ঢাকা, সোমবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ মে ২০২২, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

শ্রীমঙ্গলে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৬.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস

ডিভিশনাল সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৪৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২০
শ্রীমঙ্গলে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৬.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস কুয়াশা ভেদ করে শ্রীমঙ্গলে উঁকি দিয়েছে শীতের সকাল। ছবি: বাংলানিউজ

মৌলভীবাজার: হাড় কাঁপানো শীত এখন চায়ের রাজধানী মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে। শীতে জবুথবু সব বয়সী মানুষ। বইছে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহও। দুইদিন ধরে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রয়েছে এখানে। দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা মঙ্গলবার (৪ ফেব্রুয়ারি) ৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

শ্রীমঙ্গলে আবহাওয়া কার্যালয়ের আবহাওয়া সহকারী মো. জাহেদুল ইসলাম মাসুম বাংলানিউজকে বলেন, মঙ্গলবার উপজেলায় তাপামাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এটিই সারাদেশে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।

এর আগে সোমবার (৩ ফেব্রুয়ারি) ছিলো ১০ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

তিনি আরও বলেন, মঙ্গলবার সকাল ৬টায় শ্রীমঙ্গলের তাপমাত্রা ছিলো ৬ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সকাল ৯টায় তাপমাত্রা ২ ডিগ্রি কমে গেছে ৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। প্রতিদিন সকালে দু’বার করে রেকর্ড নিলেও মিনিমাম টেম্পারেচারের ক্ষেত্রে প্রতিদিন সকাল ৯টার রেকর্ডটাই নির্দেশানুযায়ী চূড়ান্ত বলে আমাদের কাছে গণ্য হয়।  

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতরের পেশাগত সহকারী আবদুল বারেক বাংলানিউজকে বলেন, শ্রীমঙ্গলে রেকর্ড করা ৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রাই মঙ্গলবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। তেঁতুলিয়াতে (পঞ্চগড়) আজকের তাপমাত্রা ৮ দশমিক শূন্য ডিগ্রি সেলসিয়াস।

মঙ্গলবারের বিভাগভিত্তিতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা উল্লেখ করে তিনি সকাল ১০টায় বাংলানিউজকে বলেন, ঢাকা বিভাগে ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, সিলেট বিভাগে ১১ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, চট্টগ্রামে ১১ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, ময়মনসিংহে ১১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, রাজশাহী ৭ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, রংপুর ৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, খুলনায় ১০ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং বরিশালে ৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এ তালিকার তথ্যগুলো এখনো আমাদের ওয়েবে আপ হয়নি। কিছুক্ষণ পর আপ করা হবে বলেও জানান এ কর্মকর্তা।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতরের আর্কাইভ সূত্রে জানা যায়, ১৯৬৮ সালে ৪ ফেব্রুয়ারি শ্রীমঙ্গলে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিলো ২ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং ১৯৬৬ সালের ২৯ জানুয়ারি দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিলো ৩ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ১৯৯৫ সালের ৪ জানুয়ারি, ২০০৭ সালের ১৭ জানুয়ারি এবং ২০১৩ সালের ১০ জানুয়ারি শ্রীমঙ্গল দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিলো ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. পার্থসারথি দত্ত কাননগো বাংলানিউজকে বলেন, আমাদের হাসপাতালে ঠাণ্ডাজনিত রোগীর সংখ্যাই বেশি। এই তীব্র শীতে বিশেষ করে শিশু এবং বৃদ্ধরা বেশি এফেকটেড। তাই তাদের ব্যাপারে বিশেষ যত্ন নিতে হবে। এই সময়ে ডায়রিয়ার প্রকোপ বেশি দেখা দেয়। তাই ঘরের খাবার ছাড়া বাইরের খাবার বা খোলা খাবারের ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১০৪৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৪, ২০২০
বিবিবি/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa