ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

ফুটবল

কোরবানির ঈদ আমার বেশি ভালো লাগে: মান্নাফ রাব্বি

আবীর রহমান, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭১৭ ঘণ্টা, জুলাই ৯, ২০২২
কোরবানির ঈদ আমার বেশি ভালো লাগে: মান্নাফ রাব্বি

এবারের প্রিমিয়ার লিগের প্রথম পর্বে খুব একটা ভালো সময় কাটেনি শেখ রাসেলের। তবে দ্বিতীয় দ্বিতীয় পর্বে ঘুরে দাঁড়িয়েছে তারা।

রাসেলের জার্সিতে তিন ম্যাচে টানা গোল পেয়েছেন মান্নাফ রাব্বি। বিদেশি ফুটবলারদের সাফল্যের ভিড়ে দেশিয় ফুটবলাররা নিজেদের চেনাচ্ছেন নতুন ভাবে। আগামীকাল পবিত্র ঈদ-উল-আযহা। এবার পরিবারের সঙ্গে ঈদ উদযাপন করার সুযোগ মিলেছে রাব্বির। ঈদের আগে বাংলানিউজকে জানালেন তার ঈদ ভাবনার কথা। জানালেন ফুটবল নিয়েও নানান বিষয়।
 

বাংলানিউজ: কুরবানির ঈদ চলে আসলো। আগামীকাল ঈদ। গরু কি কিনেছেন?

মান্নাফ রাব্বি: হ্যাঁ গরু কেনা হয়ে গেছে। ক্যাম্পে থাকার কারণে নিজে গিয়ে গরু কিনতে পারিনি।

বাংলানিউজ: এবার কয়টা গরু কেনা হয়েছে?

মান্নাফ রাব্বি: এবার একটা গরু একটা ছাগল কেনা হয়েছে। বাবা গরু-ছাগল কিনে রেখেছেন।

বাংলানিউজ: কোন ঈদটা আপনার বেশি ভালো লাগে?

মান্নাফ রাব্বি: কোরবানির ঈদটাই আমার বেশি ভালো লাগে। এবারের ঈদে ছুটি কম। ঈদের পরের দিনই ক্যাম্পে যোগ দিতে হবে। আরও বেশি ছুটি পেলে ভালো লাগতো। শেষ দুই ঈদ তো ক্যাম্পেই করতে হয়েছে। এবার তো তাও পরিবারের সঙ্গে একদিন কাটানোর সুযোগ হচ্ছে।

বাংলানিউজ: পরিবারের সঙ্গে দীর্ঘ সময় পর ঈদ করতে যাচ্ছেন। এই ঈদ নিয়ে আপনার কোনও পরিকল্পনা রয়েছে?

মান্নাফ রাব্বি: আসলে ইচ্ছা থাকলেও অনেক কিছু করা সম্ভব না। কারণ ছুটি মাত্র একদিনের। যেহেতু ঈদের পরের দিনেই ক্যাম্পে যোগ দিতে হচ্ছে তেমন কোনও বাড়তি পরিকল্পনা নেই। গরু-ছাগল কোরবানি করে সব কিছু শেষ করতেই দিন শেষ হয়ে যাবে।

বাংলানিউজ: গরু যেহেতু নিজে কিনতে পারেননি। কোরবানির সময় কি নিজে গরু কাটার কাজে সাহায্য করেন?

মান্নাফ রাব্বি: হ্যাঁ আমি আমার বাবা, বাসার সবাই মোটামুটি একসাথেই আনন্দ নিয়ে কাজ করি।

বাংলানিউজ: ঈদের কোন বিষয়টা আপনার কাছে খুব স্পেশাল?

মান্নাফ রাব্বি: ঈদে মায়ের হাতের খাবার আমার কাছে খুব স্পেশাল। পরিবারের সঙ্গে ঈদ করতে না পারলে মায়ের হাতের রান্না খুব মিস করি।

বাংলানিউজ: ঈদের কথা শোনা হলও। এবার ফুটবল নিয়ে কিছু প্রশ্ন। বিদেশিদের পাশাপাশি আপনি বেশ ভালো পারফরম্যান্স করছেন। চমৎকার গোল করছেন। কেমন লাগছে?

মান্নাফ রাব্বি: এবারের লিগে শুরু থেকেই ভালো করার চেষ্টা ছিল তবে প্রথম পর্বে আমরা ভালো করতে পারছিলাম না। আমরা চেষ্টা করছিলাম। কিন্তু হয়ে উঠছিল না। বিদেশি প্লেয়ারও আমাদের তেমন সাপোর্ট দিতে পারছিলেন না। তবে দ্বিতীয় পর্বে আলহামদুলিল্লাহ আমরা ঘুরে দাঁড়িয়েছি। ভালো করার চেষ্টা করছি। এক্ষেত্রে দলের অফিসিয়ালদের আমি কৃতিত্ব দিতে চাই।

বাংলানিউজ: দ্বিতীয় পর্বে দল ঘুরে দাঁড়ানোর পেছনে অফিশিয়ালদের কৃতিত্বের কথা বলছেন। তাদের ভূমিকা যদি বলতেন?

মান্নাফ রাব্বি: আমি আসলে এমন ক্লাব কর্তৃপক্ষ আগে দেখিনি। প্রথম পর্বে যখন দল ভালো খেলছিল না, ক্লাব প্রেসিডেন্ট সায়েম সোবহান আনভীর আমাদের ডেকে সকলকে লাঞ্চ করিয়েছেন। সকলকে আর্থিক পুরস্কার দিয়েছেন মোটিভেশনের জন্য। নিজে আমাদের অনুপ্রেরণা দিয়েছেন। আমি আসলে এমন কিছু বাংলাদেশের কোনও ক্লাবে দেখিনি যে দল খারাপ করার পর দলকে ডেকে ক্লাব প্রেসিডেন্ট এভাবে অনুপ্রেরণা দেন। তার অনুপ্রেরণার পরই দল ঘুরে দাঁড়িয়েছে।  

বাংলানিউজ: এবারের লিগে আপনাদের লক্ষ্য কি?

মান্নাফ রাব্বি: এখনো আমাদের সামনে সুযোগ আছে, ভালো অবস্থানে থেকে লিগ শেষ করার। বর্তমানে আমরা আট নম্বর অবস্থানে আছি। আমরা আট নম্বরে থাকার মত দল না। আমরা আরও ভালো অবস্থানে থাকার মত দল। শেষ ম্যাচ গুলো জিততে পারলে আমরা উপরের দিকে থেকেই লিগ শেষ করতে পারবো। এটাই এই মৌসুমে আমাদের লক্ষ্য। আগামী মৌসুমে ইনশাল্লাহ আমরা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য লড়াই করবো।

বাংলানিউজ: এবারের মৌসুমে নিজের পারফরম্যান্স নিয়ে আপনি কতটা সন্তুষ্ট?

মান্নাফ রাব্বি: এখনও আর চারটা ম্যাচ বাকি আছে। এখনই আসলে নিজের পারফম্যান্সে সন্তুষ্ট হওয়ার সময় আসেনি। আগামী চার ম্যাচেই আমি গোল করতে চাই। চার ম্যাচে ভালো করতে পারলে নিজের পারফরম্যান্স নিয়ে কিছু বলতে পারবো।

বাংলানিউজ: এবারের মৌসুমে বড় তিন দলের বিপক্ষে গোল করেছেন। শেখ জামাল, বসুন্ধরা কিংস এবং বারিধারার বিপক্ষে। কোন গোলটিকে এগিয়ে রাখবেন?

মান্নাফ রাব্বি: আনিসুর রহমান জিকোর বিপক্ষে করা গোলটিই আমি এগিয়ে রাখবো। জিকো দেশের অন্যতম সেরা একজন গোলরক্ষক। তার বিপক্ষে করা গোলটিই আমি এগিয়ে রাখবো। মজার বিষয়ে হচ্ছে ম্যাচের আগের দিন জিকোর সঙ্গে আমার দেখা হয়েছিল। আমি বলেছিলাম কাল কিন্তু আমি একটি গোল করবোই। পরে ম্যাচে গোল করার পর জিকোর সঙ্গে কথা না হলেও চোখের ইশারায় ভাব বিনিময় হয়েছিল (হাসি…)।

বাংলানিউজ: ধন্যবাদ রাব্বি। ভালো থাকবেন। ঈদের শুভেচ্ছা। পরিবারের সঙ্গে সময়টা ভালো কাটুক।

মান্নাফ রাব্বি: আপনাকেও ধন্যবাদ। সকলকে ঈদের শুভেচ্ছা।

বাংলাদেশ সময়: ১৭১৭ ঘণ্টা, জুলাই ০৯, ২০২২
এআর
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa