bangla news

ইউএফও নয়, চীনের হেলিকপ্টার!

ফিচার ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-০১ ৯:৫৪:৫৩ এএম
 চীনা হেলিকপ্টারের মডেল। ছবি: সংগৃহীত

চীনা হেলিকপ্টারের মডেল। ছবি: সংগৃহীত

অত্যাধুনিক সমরাস্ত্র তৈরিতে অনেক এগিয়েছে চীন। নিত্যনতুন যুদ্ধ-সরঞ্জাম তৈরি করে তাক লাগাতে তাদের জুড়ি নেই। কিন্তু, এবার একটি হেলিকপ্টারের ডিজাইন ছাড়িয়ে গেছে আগের সবকিছুকে। 

সম্প্রতি ইউএফও (কল্পিত এলিয়েন উড়োযান) আকৃতির এয়ারক্র্যাফটের প্রটোটাইপ তৈরি করেছে চীন। এর নাম দেওয়া হয়েছে ‘সুপার গ্রেট হোয়াইট শার্ক’। 

অত্যাধুনিক এই হেলিকপ্টার এমনভাবে ডিজাইন করা হয়েছে যা ভবিষ্যতে ডিজিটাল তথ্যযুদ্ধে ব্যবহারের উপযোগী।

সম্প্রতি প্রকাশ পেয়েছে এয়ারক্র্যাফটটির প্রাথমিক মডেলের একটি ছবি। আমেরিকান এএইচ-৬৪ অ্যাপাচে ও সিএইচ-৫৩ সি স্ট্যালিয়ন, রাশিয়ান কেএ-৫২ ও এমআই-২৬ হেলিকপ্টারের ডিজাইনের মিশ্রণ রয়েছে নতুন এই এয়ারক্র্যাফটে। 

এর পাখা অনেকটা স্টিলথ হেলিকপ্টার ইউএস বি-২ বোম্বারের মতো। এটি ৭ দশমিক ৬ মিটার অর্থাৎ প্রায় ২৫ ফুট লম্বা।  উচ্চতায় ৩ মিটার অর্থাৎ প্রায় ১০ ফুট। এটি একসঙ্গে দু’জন ক্রু বহনে সক্ষম। 

হেলিকপ্টারের বাইরের কাভার এর মোটর ও ইঞ্জিন ঢেকে রাখে। এতে শত্রুপক্ষ সহজেই এর অবস্থান নির্ণয় করতে পারবে না। এমনকি ধরা পড়বে না রাডারেও। 

সম্প্রতি তিয়ানজিনে চীনা হেলিকপ্টার এক্সপজিশনে এয়ারক্র্যাফটের প্রটোটাইপটি প্রদর্শন করা হয়েছে। তবে, এখনো এর ফ্লাইট টেস্ট করা হয়নি।

অবশ্য ‘সুপার গ্রেট হোয়াইট শার্ক’ ইউএফও আকৃতির প্রথম হেলিকপ্টার নয়। এর আগে ১৯৫০ এর দিকে কানাডিয়ান কোম্পানি এ.ভি. রো এয়ারক্র্যাফট একই ধরনের দেখতে একটি হেলিকপ্টারের ডিজাইন করে। যা পরে বাস্তবেই তৈরি ও ফ্লাইট টেস্ট করে মার্কিন সেনাবাহিনী। 
সেই টেস্টে ভিজি-৯ অভ্রকার মাটি থেকে মাত্র তিন ফুট উপরে উঠেই অস্থিতিশীল হয়ে যায়।

তবে, ১৯৬১ সালের পর প্রযুক্তি অনেকদূর এগিয়ে গেছে এবং চীন অত্যাধুনিক সমরাস্ত্র তৈরিতে শীর্ষে। তাই, নতুন এই এয়ারক্র্যাফট ফ্লাইট টেস্টে পাস করবে বলে আশা করাই যায়!  

বাংলাদেশ সময়: ০৯৫৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ০১, ২০১৯
এফএম/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-11-01 09:54:53