ঢাকা, রবিবার, ৮ কার্তিক ১৪২৮, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ফুটবল

মারাকানায় ভাঙবে মেসি-নেইমারের বন্ধুত্ব! 

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮০৬ ঘণ্টা, জুলাই ৯, ২০২১
মারাকানায় ভাঙবে মেসি-নেইমারের বন্ধুত্ব!  মেসি-নেইমার পুরনো বন্ধু/ছবি: সংগৃহীত

মেসি ও নেইমারের বন্ধুত্ব বেশ পুরনো। একসময় বার্সেলোনায় একে অন্যের সতীর্থ ছিলেন।

একসঙ্গে জিতেছেন বেশকিছু শিরোপা। পরে দুজনের পথ আলাদা হয়ে গেলেও বন্ধুত্বে এতটুকু মরচে ধরেনি। কিন্তু মাঠের লড়াইয়ের সময় সেই বন্ধুত্ব এক পাশে সরিয়ে রেখে শিরোপা জেতার দিকে সব নজর দিতে চান নেইমার জুনিয়র। এক্ষেত্রে কোনো ছাড় দিতে নারাজ ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড। এমনকি তাতে যদি বন্ধুত্ব ভেঙেও যায়, তাহলেও না।

মারাকানা স্টেডিয়ামে রোববার কোপা আমেরিকার ফাইনালে মুখোমুখি হবে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। বহুল প্রতীক্ষিত ম্যাচটি ঘিরে ফুটবলভক্তদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে তুমুল উন্মাদনা। এই ম্যাচের দিকে বাড়তি নজর থাকার কারণ অবশ্যই মেসি-নেইমার দ্বৈরথ। দুই ফুটবল মহাতারকা এই প্রথমবার কোনো বড় টুর্নামেন্টের ফাইনালে একে অন্যের মুখোমুখি হচ্ছেন। দুজনের বন্ধুত্ব যদিও এখন পর্যন্ত অমলিন। তবে নেইমার ইঙ্গিতে বলে দিলেন, মারাকানার ফাইনালেই দুজনের বন্ধুত্বে ফাটল ধরতে পারে।

আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ফাইনালকে সামনে রেখে সাংবাদিকদের উদ্দেশে নেইমার বলেন, ‘আমি সবসময় বলি, আমি যাদের খেলতে দেখেছি তাদের মধ্যে মেসিই সেরা এবং সে আমার ঘনিষ্ঠ বন্ধুও। কিন্তু আমরা এখন ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছি, অর্থাৎ আমরা এখন একে অন্যের প্রতিপক্ষ। আমি আমার প্রথম কোপা আমেরিকার শিরোপাটা জিততে চাই। মেসিও তার জাতীয় দলের হয়ে বহু বছর ধরে একটা শিরোপার সন্ধান করছে। ‘ 

ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড আরও বলেন, ‘যতবার আমরা (ব্রাজিল) টুর্নামেন্টে ছিলাম না, আমি মেসির জন্য গলা ফাটিয়েছি। ২০১৪ বিশ্বকাপে জার্মানির বিপক্ষে ফাইনালেও আমি তাকে সমর্থন করেছি। কিন্তু এখন দৃশ্যপটে হাজির ব্রাজিল, ফলে আমাদের বন্ধুত্ব এক পাশে সরিয়ে রাখতে হবে। একে অন্যের প্রতি শ্রদ্ধা অবশ্যই বহাল থাকবে। কিন্তু জিতবে তো একজনই। বন্ধুত্বের কথা ভুলে যাওয়া কঠিন, কিন্তু ভিডিও গেম খেলার সময় যেমন হয়- আপনি যেভাবেই হোক তাকে হারাতে চাইবেন। ফাইনালে এমন কিছুই হবে। ’

ব্রাজিল বর্তমান কোপা চ্যাম্পিয়ন। ঘরের মাঠে অনুষ্ঠিত ২০১৯ আসরের শিরোপা জেতে সেলেসাওরা। তবে ইনজুরির কারণে ওই আসরে খেলতে পারেননি নেইমার। অর্থাৎ, এখনও দেশের জার্সিতে বড় কোনো টুর্নামেন্টের শিরোপা জেতা হয়নি তার। ফলে মেসির মতো তিনিও আক্ষেপ ঘুচানোর অপেক্ষায় আছেন। এমনই যখন অবস্থা, ঠিক তখন ব্রাজিলেরই কিছু মানুষ কিনা আর্জেন্টিনার প্রতি প্রকাশ্যে সমর্থন জানাচ্ছে। বিষয়টা নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন পিএসজি তারকা।  

বাংলাদেশ সময়: ১৮০৬ ঘণ্টা, জুলাই ০৯, ২০২১
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa