ঢাকা, শুক্রবার, ৩ ভাদ্র ১৪২৯, ১৯ আগস্ট ২০২২, ২০ মহররম ১৪৪৪

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

নরসিংদী থেকে উদ্ধার বন্যপ্রাণী সাফারি পার্কে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২৬ ঘণ্টা, জুন ৪, ২০২১
নরসিংদী থেকে উদ্ধার বন্যপ্রাণী সাফারি পার্কে উদ্ধার বন্যপ্রাণী সাফারি পার্কে অবমুক্ত। ছবি: বাংলানিউজ

নরসিংদী: নরসিংদীর আরশীনগর পার্ক ও মিনি চিড়িয়াখানা থেকে উদ্ধারকৃত বন্যপ্রাণী গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে হস্তান্তর করা হয়েছে।

শুক্রবার (৪ জুন) সকালে বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিটের পরিচালক মো. জহির আকন সাফারি পার্কে প্রাণীগুলো হস্তান্তর করেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে নরসিংদী শহরের আরশীনগর পার্ক ও মিনি চিড়িয়াখানা থেকে বিভিন্ন প্রজাতির ৩৮টি পাখি ও প্রাণী উদ্ধার করেছে বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিট।

উদ্ধারকৃত প্রাণী ও পাখিগুলোর মধ্যে রয়েছে একটি ভাল্লুক, একটি অজগর সাপ, দুটি বালিহাঁস, ১৩টি বক, চারটি বানর, এটি গন্ধগোকুল, একটি শকুন, একটি চিল ও পাঁচটি সজারু।

বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিটের পরিচালক মো. জহির আকন জানান, গোপন খবরের ভিত্তিতে নরসিংদী সদর উপজেলার এলাকার আরশীনগর পার্ক ও মিনি চিড়িয়াখানা পরিদর্শনে গিয়ে দেখা যায় সেখানে অবৈধভাবে বেশ কিছু দেশি-বিদেশি পাখি ও বন্যপ্রাণী খাঁচায় আটকে রাখা হয়েছে। পরে মিনি চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষকে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইন ২০১২ এবং দেশীয় বন্যপ্রাণী খাঁচায় বন্দি করে রাখা দণ্ডনীয় অপরাধ সম্পর্কে জনানো হয়।

পরে তারা আইন না জেনে বন্যপ্রাণীগুলোকে আটক রাখার কথা স্বীকার করলে পাখি-প্রাণীগুলোকে তাদের কাছে হস্তান্তর করতে বলা হয়। অন্যথায় তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানালে তারা প্রাণীগুলোকে অপরাধ দমন ইউনিটের কাছে হস্তান্তর করে। পরে বন্যপ্রাণীগুলোকে উদ্ধার করে অবমুক্ত করার জন্য গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্ক কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. তবিবুর রহমান জানান, বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিটের পরিচালক মো. জহির আকন উপস্থিত থেকে উদ্ধারকৃত ওই সব প্রাণী ও পাখিগুলো বুঝিয়ে দেন। তার মধ্যে বানর ও গন্ধগোকুল ভাওয়াল ন্যাশনাল পার্কে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। অন্য পাখিগুলোকে সাফারি পার্কের প্রাকৃতিক পরিবেশে অবমুক্ত করা হয়েছে। আর প্রাণীগুলোকে সাফারি পার্কে আলাদা করে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।

এ সময় পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. তবিবুর রহমান, বন্যপ্রাণী ও জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ কর্মকর্তা রথীন্দ্র কুমার বিশ্বাস, বন্যপ্রাণী ও অপরাধ দমন ইউনিটের পরিদর্শক অসীম কুমার মল্লিক, পার্কের ওয়াইল্ড লাইফ সুপারভাইজার মো. আনিসুর রহমান ও মো. সারোয়ার হোসেন খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২২ ঘণ্টা, জুন ০৪, ২০২১
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa