ঢাকা, রবিবার, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৬ মে ২০২৪, ১৭ জিলকদ ১৪৪৫

ফুটবল

‘মেসি অর্কেস্ট্রার বস, তার পায়ে বল গেলেই সংগীত শুরু হয়’

স্পোর্টস ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৫৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৮, ২০২২
‘মেসি অর্কেস্ট্রার বস, তার পায়ে বল গেলেই সংগীত শুরু হয়’

পুরো ফুটবল বিশ্বের নজর আজ লুসাইল স্টেডিয়ামের ওপর। কয়েক ঘণ্টা পর এখানেই ঐতিহাসিক ফাইনালে মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্স।

তবে এই ম্যাচটির গুরুত্ব বেড়ে গেছে অন্য কারণে। কারণ ইতিহাসের অন্যতম সেরা ফুটবলার লিওনেল মেসি শেষবারের মতো বিশ্বকাপ জেতার লড়াইয়ে নামবেন আজ।  

বিশ্বের একটা প্রজন্ম বেড়ে উঠেছে মেসি-জাদু দেখে। তারা অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় আছে- বিশ্বসেরার শিরোপা উঁচিয়ে ধরবেন 'খুদে জাদুকর'। এত দীর্ঘ সময় ধরে তিনি যে নিজেকে শীর্ষ পর্যায়ে সেরাদের কাতারে রেখেছেন তা দেখে মুগ্ধ সব ফুটবলপ্রেমী। শুধু সমর্থক কেন, সাবেক ও বর্তমান ফুটবলার থেকে শুরু করে স্বনামধন্য অনেক কোচ ও ক্রীড়া সংগঠকও তার গুণমুগ্ধ। আর্সেনালের সাবেক কোচ আর্সেন ওয়েঙ্গারও আছেন তাদের দলে।  

ওয়েঙ্গার নিজে ফ্রান্সের সাবেক ফুটবলার। কিন্তু কোচ হিসেবেই তার পরিচিতি বেশি। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসে অন্যতম সেরা কোচ বলা হয় তাকে। বর্তমানে ফিফার শীর্ষ কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত ওয়েঙ্গারের মতে, মেসি হচ্ছেন সার্কাসের সেই সদস্য যিনি সিংহকে পোষ মানিয়ে নানান কসরত দেখান। মেসিকে তিনি ফুটবলের অর্কেস্ট্রার বস ভাবেন, যার পায়ে বল গেলেই সংগীত শুরু হয়।  

বার্তা সংস্থা এএফপিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ওয়েঙ্গার বলেন, "আমি এখানে (কাতারে) তাকে তিনজন খেলোয়াড়ের মাঝে দেখলাম এবং আমার মনে হলো সে হচ্ছে সেই ব্যক্তি যার কাছে সিংহ পোষ মানে। সে বলকে বলে 'তুমি আমার আমার শোনো, বন্ধু; আমিই এখানে বস। ' সবমিলিয়ে আমি বলবো তার অবিশ্বাস্য কোয়ালিটির কথা, ড্রিবলিং- সে জানে কখন বল পাস করতে হবে এবং ড্রিবলিংয়ে যারা এত দক্ষ তারা কিছুটা নতুনত্ব আনে। '

বিশ্বকাপের আগেও মেসির ফর্ম নিয়ে সংশয় ছিল, কিন্তু আসর শুরুর পর থেকে ঠিকই পুরনোরূপে ফিরেছেন মেসি। এ ব্যাপারটা দেখে বিস্মিত ওয়েঙ্গারও। এজন্য মেসিকে অর্কেস্ট্রার বস হিসেবে অভিহিত করলেন বর্ষীয়ান এই কোচ। তার মতে, মেসি সংগীত শুরু করলেই আর্জেন্টিনার সব আক্রমণ শুরু হয়। তিবি বলেন, 'মেসি হচ্ছে অর্কেস্ট্রার বস এবং বল তার পায়ে মানেই সংগীতের শুরু। আমি খুবই অবাক হয়েছি এটা দেখে যে, সে কীভাবে এই আসরে একদম ঠিক সময়ে নিজের পুরনো শারীরিক সক্ষমতাকে ফিরে পেয়েছে। '

মেসির ভূয়সী প্রশংসা করলেও কিলিয়ান এমবাপ্পেকে নিয়ে সতর্ক করে দিয়েছেন ওয়াঙ্গার। তার মতে, আর্জেন্টিনার শিরোপা স্বপ্নে সবচেয়ে বড় বাধা পিএসজির এই বিশ্বকাপজয়ী ফরোয়ার্ড। বিশেষ তার গতি, ফিটনেস ও বুদ্ধিমত্তার কারণে ফাইনালে সাফল্য পেতে পারে ফ্রান্স, এমনটাই অভিমত ফিফার হেড অব গ্লোবাল ফুটবল ডেভেলপমন্টের প্রধান হিসেবে কর্মরত ওয়েঙ্গার।  

আজ রোববার রাতের ফাইনালে ক্যারিয়ারের প্রথম বিশ্বকাপ জেতার জন্য মাঠে নামবেন মেসি। আর্জেন্টিনার সামনে অবশ্য এটা তৃতীয় শিরোপা জেতার লড়াই। অন্যদিকে ফ্রান্স জিতলেও তৃতীয় শিরোপার স্বাদ পাবে। তবে ফরাসিদের সামনে ব্রাজিলের (১৯৫৮, ১৯৬২) পর দ্বিতীয় দল হিসেবে টানা দুইবার বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সুযোগ অপেক্ষা করছে। আর ফ্রান্স যদি তা করতে পারে, তাহলে এমবাপ্পে মাত্র ২৩ বছর বয়সেই দুইবার বিশ্বকাপ জেতার কীর্তি গড়বেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৮, ২০২২
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।