ঢাকা, বুধবার, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৫ আগস্ট ২০২০, ১৪ জিলহজ ১৪৪১

ফিচার

শ্রীলঙ্কার পেরাহেরা উৎসবে হাতির প্যারেড বয়কটের আহ্বান

ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-১৬ ১০:৪১:১৬ এএম
শ্রীলঙ্কার পেরাহেরা উৎসবে হাতির প্যারেড বয়কটের আহ্বান রোগা মাদী হাতি। ছবি: সংগৃহীত

শ্রীলঙ্কার ক্যান্ডিতে এসেলা পেরাহেরা উৎসব উপলক্ষে আয়োজন করা হয় হাতির বার্ষিক প্যারেড। রঙ-বেরঙের অনুষঙ্গ পরে হাতিরা অংশ নেয় ওই কুচকাওয়াজে। বুদ্ধের দাঁতকে শ্রদ্ধা জানাতে প্রতিবছর ক্যান্ডির টেম্পল অব দ্য ট্যুথ মন্দির থেকে শুরু হয় এসেলা পেরাহেরা উৎসব।

হাতির প্যারেড ছাড়াও উৎসব উপলক্ষে গান, নাচ, অ্যাক্রোব্যাট শোয়ের আয়োজন করা হয়। তবে এবার এই উৎসবে হাতির প্যারেড বয়কট করার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির প্রাণী অধিকার প্রচারকরা।

সম্প্রতি দেশটির একটি রোগা এবং বয়স্ক হাতির ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর তারা এ আহ্বান জানান।

সম্প্রতি সেভ এলিফ্যান্ট ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা লেক চাইলার্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উৎসবে ব্যবহৃত রোগা মাদী হাতির ছবিগুলো প্রকাশ করেন।

এসময় ছবিগুলোর সঙ্গে তিনি তার পোস্টে উল্লেখ করেন, ৭০ বছর বয়সী টিকিরী নামের এই মাদী হাতিটি এবার শ্রীলঙ্কার পেরাহেরা উৎসবের প্যারেডে অংশ নেবে। প্রাণীটি প্যারেডে অংশগ্রহণ করা ৬০টি হাতির মধ্যে একটি। প্যারেডে টিকিরী প্রচণ্ড আওয়াজ, আতশবাজি এবং ধূমপানের মধ্যে প্রতি সন্ধ্যার থেকে মধ্যরাত অবধি টানা ১০ রাত কুচকাওয়াজের প্রশিক্ষণে যোগ দিয়েছে। পেরাহেরা উৎসবে রোগা মাদী হাতি।  ছবি: সংগৃহীতচাইলার্ট জানান, টিকিরী প্রতিরাতে দীর্ঘ কিলোমিটার পথ হাঁটে, যাতে অনুষ্ঠানের সময় মানুষগুলো নিজেদের ধন্য মনে করতে পারে। তার পোশাকের কারণে কেউ তার দেহ বা তার দুর্বল অবস্থা দেখে না। তার মুখোশ উজ্জ্বল আলো দিয়ে সাজানো থাকে বলে কেউই তার চোখে অশ্রু দেখতে পায় না। হাঁটতে হাঁটতে পা দুটো ছোট হয়ে গেছে বলে কেউ তার পদবিন্যাস লক্ষ্য করে না।

লেক চাইলার্ট তার পোস্টে বলেন, একটি অনুষ্ঠানে রীতিনীতিতে সবার বিশ্বাসের অধিকার রয়েছে, তবে যতক্ষণ না বিশ্বাসটি অন্যকে বিরক্ত করে বা ক্ষতি করে! এ আয়োজনে আমরা যদি অন্য একটি জীবনকে দুর্ভোগে ফেলি তবে কীভাবে আমরা এটিকে আশির্বাদ বা পবিত্র কিছু বলতে পারি?

এদিকে টিকিরীর ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ হওয়ার পর তাকে সমাপনী কুচকাওয়াজ থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন উৎসবের আয়োজকরা।

আর টেম্পল অব দ্য ট্যুথ মন্দিরের প্রধান প্রদীপ নীলাঙ্গা দেলা, যিনি এই উৎসবটির সমন্বয় করেন তিনি জানিয়েছেন, টিকিরী তার শারীরিক অবস্থার কারণে সমাপনী কুচকাওয়াজে অংশগ্রহণ করছে না। একইসঙ্গে তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ০৬০২ ঘণ্টা, আগস্ট ১৬, ২০১৯
এইচএমএস/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa