ঢাকা, শনিবার, ৪ ভাদ্র ১৪২৯, ২০ আগস্ট ২০২২, ২১ মহররম ১৪৪৪

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

পথ হারিয়ে লোকালয়ে লজ্জাবতী বানর, সাতছড়িতে অবমুক্ত

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০১৬ ঘণ্টা, মে ২৮, ২০২১
পথ হারিয়ে লোকালয়ে লজ্জাবতী বানর, সাতছড়িতে অবমুক্ত লজ্জাবতী বানর

হবিগঞ্জ: পথ হারিয়ে বনাঞ্চল থেকে লোকালয়ে চলে আসা বিরল প্রজাতির একটি লজ্জাবতী বানরকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জের চুনারুঘাট সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে অবমুক্ত করা হয়েছে। ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর কনজারভেশন অব নেচারের (আইইউসিএন) লাল তালিকায় সংকটাপন্ন হিসেবে অন্তর্ভুক্ত এ প্রাণীটি।



শুক্রবার (২৮ মে) সকালে সাতছড়ি রেঞ্জ কর্মকর্তা মাহমুদ হোসেন বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

বৃহস্পতিবার (২৭ মে) বিকেলে থেকে বানরটি উদ্ধার করা হয়। এরপর কিছুক্ষণ সেবা-চিকিৎসা দিয়ে এটিকে সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে অবমুক্ত করেছেন কর্মকর্তারা।  

সাতছড়ি রেঞ্জ কর্মকর্তা মাহমুদ হোসেন বাংলানিউজকে জানান, রঘুনন্দন বনাঞ্চল থেকে লজ্জাবতী বানরটি পথ হারিয়ে বন বিভাগ হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার শাহপুর গ্রামে লোকালয়ে চলে যায়।  খবর পেয়ে সেখান থেকে বানরটিকে উদ্ধার করে কিছুক্ষণ চিকিৎসা সেবা দিয়ে এটিকে সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে অবমুক্ত করা হয়।

লজ্জাবতী বানর বা বেঙ্গল স্লো লরিসকে ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর কনজারভেশন অব নেচারের (আইইউসিএন) ২০২০ সালের তালিকায় সংকটাপন্ন (রেড লিস্ট) প্রজাতি হিসেবে দেখানো হয়েছে।

লজ্জাবতী বানর ছোট আকারের। এটি বেঙ্গল স্লো লরিস নামে পরিচিত। স্তন্যপায়ী শ্রেণীর লরিসিডি পরিবারের সদস্য এই বানর বাংলাদেশের বন্যপ্রাণী আইনের তফসিল-১ অনুসারে সংরক্ষিত প্রাণী।

লজ্জাবতী বানরের বৈজ্ঞানিক নাম Nycticebus bengalensis। এরা নিশাচর প্রাণী। এই বানর দিনের বেলায় গাছের উঁচু ডালে নিজেদের আড়াল করে উল্টো হয়ে ঝুলে থাকে। লজ্জাবতী বানর কচি পাতা, পোকা-মাকড়, পাখির ডিম খেয়ে থাকে।

বাংলাদেশ সময়: ১০১০ ঘণ্টা, মে ২৮, ২০২১
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa