ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ কার্তিক ১৪২৮, ২১ অক্টোবর ২০২১, ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ফুটবল

৫ বছর পর ব্রাজিল দলে হাল্ক

স্পোর্টস ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৩২ ঘণ্টা, আগস্ট ২৮, ২০২১
৫ বছর পর ব্রাজিল দলে হাল্ক

আর ক’দিন পরেই ক্লাব বিরতিতে মাঠে গড়াবে আন্তর্জাতিক ম্যাচগুলো। কিন্তু দেশের হয়ে এবার খেলতে পারবেন না অনেকেই।

ইংল্যান্ড সরকারের লাল তালিকাভূক্ত দেশগুলোতে খেলোয়াড় দেবে না ক্লাবগুলো। লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলও এ নিয়ে পড়েছে বিপাকে। ফুটবলারদের না পাওয়ার শঙ্কায় তাই পূর্বঘোষিত ২৫ সদস্যের স্কোয়াডে আরো ৯ জন নতুন সদস্য যোগ করলেন দেশটির কোচ তিতে।

করোনা ভাইরাস মহামারির কারণে দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলো ইংল্যান্ড সরকারের লাল তালিকাভূক্ত দেশে পড়েছে। যে কারণে বিরতি থেকে ফিরে সেসব দেশের ফুটবলারদের দশ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। ফলে অনেকগুলো ম্যাচ মিস হবে। আর তাই ফুটবলারদের ছাড়বে না ক্লাবগুলা। একইভাবে স্প্যানিশ ক্লাবগুলোও ফুটবলার ছাড়বে না। এতে সম্মতি জানিয়েছে দেশটির ফুটবল নিয়ন্ত্রক সংস্থা লা লিগা।

কাতার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বকে সামনে রেখে কয়েকদিন আগে প্রকাশ করা ব্রাজিলের ২৫ সদস্যের স্কোয়াডে থাকা ফুটবলারদের মধ্যে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ থেকে আলিসন, এদারসন, গাব্রিয়েল হেসুস, ফাবিনিয়ো, ফ্রেদ, দিয়াগো সিলভা, রিচার্লিসন ও রাফিনিয়ো খেলতে পারবেন না দেশের হয়ে। অপরদিকে স্প্যানিশ লিগ থেকে ভিনিসিয়াস জুনিয়র, এদার মিলিতাও ও ক্যাসেমিরোকেও দেবে না রিয়াল মাদ্রিদ। যে কারণে পূর্বঘোষিত স্কোয়াডের বাইরে দলে আরো ৯ জন নতুন সদস্য যোগ করলেন তিতে।

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে আগামী ২ সেপ্টেম্বর চিলির বিপক্ষে মাঠে নামবে ব্রাজিল। এর তিন দিন পর দেখা হবে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনার সঙ্গে। এরপর আগামী ৯ সেপ্টেম্বর ব্রাজিলিয়ানরা লড়বে পেরুর বিপক্ষে। ম্যাচগুলোকে সামনে রেখে স্কোয়াডে যোগ করা ৯ ফুটবলারের মধ্যে নতুন মুখ গোলরক্ষক এভেরসন। এছাড়া ডাক পেয়েছেন দুই ডিফেন্ডার সান্তোস ও মিরান্দা, তিন মিডফিল্ডার এদেনিলসন, মাতেউস নুনেস ও জের্সন এবং তিন ফরোয়ার্ড হাল্ক, ভিনিসিয়াস জুনিয়র ও ম্যালকম। এরফলে ২০১৬ সালের পর আবারও জাতীয় দলে ডাক পেলেন হাল্ক।

ব্রাজিল স্কোয়াডে অতিরিক্ত ৯ খেলোয়াড়:

গোলকিপার : এভেরসন (আতলেতিকো মিনেইরো), সান্তোস (আতলেতিকো)।

ডিফেন্ডার: মিরান্দা (সাও পাওলো)।

মিডফিল্ডার: এদেনিলসন (ইন্টারনাসিওনাল), গারসন (মার্শেই), ম্যাথিয়াস নুনেস (স্পোর্টিং লিসবন)।

ফরোয়ার্ড: হাল্ক (আতলেতিকো মিনেইরো), মালকম (জেনিত) ও ভিনিসিয়ুস (রিয়াল মাদ্রিদ)।

২৫ জনের ব্রাজিলের প্রাথমিক দলে যারা ছিলেন
গোলকিপার: আলিসন (লিভারপুল), এদেরসন (ম্যান সিটি), ওয়েভারটন (পালমেইরাস)।

ডিফেন্ডার: দানি আলভেস (সাও পাওলো), দানিলো (জুভেন্টাস), আলেক্স সান্দ্রো (জুভেন্টাস), গিলের্মে আরানা (আতলেতিকো মিনেইরো), এদের মিলিতাও (রিয়াল মাদ্রিদ), লুকাস ভেরিসিমো (বেনফিকা), মারকিনিওস (পিএসজি), থিয়াগো সিলভা (চেলসি)।

মিডফিল্ডার: কাসেমিরো (রিয়াল মাদ্রিদ), ফাবিনিও (লিভারপুল), ফ্রেড (ম্যান ইউনাইটেড), ব্রুনো গিমারেস (লিওঁ), লুকাস পাকেতা (লিওঁ), ক্লদিনিও (জেনিত সেন্ট পিটার্সবার্গ)।

ফরোয়ার্ড: এভারটন রিবেইরো (ফ্লামেঙ্গো), নেইমার (পিএসজি), রিচার্লিসন (এভারটন), রাফিনিয়া (লিডস), মাতেউস কুনিয়া (হার্থা বার্লিন), রবার্তো ফিরমিনো (লিভারপুল), গাব্রিয়েল বারবোসা (ফ্লামেঙ্গো), গাব্রিয়েল হেসুস (ম্যান সিটি)।

বাংলাদেশ সময়: ১২৩৩ ঘণ্টা, আগস্ট ২৮, ২০২১
এমএমএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa