ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৪ বৈশাখ ১৪৩১, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৮ শাওয়াল ১৪৪৫

ফিচার

ইতিহাসের এই দিন

কবি জসীম উদ্‌দীন ও আবদুল্লাহ আল মুতীর জন্মদিন

ফিচার ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৫৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১, ২০১৬
কবি জসীম উদ্‌দীন ও আবদুল্লাহ আল মুতীর জন্মদিন ছবি: আবদুল্লাহ আল মুতী ও কবি জসীম উদ্‌দীন

ঢাকা: ইতিহাস আজীবন কথা বলে। ইতিহাস মানুষকে ভাবায়, তাড়িত করে।

প্রতিদিনের উল্লেখযোগ্য ঘটনা কালক্রমে রূপ নেয় ইতিহাসে। সেসব ঘটনাই ইতিহাসে স্থান পায়, যা কিছু ভালো, যা কিছু প্রথম, যা কিছু মানবসভ্যতার অভিশাপ-আশীর্বাদ।

তাই ইতিহাসের দিনপঞ্জি মানুষের কাছে সবসময় গুরুত্ব বহন করে। এই গুরুত্বের কথা মাথায় রেখে বাংলানিউজের পাঠকদের জন্য নিয়মিত আয়োজন ‘ইতিহাসের এই দিন’।

১ জানুয়ারি ২০১৬, শুক্রবার। ১৮ পৌষ, ১৪২২ বঙ্গাব্দ। এক নজরে দেখে নিন ইতিহাসের এ দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যুদিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনা
•     খ্রিস্টপূর্ব ৪৫ - জুলিয়ান ক্যালেন্ডারের সূচনা।
•     ৪০৪ - রোমে সর্বশেষ গ্ল্যাডিয়েটর প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত।
•     ১৬৭৩ - নিউ ইয়র্ক ও বোস্টন শহরের মধ্যে নিয়মিত ডাক যোগাযোগ শুরু হয়।
•     ১৮০৩ - ল্যাটিন আমেরিকার দেশ হাইতি স্বাধীনতা ঘোষণা করে। হাইতি ল্যাটিন আমেরিকার প্রথম স্বাধীনতা ঘোষণাকারী দেশ।
•     ১৮২৪ -  কলকাতায় সংস্কৃত কলেজ স্থাপিত হয়।
•     ১৮৭১ - মনমোহন ঘোষের সম্পাদনায় ‘সাপ্তাহিক ইন্ডিয়ান মিরর’ পত্রিকাটি দৈনিক পত্রিকারূপে আত্মপ্রকাশ করে।
•     ১৮৮০ - ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর ‘সিআইএ’ উপাধি লাভ করেন।
•     ১৯১৫ - ব্রিটিশ সরকার বৈজ্ঞানিক আচার্য প্রফুল্লচন্দ্র রায়কে ‘নাইট’ উপাধিতে ভূষিত করে।
জন্ম
•     ১৯০৩ - বিখ্যাত বাঙালি কবি জসীম উদ্‌দীন। পল্লীকবি জসীম উদ্‌দীন ১৯০৩ স‍ালের ১ জানুয়ারি ফরিদপুর জেলার তাম্বুলখানা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার বিখ্যাত কবিতা ‘কবর’। রবীন্দ্র ভারতী বিশ্ববিদ্যালয়  থেকে সম্মানসূচক ডি লিট উপাধিপ্রাপ্ত এ কবির শ্রেষ্ঠ রচনা ‘নকশি কাঁথার মাঠ’ এ পর্যন্ত বিভিন্ন ভাষায় অনুবাদ করা হয়েছে।

•    ১৯৩০ - বাংলাদেশের প্রখ্যাত শিক্ষাবিদ, বিজ্ঞান লেখক ও বিজ্ঞান কর্মী আবদুল্লাহ আল মুতী শরফুদ্দিন। দ্বিতীয় বাঙালি বিজ্ঞান লেখক হিসেবে ইউনেস্কো কলিঙ্গ পুরস্কারপ্রাপ্ত আবদুল্লাহ আল মুতী সিরাজগঞ্জ জেলার ফুলবাড়ি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি কর্মজীবনে এশিয়‍াটিক সোসাইটি অব বাংলাদেশ (১৯৮৮-৯০), বাংলা একাডেমি, ঢাকা (১৯৮৬-৯০) ও বিজ্ঞান শিক্ষা সমিতিতে সভাপতি হিসেবে কাজ করেছেন। এছ‍াড়াও যুক্ত ছিলেন কেন্দ্রীয় কচি কাচার মেলা, জাতীয় শিশু-কিশোর সংস্থা সহ আরও বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে।

তথ্যসূত্র: ইন্টারনেট।

বাংলাদেশ সময়: ১২৫৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০১, ২০১৫
এসএমএন/এএ





বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।