bangla news

শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির খোঁজখবর

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-১০-০৬ ১১:৫৯:২৪ এএম

দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে প্রথম মুঠোফোনের মাধ্যমে ভর্তি আবেদন প্রক্রিয়া শুরু করে সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবি)। এতে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলসহ দূর-দূরান্তের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা দুর্ভোগ থেকে মুক্তি পায়। এরই ধারাবাহিকতায় এবারও মুঠোফোনের মাধ্যমে ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে ভর্তি রেজিস্ট্রেশন শুরু হয়। চলবে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত।

দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে প্রথম মুঠোফোনের মাধ্যমে ভর্তি আবেদন প্রক্রিয়া শুরু করে সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবি)। এতে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলসহ দূর-দূরান্তের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা দুর্ভোগ থেকে মুক্তি পায়। এরই ধারাবাহিকতায় এবারও মুঠোফোনের মাধ্যমে ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে ভর্তি রেজিস্ট্রেশন শুরু হয়। চলবে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত।

৬ নভেম্বর সকাল ১০টায় ‘ক’ ও বিকেল ৩টায় ‘খ’ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এবার বিশ্ববিদ্যালয়ে ইলেকট্রিকাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং, জিওগ্রাফি অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট, বায়োকেমিস্ট্রি অ্যান্ড মলিকুলার বায়োলজি নামে নতুন তিনটি বিভাগে শিক্ষার্থীদের ভর্তি করা হবে।

আবেদন প্রক্রিয়া
আবেদন করার জন্য প্রিপেইড টেলিটক মোবাইল ফোন থেকে SUST শিক্ষা/কারিগরি/মাদ্রাসা বোর্ডের প্রথম তিন অর, এইচএসসি পরীক্ষার রোল নম্বর, পাসের বছর এবং ইউনিটের কী-ওয়ার্ড লিখে (SUST SYL1234562010A) ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস করতে হবে। ভর্তি পরীক্ষার নির্ধারিত ফি এসএমএস পাঠানোর সাথে সাথে কেটে নেওয়া হবে। তাৎণিক ফিরতি এসএমএসে পরীক্ষার্থীর রোল নম্বর জানিয়ে দেওয়া হবে।

ছাত্র-ছাত্রীদের সদ্য তোলা ২ কপি পাসপোর্ট সাইজের সত্যয়িত রঙিন ছবির পেছনে রোল নম্বর ও নাম লিখে ভর্তি পরীক্ষার দিন সাথে আনতে হবে। এই ছবিই তার প্রবেশপত্র হিসেবে বিবেচিত হবে। সত্যয়িত ছবি ছাড়া কাউকে পরীক্ষা দিতে দেওয়া হবে না।

পরীক্ষার ফি
‘এ’ এবং ‘বি’ ইউনিটের রেজিস্ট্রেশন ফি ৫০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। এছাড়া আর্কিটেকচার বিভাগে ভর্তি পরীক্ষার জন্য অতিরিক্ত ৫০ টাকা দিতে হবে।

বিভাগভিত্তিক আসন
শাবিতে এবার ২৫টি বিভাগের অধীনে সর্বমোট ১ হাজার ৩৩০ জন শিক্ষার্থীকে প্রথম বর্ষে ভর্তির সুযোগ দেওয়া হবে। গতবারের মতো এবারও শাবিতে দুটি ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ‘A’ ইউনিটের অধীনে মানবিক ও ব্যবসা প্রশাসনের সকল বিভাগ এবং ‘B’ ইউনিটের অধীনে বিজ্ঞানের সব বিভাগের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ‘A’ ইউনিটভুক্ত বিভাগের নাম ও আসন সংখ্যা : অর্থনীতি ৬৫, সমাজবিজ্ঞান ৬৫, পলিটিক্যাল স্টাডিজ ৬৫, লোকপ্রশাসন ৬৫, নৃবিজ্ঞান ৬৫, সমাজকর্ম ৬৫, ব্যবসা প্রশাসন ৭০, ইংরেজি ৬৫, বাংলা ৬৫ এবং ভূগোল ও পরিবেশ ৫। মোট আসন সংখ্যা ৫৯৫টি।

‘B’ ইউনিটভুক্ত বিভাগের নাম ও আসন সংখ্যা : পদার্থবিজ্ঞান ৬০, রসায়ন ৬০, গণিত ৭০, পরিসংখ্যান ৭০, ফরেস্ট্রি অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স ৫০, জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি ৩০, ফুড অ্যান্ড টি টেকনোলজি ৪০, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ৬০, কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড পলিমার সায়েন্স ৫০, ইন্ডস্ট্রিয়াল অ্যান্ড প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং ৫০, সিভিল অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং ৫০, পেট্রোলিয়াম অ্যান্ড জিওরিসোর্সেস ইঞ্জিনিয়ারিং ৩০, আর্কিটেকচার ৩০, ভূগোল ও পরিবেশ ২৫, বায়োকেমিস্ট্র অ্যান্ড মলিকুলার বায়োলজি ৩০, ইলেকক্ট্রিকেল অ্যান্ড ইলেকক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং ৩০। মোট আসন ৭৩৫টি।

