ঢাকা, রবিবার, ১ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

বিরল প্রজাতির ২ ‘ধুম কাছিম’ বাইক্কা বিলে অবমুক্ত

ডিভিশনাল সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৪, ২০২১
বিরল প্রজাতির ২ ‘ধুম কাছিম’ বাইক্কা বিলে অবমুক্ত বিরল প্রজাতির দুই ধুম কাছিম। ছবি: বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য বাপন

মৌলভীবাজার: বিরল প্রজাতির দুটি ধুম কাছিম বাইক্কা বিলে অবমুক্ত করা হয়েছে।  এ দুটোর ওজন অনুমানিক ১৬ কেজি।

 

সোমবার (৪ জানুয়ারি) বিকেলে মৌলভীবাজারের মৎস্যসম্পদের অভয়াশ্রম বাইক্কা বিলের সংরক্ষিত জলাভূমিতে এই দুটো কাছিমকে মুক্ত করা হয়।  

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) প্রাণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক এবং বন্যপ্রাণী গবেষক ড. কামরুল হাসান, মৌলভীবাজার বন্যপ্রাণী রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা মোতালেব হোসেনসহ বনবিভাগের অন্যান্য কর্মকর্তারা।  

এদিকে এই দুটি কাছিমকে রোববার (৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় মৌলভীবাজার বন্যপ্রাণী রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা শ্রীমঙ্গল শহরের মাছ বাজার থেকে এগুলোকে উদ্ধার করেন। বন বিভাগের উপস্থিতি টের পেয়ে এই কাছিম বিক্রয়কারী ব্যক্তি পালিয়ে গেছে।  

এ ব্যাপারে মৌলভীবাজার বন্যপ্রাণী রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা মোতালেব হোসেন বাংলানিউজকে বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রোববার শ্রীমঙ্গলের শহরের মাছ বাজারে ঝটিকা অভিযান চালিয়ে ২টি বিরল প্রজাতির ধুম কাছিম উদ্ধার করা গেছে। বন্যপ্রাণী নিরাপত্তা এবং সংরক্ষণ আইন বাস্তবায়নের লক্ষ্যে আমাদের এমন ঝটিকা অভিযান অব্যাহত থাকবে।

জাবির প্রাণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক এবং বন্যপ্রাণী গবেষক ড. কামরুল হাসান বাংলানিউজকে বলেন, এগুলোর নাম ধুম কাছিম। এরা বাংলাদেশে বিরল প্রজাতির সরীসৃপ প্রাণী। ইংরেজিতে এর নাম Indian Peacock Softshell Turtle এবং বৈজ্ঞানিক নাম Nilssonia hurum. এদের একটির দৈর্ঘ্য ৪৪ সেন্টিমিটার এবং অপরটির ৪৫ সেন্টিমিটার। ওজন প্রায় ৮ কেজি করে ১৬ কেজি। জলাভূমির নরমকচি ঘাস এবং জলজউদ্ভিদ।  

প্রায় এক দশক পূর্বে এগুলোর প্রাকৃতিক জলাভূমিতে সহজে পাওয়া যেতো। কিন্তু বর্তমানে প্রাকৃতিক জলাভূমি ধ্বংস হওয়াসহ শীতের শুকনো মৌসুমে বিল-হাওরের পানি শুকিয়ে মাছ ধরায় এই প্রজাতিগুলো সহজে ধরা পড়ে যাচ্ছে। তাদের আবাসস্থল ধ্বংস হওয়ায় তারা এখন খুবই সংকটাপন্ন অবস্থায় রয়েছে।  

এদের সংরক্ষণে আমাদের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে বলেও জানান বন্যপ্রাণী গবেষক ড. কামরুল হাসান।  

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৪, ২০২০
বিবিবি/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa