ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ আষাঢ় ১৪২৬, ২০ জুন ২০১৯
bangla news

সোস্যাল ইসলামি ব্যাংকের চেয়ারম্যানের পদত্যাগ দাবি

703 |
আপডেট: ২০১৪-০৬-১০ ৫:৩২:০০ এএম
ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

অন্তঃকোন্দল প্রকাশ্য হয়ে গেছে বেসরকারি সোস্যাল ইসলামি ব্যাংকে। পর্ষদ সদস্যরা দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়েছেন। এক পক্ষ আরেক পক্ষকে ঘায়েল করতে নানা কৌশল হাতে নিচ্ছেন। এরই অংশ হিসেবে ব্যানার টানিয়ে পদত্যাগ দাবি করা হয়েছে ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান মেজর (অব.) ডা. মো. রেজাউল হক এর।

ঢাকা: অন্তঃকোন্দল প্রকাশ্য হয়ে গেছে বেসরকারি সোস্যাল ইসলামি ব্যাংকে। পর্ষদ সদস্যরা দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়েছেন। এক পক্ষ আরেক পক্ষকে ঘায়েল করতে নানা কৌশল হাতে নিচ্ছেন। এরই অংশ হিসেবে ব্যানার টানিয়ে পদত্যাগ দাবি করা হয়েছে ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান মেজর (অব.) ডা. মো. রেজাউল হক এর।

সূত্র জানিয়েছে, সম্প্রতি ব্যাংকের সাধারণ বিনিয়োগকারিদের ব্যানারে রাজধানীর মতিঝিলসহ বিভিন্ন এলাকায় এসব ব্যানার টানানো হয়েছে। মূলত সোসাল ইসলামি ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের অন্তঃকোন্দল স্পষ্ট হলো এই ব্যানারের মাধ্যমে।

সূত্র বলছে, সাধারণ বিনিয়োগকারিদের ব্যানারে এসব ব্যানার টাঙানো হয়েছে। ব্যানারের লেখায়, রেজাউল হককে দুর্নীতিগ্রস্ত বলেও উল্লেখ করা হয়েছে। 

সূত্র জানিয়েছে, রেজাউল হক ২০১৩ সালে সোস্যাল ইসলামি ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। ওই বছরের জুন মাসে তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

তার পর্ষদে রয়েছেন- মো. সায়েদুর রহমান, মোহাম্মদ আজম, আবদুল আউয়াল পাটোয়ারি, আনিসুল হক, নাসিরউদ্দিন, শেখ মোহাম্মদ রাব্বান, জব্বার মোল্লা, আবদুর রহমান, আবদুল মহিত ও পদাধিকার বলে ব্যবস্থাপনা পরিচালক শফিকুর রহমান। এর মধ্যে আনিসুল হক আগের মেয়াদে চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

সূত্র বলছে, পর্ষদ সদস্যরা অন্তঃদ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েছেন। তারাই এক পক্ষ আরেক পক্ষকে ঘায়েল করতে এই কৌশল করে ব্যানারে বলছেন, ৮৫ হাজার বিনিয়োগকারি চেয়ারম্যানের পদত্যাগ চায়। চেয়ারম্যান দুর্নীতিগ্রস্ত বলেও এতে লেখা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গত মে মাসের শেষ দিন ব্যাংকটির বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সূত্র বলছে, বিরোধ থাকার কারণে ব্যাংকটির পর্ষদ সভাতেও যেকোন সময় অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে পারে। সম্প্রতি বেসরকারি খাতের মার্কেন্টাইল ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সভা অন্তঃকোন্দলে ভেস্তে যায়। এমনকি পর্ষদ সভায় শক্তি বাড়াতে দুই পক্ষ বহিরাগতদের নিয়ে আসে।

ব্যাংকের একজন পরিচালক নাম প্রকাশ না করার শর্তে বাংলানিউজকে বলেন, যে ব্যানার টানানো হয়েছে সেটি আমাদের জন্য খুবই বিব্রতকর। এর মাধ্যমে আমাদের ভিতরে যে দ্বন্দ্ব রয়েছে তা প্রকাশ্য হয়ে গেলো। 

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩০ ঘণ্টা, জুন ১০, ২০১৪

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2014-06-10 05:32:00