bangla news

দমকা আগুনের হলকায় স্বপ্ন পুড়ে খাক

ফিচার ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৩-১১ ৫:২৩:৩০ পিএম
বস্তিতে আগুন। ছবি: জিএম মুজিবুর রহমান

বস্তিতে আগুন। ছবি: জিএম মুজিবুর রহমান

ঢাকা: নিম্নআয়ের মানুষের আবাস বস্তি। সেখানে সাধ্যের মধ্যে ছোট ছোট ঘর বানিয়েই সুখের নীড় বাঁধেন সমাজের ন্যূনতম চাওয়া-পাওয়ার মানুষগুলো।

তাদের সেই স্বপ্ন মুহুর্তের মধ্যে কেড়ে নিয়েছে বুধবার (১১ মার্চ) সকাল নয়টা ৪৫ মিনিটে লাগা ভয়াবহ আগুন।মুহুর্তেই পুড়ে ছাই হয়ে গেছে রাজধানীর মিরপুরের রূপনগর বস্তির কাঁচা টিনের ঘরগুলো ও ঘরে থাকা সরঞ্জাম।আগুনে পুড়ছে বস্তি। ছবি: জিএম মুজিবুরখবর পাওয়ার পর পর্যায়ক্রমে ফায়ার সার্ভিস থেকে ২৫টি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করে। পরে প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টার চেষ্টায় পুরোপুরিভাবে বস্তির আগুন নেভান ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।আগুনে পুড়ছে বস্তির ঘর। ছবি: জিএম মুজিবুরফায়ার সার্ভিসের পরিচালক অপারেশন্স ও মেইনটেনেন্স লে. ক. জিল্লুর রহমান বলেন, এ আগুনে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। আগুনের কারণ ও ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণের জন্য ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।আগুনে পুড়ছে বস্তির ঘর। ছবি: জিএম মুজিবুরআগুনে পুড়ছে বস্তির আধা-কাঁচা ঘর। ছবি: জিএম মুজিবুরখবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে এসে আগুন নেভাচ্ছেন। ছবি: জিএম মুজিবুরবস্তিতে আগুন নেভাতে আসা সময় শতাধিক মানুষ ফায়ার সার্ভিসের গাড়িটিতে লক্ষ্য করে বৃষ্টির মতো ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এতে গাড়িটির বেশ কিছু অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়।ছবি: জিএম মুজিবুর ফায়ার সার্ভিসের ইউনিটের দুই কর্মীরা আগুন নেভানোর কাজের ব্যস্ত।..আগুনের খবর পেয়ে তড়িঘড়ি করে ঘরের আসবাবপত্র রক্ষা করছেন এক দম্পতি।ছবি: জিএম মুজিবুর

কান্নারত অবস্থায় মোবাইল ফোনে আগুন লাগার খবর দিচ্ছেন এক নারী।... স্কুল শেষে বাসায় এসে দেখে আগুনে সব পুড়ে শেষ। পরে মাথায় হাত দিয়ে মায়ের সঙ্গে রাস্তার ধারে বসে আছে এক শিশু।.আগুনে সব পুড়েছে তাই মন খারাপ করে মায়ের সঙ্গে পাশে বসে আছে দুই শিশু। ছবি: জিএম মুজিবুরখোলা আকাশের নিচে ঘরে আসবাবপত্র রেখে বসে আছেন বস্তির ক্ষতিগ্রস্তরা।ছবি: জিএম মুজিবুরবস্তির ঘরগুলো আগুনে পুড়ে ছাই। পরে আছে শুধু ঘরের আধা পোড়া টিনগুলো।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২৩ ঘণ্টা, মার্চ ১১, ২০২০
এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   আগুন
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-03-11 17:23:30