ভর্তি পরীক্ষার যোগ্যতা
২০১০/২০০৯ সালে অনুষ্ঠিত এইচএসসি (সাধারণ/কারিগরি)/ আলিম/ডিপ্লোমা ইন কমার্স/সমমান এবং ২০০৮/২০০৭ সালে অনুষ্ঠিত এসএসসি (সাধারণ/কারিগরি)/ আলিম/ ডিপ্লোমা ইন কমার্স/সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ছাত্রছাত্রীরা ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন। আদেবন করার জন্য এইচএসসি/সমমান ও এসএসসি/সমমান উভয় পরীক্ষায় ন্যূনতম জিপিএ ৩ সহ মোট ৬.৫ থাকতে হবে।

জিসিই ‘ও’ লেভেলের শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে কমপে ৩টি বিষয়ে ‘বি’ গ্রেডসহ পাঁচটি বিষয়ে পাস করতে হবে। পাশপাশি জিসিই ‘এ’ লেভেলে ২টি বিষয়ে কমপে ‘বি’ গ্রেড থাকতে হবে। তবে ২০০৭ সালের আগে এসএসসি বা জিসিই ‘ও’ লেভেল বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবেন না।

পরীক্ষার প্রশ্ন
প্রশ্নপত্র বাংলায় প্রণয়ন করা হবে। তবে কোনও পরীক্ষার্থী যদি ইংরেজিতে প্রশ্নপত্র পেতে চান তাহলে www.sust.edu/admission-এ ২০ অক্টোবরের মধ্যে জানাতে হবে।

পরীক্ষা পদ্ধতি
ভর্তিপরীক্ষা এমসিকিউ পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্যে ০.২৫ নম্বর কাটা যাবে। কালো কালির বল পয়েন্ট কলম দিয়ে OMR উপযোগী ফর্মে প্রশ্নোত্তর করতে হবে।

প্রার্থী বাছাই ও ভর্তি প্রক্রিয়া
এ এবং বি ইউনিটের জন্য ভিন্ন ভিন্ন মেধা তালিকা করা হবে। মেধা তালিকার মোট ১০০ নম্বরের মধ্যে ৭০ নম্বর আসবে ভর্তি পরীক্ষা থেকে। বাকি ৩০ নম্বর আসবে এসএসসি বা সমমান ও এইচএসসি বা সমমান পরীক্ষার ফলাফল থেকে। এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল থেকে নম্বর প্রস্তুত করার জন্য নিয়মিতদের বেলায় এসএসসি ও এইচএসসিতে প্রাপ্ত গ্রেডের যোগফলকে ৩ দিয়ে এবং অনিয়মিতদের বেলায় ২.৭ দিয়ে গুণ করা হবে। আবশ্যিক বিষয়ের নম্বরের সাথে আর্কিটেকচারের পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বর যোগ করে আর্কিটেকচার বিভাগের জন্যে স্বতন্ত্র মেধা তালিকাটি তৈরি করা হবে। আর্কিটেকচার বিভাগে ড্রয়িং ও স্থাপত্যবিষয়ক সাধারণ জ্ঞানের পরীক্ষায় ভর্তিচ্ছু প্রার্থীকে নূন্যতম ৪০ ভাগ নম্বর পেতে হবে। ভর্তির সময় সদ্য তোলা ৪ কপি পাসপোর্ট সাইজ রঙিন ছবি, এসএসসি বা সমমান পরীক্ষার মূল মার্কশিট, প্রশংসাপত্র ও ভর্তির জন্য প্রয়োজনীয়  টাকা সঙ্গে আনতে হবে। প্রতিটি সনদপত্র ও মার্কশিটের দুটি সত্যায়িত ফটোকপি অবশ্যই সাথে আনতে হবে। ভর্তি শেষে এইচএসসি/সমমান পরীক্ষার মূল মার্কশিটটি জমা দিয়ে দিতে হবে।

ভর্তিসংক্রান্ত যোগাযোগ
ভর্তিসংক্রান্ত যে কোনও বিষয়ে প্রশ্ন থাকলে ০১৫৫৫৫৫৫০০১-৫ এই হটলাইনে এবং admission@sust.edu-এ ই-মেইল পাঠিয়ে বিস্তারিত জানা যাবে। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েব ঠিকানায় (www.sust.edu) পাবেন বিস্তারিত তথ্য।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় ২২০৫, অক্টোবর ০৫, ২০১০

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2010-10-06 11:59:24