[x]
[x]
ঢাকা, শুক্রবার, ৬ আশ্বিন ১৪২৫, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮
bangla news
ইতিহাসের এই দিনে

নাট্যকার শচীন্দ্রনাথ সেনগুপ্তের প্রয়াণ

ফিচার ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৩-০৪ ১:০৫:০৩ পিএম
শচীন্দ্রনাথ সেনগুপ্ত

শচীন্দ্রনাথ সেনগুপ্ত

ঢাকা: ইতিহাস আজীবন কথা বলে। ইতিহাস মানুষকে ভাবায়, তাড়িত করে। প্রতিদিনের উল্লেখযোগ্য ঘটনা কালক্রমে রূপ নেয় ইতিহাসে। সেসব ঘটনাই ইতিহাসে স্থান পায়, যা কিছু ভালো, যা কিছু প্রথম, যা কিছু মানবসভ্যতার অভিশাপ-আশীর্বাদ।

তাই ইতিহাসের দিনপঞ্জি মানুষের কাছে সবসময় গুরুত্ব বহন করে। এই গুরুত্বের কথা মাথায় রেখে বাংলানিউজের পাঠকদের জন্য নিয়মিত আয়োজন ‘ইতিহাসের এই দিন’।

০৫ মার্চ ২০১৮, সোমবার। ২১ ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ। এক নজরে দেখে নিন ইতিহাসের এই দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যুদিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনা
১৭৭০ - বোস্টনে (যুক্তরাষ্ট্র) জনতার ওপর গুলি চালিয়ে ব্রিটিশ সৈন্যরা গণহত্যা ঘটায়।
১৭৯৩ - ফ্রান্সের সেনাবাহিনী অস্ট্রিয়ার কাছে পরাজিত হয়।
১৮২২ - ভবানীচরণ বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পাদিত ‘সমাচার চন্দ্রিকা’ প্রকাশিত হয়।
১৮৩৩ - অবিভক্ত ভারতের প্রথম দুই নারী কাদম্বিনী ও চন্দ্রমুখী বসু স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন।
১৮৯৭ - আমেরিকান নিগ্রো একাডেমি গঠিত হয়।
১৯১৮ - মস্কোকে রাশিয়ার রাজধানী করা হয়।
১৯৩৩ - জার্মানির নির্বাচনে অ্যাডলফ হিটলার ও তার নাৎসি পার্টি বহু আসনে জয়লাভ করে। এর কিছুদিন পরই এক নায়কতন্ত্র ঘোষণা করা হয়।
১৯৭১– ঢাকার পর চট্টগ্রামেও শুরু হয় সংগ্রাম পরিষদ গঠন ও অসহযোগ আন্দোলনের তীব্রতা। চট্টগ্রামের সব সরকারি-বেসরকারি অফিস-আদালতও চলতে থাকে বঙ্গবন্ধুর জারি করা নির্দেশ অনুযায়ী।
১৯৮৪ - ভুটানের সঙ্গে বাংলাদেশের বাণিজ্য ও সহযোগিতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।
১৯৮৭ - সিলেটের ওসমানী জাদুঘর উদ্বোধন।
১৯৯৮ - ব্রিটেন ও উত্তর আয়ারল্যান্ড ‘উত্তর আয়ারল্যান্ড’ চুক্তি স্বাক্ষর করে।
২০০৭ - ঢাকা-ব্যাংকক-ঢাকা ইলেকট্রনিক টিকেটিং (ই-টিকেটিং) পদ্ধতি চালু।

জন্ম
১১৩৩ - দ্বিতীয় হেনরি, ইংল্যান্ডের রাজা।
১৮৮৭ - আতোর ভিলা-লোবোস, ব্রাজিলিয়ান সুরকার।
১৮৯৮ - চৌ এন-লাই, চীনা রাষ্ট্রনেতা।

মৃত্যু
১৬২৫ - প্রথম জেমস, ইংল্যান্ডের রাজা।
১৮২৭ - আলেসাঁন্দ্রো ভোল্টা, ইতালির বিখ্যাত পদার্থ বিজ্ঞানী।
১৮২৭ - পিয়েরে লাপ্লাস, বিখ্যাত ফরাসি গণিতবিদ।
১৯৫৩ - জোসেফ স্টালিন, সোভিয়েত ইউনিয়নের নেতা ও স্বৈরশাসক।
১৯৬১ - শচীন্দ্রনাথ সেনগুপ্ত, বাঙালি নাট্যকার, সাংবাদিক। ১৮৯২ সালে তার জন্ম। কর্মজীবনের শুরুতে শচীন্দ্রনাথ কিছুদিন একটি কলেজে অধ্যাপনা করেন, পরে সাংবাদিকতা শুরু করেন। তার সাংবাদিক জীবনের শুরু দৈনিক কৃষক ও ভারত পত্রিকায় সহ-সম্পাদকরূপে। এছাড়া তিনি সাপ্তাহিক হিতবাদী, বিজলী, আত্মশক্তি প্রভৃতি পত্রিকাও সম্পাদনা করেন। তার রচিত ঐতিহাসিক ও রাজনৈতিক নাটকের মূল প্রতিপাদ্য হচ্ছে দেশাত্মবোধ। সামাজিক নাটকেও তিনি সমান দক্ষতা দেখিয়েছেন। অসাম্প্রদায়িক চেতনা ও হিন্দু-মুসলমানের মিলনের বাণী তার নাটকের অপর বৈশিষ্ট্য। তার উল্লেখযোগ্য ঐতিহাসিক ও রাজনৈতিক নাটক হচ্ছে: গৈরিক পতাকা, দেশের দাবি, রাষ্ট্রবিপ্লব, সিরাজ-উদ-দৌলা, ধাত্রীপান্না, সবার উপরে মানুষ সত্য, আর্তনাদ ও জয়নাদ। তার ঐতিহাসিক নাটক সিরাজুদ্দৌলা সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়তা অর্জন করে। রক্তকমল, ঝড়ের রাতে, নার্সিংহোম, স্বামী-স্ত্রী, জননী প্রভৃতি তার সামাজিক নাটক। এসব নাটকে ব্যক্তি ও পারিবারিক জীবনের বিচিত্র জটিলতা ও সমস্যা তুলে ধরা হয়েছে। ১৯৬১ সালের ৫ মার্চ শচীন্দ্রনাথ মৃত্যুবরণ করেন।
১৯৬৬ - আন্না আখমা তোভা, রুশ কবি।
১৯৭৩ - অমূল্যকুমার দাশগুপ্ত, বাঙালি লেখক ও শিক্ষাবিদ।
২০১৬ - রে টমলিনসন, মার্কিন কম্পিউটার প্রোগ্রামার ও বিশ্বের প্রথম ই-মেইল প্রবর্তনকারী।

বাংলাদেশ সময়: ০০০২ ঘণ্টা, মার্চ ০৫, ২০১৮
এনএইচটি/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

ফিচার বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa