ঢাকা, শুক্রবার, ৮ কার্তিক ১৪২৭, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ফুটবল

সুয়ারেস-বার্সা নাটকে কোম্যান ‘একমাত্র’ ভিলেন নন

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০
সুয়ারেস-বার্সা নাটকে কোম্যান ‘একমাত্র’ ভিলেন নন ছবি: সংগৃহীত

সদ্যই অশ্রুভেজা চোখে ক্যাম্প ন্যুকে বিদায় বলেছেন লুইস সুয়ারেস। আসলে তাকে একপ্রকার জোর করেই বের করে দেওয়া হয়েছে।

কিন্তু বিষয়টা কিছুতেই মানতে পারেননি লিওনেল মেসি। প্রিয় বন্ধু ও সতীর্থের বিদায় নিয়ে ক্ষোভও প্রকাশ করেছেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক।  

সুয়ারেসের এমন বিদায়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সমর্থকরাও। অনেকে এর পেছনে দায় দেখছেন নতুন কোচ রোনাল্ড কোম্যানের। কারণ দায়িত্ব নিয়েই এই ডাচ কোচ উরুগুইয়ান স্ট্রাইকারকে বাইরের দরজা দেখিয়ে দিয়েছিলেন। তার দলে যে সুয়ারেসের জায়গা হবে না তা মোটামুটি সরাসরিই জানিয়ে দিয়েছিলেন কাতালান জায়ান্টদের নতুন কোচ। এমনকি প্রাক-মৌসুম প্রস্তুতিমূলক কোনো ম্যাচেই সুয়ারেসকে দলে রাখেননি তিনি।

সমর্থকদের অভিযোগ, কোম্যানের ইচ্ছা পূরণের জন্যই চুক্তির মেয়াদ এক বছর বাকি থাকা সত্ত্বেও ৬ মিলিয়ন ইউরোয় অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের কাছে সুয়ারেসকে বেচে দিয়েছে বার্সা। এরইমধ্যে মাদ্রিদের ক্লাবটিতে পাড়িও জমিয়েছেন বার্সার ইতিহাসের অন্যতম সেরা এই স্ট্রাইকার। কিন্তু খোদ কোম্যানের দাবি, সুয়ারেসের বিদায়ের পেছনে মূল কারিগর তিনি একাই নন।

শনিবার (২৬ সেপ্টম্বর) ম্যাচ পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে হাজির হয়ে কোম্যান বলেন, ‘সব দেখে মনে হচ্ছে, এই নাটকের ভিলেন আমি একাই। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে সুয়ারেসের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া ছাড়াও একজন মানুষ ও খেলোয়াড় হিসেবে তার প্রতি আমার পূর্ণ শ্রদ্ধা আছে। আমি তাকে বলেছিলাম যে সে যদি (ক্যাম্প ন্যুয়ে) থেকে যায় তাহলে তার জন্য খেলা কঠিন হয়ে যাবে। কিন্তু যদি থেকে যেত তাহলে সে আমাদের গ্রুপের একজন হতো। ’

সুয়ারেস ইস্যুতে নিজের অবস্থান ব্যাখ্যা করতে কোম্যান আরও বলেন, ‘আমি এখানে আসার আগেই ক্লাব কিছু সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছিল এবং আমি শুধু তাতে সমর্থন দিয়েছি মাত্র। এটা শুধু আমার একার সিদ্ধান্ত ছিল না। একজন বন্ধু ক্লাব ছাড়ায় মেসির মন খারাপ হওয়া স্বাভাবিক। ’ 

এরপর মেসির রাগ কমানোর জন্যই হয়তো কিছু প্রশংসাবাক্যও বেরিয়ে আসে কোম্যানের মুখ থেকে। তিনি বলেন, ‘মেসি অনুশীলন এবং ম্যাচে বাকিদের জন্য উদাহরণ। তাকে কখনোই মৌসুমের জন্য অপ্রস্তুত দেখিনি। সে দারুণ কমিটমেন্ট দেখিয়েছে। তাকে নিয়ে আমার মনে কোনো দ্বিধা নেই। ’

এদিকে সুয়ারেস চলে গেলেও তার বিকল্প খুঁজে পায়নি বার্সা। তবে নতুন কারো খোঁজ যে চলছে তা স্বীকার করে নিলেন কোম্যান, ‘দলের উন্নতির জন্য নতুন খেলোয়াড় খুঁজে বের করি আমরা। হতে পারে যে খেলোয়াড়দের আমরা আনতে চাই তারা আসতে পারছে না, কারণ ক্লাবের আর্থিক অবস্থা তেমন ভালো নয়। কিন্তু আমি এটা মেনে নিচ্ছি এবং দায়িত্ব নেওয়ার আগে থেকেই আমি এটা জানতাম। আমাদের চলে এমনিতেই বেশ কয়েকজন টপ-কোয়ালিটির খেলোয়াড় আছে। যদি দল এমনই থাকে, আমাদের সেটাই মেনে নিতে হবে। ’

কথায় কথায় বায়ার্ন মিউনিখের সঙ্গে ধারের মেয়াদ শেষে ফিরে আসা ফিলিপ্পে কুতিনহোকে নিয়ে আশার কথা শোনালেন কোম্যান। ব্রাজিলিয়ান অ্যাটাকিং মিডফিল্ডারকে নিয়ে নিজের পরিকল্পনা নিয়ে তিনি বলেন, ‘কুতিনহো ১০ নম্বর পজিশন কিংবা লেফট উইংয়ে ঠিকঠাক খেলতে সক্ষম। সে এমন একজন খেলোয়াড় যে দলকে রক্ষণাত্মকভাবে সহায়তা করতে পারে। সে ভালো শট নিতে পারে এবং ফাঁকা জায়গাতেও সে দারুণ। আমি তাকে পছন্দ করি এবং আশা করি এই মৌসুমে বার্সায় সে সফল হবে। ’

রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ সময় দিনগত রাত ১টায় ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে লা লিগার নতুন মৌসুম শুরু হবে বার্সার।  

বাংলাদেশ সময়: ১৯১৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa