনার।

গবেষকরা বলছেন, গড়ে প্রতিদিন আমরা ১৩ ঘণ্টা বসে কাটাই। আট ঘণ্টা ঘুমানোর পর মাত্র তিন ঘণ্টা নড়াচড়া করি!

বর্তমান সময়ে উন্নত বিশ্বে তাদের জনসংখ্যার আনুমানিক অর্ধেক মানুষ কম্পিউটারে বসে কাজ করে। তুলনামূলকভাবে কৃষি অঞ্চলে বসবাসরত মানুষের তুলনায় অর্ধেক নড়াচড়া করে। যে কারণে শহুরে মানুষ অতিরিক্ত ওজনের হয়।

বাংলাদেশ সময়: ০৫৪৩ ঘণ্টা, জুলাই ২৮, ২০১৪

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache