ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ আশ্বিন ১৪২৮, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ সফর ১৪৪৩

ফিচার

রাধারমণ সংস্কৃতি চর্চাকেন্দ্রের লোকগানের আসর অনুষ্ঠিত

ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০২১৮ ঘণ্টা, জুলাই ২৬, ২০২১
রাধারমণ সংস্কৃতি চর্চাকেন্দ্রের লোকগানের আসর অনুষ্ঠিত

ঢাকা: লোকগানের সঙ্গে জড়িয়ে আছে বাঙালির শেকড়। প্রযুক্তির এই সময়েও লোকগান বাঙালিকে নিজস্ব সংস্কৃতির প্রতি দায়বদ্ধ হয়ে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে শেখায়।

পাশ্চাত্য সংস্কৃতি আর উন্মুক্ত অপসংস্কৃতির দাপটে দেশীয় সংস্কৃতি যখন কোনঠাসা তখন অস্তিত্বের এই সংস্কৃতি রক্ষায় এগিয়ে এসেছে রাধারমণ সংস্কৃতি চর্চাকেন্দ্র। পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়মিত ধারাবাহিক আয়োজনের অংশ হিসেবে সংগঠনটি এবার আয়োজন করে লোকগানের।

রোববার (২৫ জুলাই) রাতে সংগঠনটির সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক পেইজে অনুষ্ঠিত হয় ভার্চ্যুয়াল এই সুরের আসর। নিয়মিত আয়োজনের এবারের আসর সাজানো ছিল গিরীন চক্রবর্তীর গান দিয়ে।

আসরে সঙ্গীত পরিবেশন করেন গিরীণ চক্রবর্তীর কন্যা  চন্দা চট্টোপাধ্যায় চক্রবর্তী ও  নাতনী শতভিষা চট্টোপাধ্যায়। এছাড়া আয়োজনে পল্লীগানের নানান দিক নিয়ে আলোচনা করেন সংগীতজ্ঞ মুত্তালিব বিশস। আয়োজন সঞ্চালনা করেন ড. বিশ্বজিৎ রায়।

এই আয়োজনে ‘কিশোরগঞ্জে মাসির বাড়ি’, ‘শিয়ালদহ গোয়ালন্দ’, ‘তুল তুল পায়ে’, ‘আমারেনি পরে তোমার মনে’, ‘আল্লা ম্যাঘ দে পানি দে’, ‘নাও ছাড়িয়া দে’, ‘ধরিতে না পারি গো’, ‘বাড়ি ছিল পদ্মানদীর পাড়ে’, ‘চ্যাঙ মানুষ ও ধিক ধিক আমার এ জীবনে’ গানের কথা ও সুরে আসরকে মোহনীয় করে তোলেন শিল্পীরা।

বাংলাদেশ সময়: ০২১৭ ঘণ্টা, জুলাই ২৬, ২০২১
এইচএমএস/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa