ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯, ১১ আগস্ট ২০২২, ১২ মহররম ১৪৪৪

ফিচার

১৮ বছরে পা রাখলো বাতিঘর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫১০ ঘণ্টা, জুন ১৭, ২০২২
১৮ বছরে পা রাখলো বাতিঘর

ঢাকা: বইয়ের সুপারস্টোর হিসেবে দেশজুড়ে খ্যাত ‘বাতিঘর’ পা রাখলো ১৮ বছরে। ২০০৫ সালের ১৭ জুন ছোট পরিসরে চট্টগ্রামে বাতিঘরের যে যাত্রা শুরু হয়েছিল, বই পড়ুয়াদের ভালোবাসায় এখন তা বিস্ততৃ চট্টগ্রাম, ঢাকা, সিলেট ও বাংলাবাজারে।

১৮ বছরে পদার্পণ উপলক্ষে ১৭ ও ১৮ জুন (শুক্র ও শনিবার) চট্টগ্রাম, ঢাকা ও সিলেট বাতিঘর পাঠক, লেখক ও শুভানুধ্যায়ীদের স্বাগত জানাবে।

এই দুই দিন বিকেলে থাকবে মুক্ত আলাপ ও গান। উৎসবে সকলকে সবান্ধব আমন্ত্রণ জানিয়েছে বাতিঘর পরিবার। এছাড়া সকাল ১১টা থেকে রাত ৯টার মধ্যে যেকোনো সময় বাতিঘরে দর্শকদের উপস্থিতি তাদের অনুপ্রাণিত করবে বলেও জানানো হয়েছে।

একই সঙ্গে বর্ষপূর্তি উপলক্ষে বাতিঘরের পাঠকেরাও শুভেচ্ছা আর ভালোবাসা জানিয়েছে তাদের প্রিয় প্রতিষ্ঠানটির প্রতি।

নিত্য-নতুন দেশি বিদেশি মানসম্পন্ন বইয়ে সমৃদ্ধ বাতিঘরের প্রতি পাঠকের ভালোবাসা নতুন কিছু নয়। তবে বর্ষপূর্তি উপলক্ষে বাতিঘরের প্রতি পাঠকের আলাদা ভালোবাসা চোখে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। এদিন অনেকেই ফেসবুকে বাতিঘরকে জানিয়েছেন শুভেচ্ছা।

২০০৫ সালের ১৭ জুন চট্টগ্রাম শহরের চেরাগি পাহাড় মোড়ে ছোট্ট একটা ঘরে বাতিঘর যাত্রা শুরু করে। বর্তমানে চট্টগ্রাম, ঢাকা ও সিলেটে বড় পরিসরে এবং ঢাকার শাহবাগ ও বাংলাবাজারে ছোট পরিসরে বাতিঘরের শাখা আছে। রাজশাহী শহরের প্রাণকেন্দ্র ঘোড়ামারায় বড় পরিসরে বাতিঘর প্রতিষ্ঠার কাজ চলছে। দেশে বিদেশে যেকোনো জায়গায় বই পাঠানোর জন্য যাত্রা শুরু করেছে অনলাইন বাতিঘর—baatighar.com

২০০৯ সালে প্রকাশনা সংস্থা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে বাতিঘর। ইতোমধ্যে বাতিঘর প্রকাশ করেছে প্রায় ৩০০টি বই।

বাংলাদেশ সময়: ১৫০৮ ঘণ্টা, জুন ১৭, ২০২২
এইচএমএস/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa