ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৪ মে ২০২৪, ১৫ জিলকদ ১৪৪৫

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

আমাজনে মিললো ভয়ঙ্কর পরজীবী বোলতা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২২৮ ঘণ্টা, জুলাই ১২, ২০১৮
আমাজনে মিললো ভয়ঙ্কর পরজীবী বোলতা আমাজনে মিললো ভয়ঙ্কর পরজীবী বোলতা

বিজ্ঞানীরা প্রতিনিয়ত আবিষ্কার করছেন নতুন নতুন প্রজাতির প্রাণী। বিষাক্ত প্রাণীদের অভয়ারণ্য হিসেবে পরিচিত আমাজন জঙ্গলে এবার আবিষ্কৃত হয়েছে নতুন এক প্রজাতির বোলতা। এই প্রজাতির নারী সদস্যদের দেহে থাকে লম্বা হুল, যার সাহায্যে এরা অন্য প্রাণীদের প্যারালাইজ করে দেহে ডিম ছেড়ে আসে। এই ডিম থেকে বাচ্চা জন্মানোর সময় মর্মান্তিক মৃত্যু ঘটে ওই প্রাণীর।

বিপদজনক এই বোলতার নাম ‘ক্যালিস্টোগা ক্রাসিকাউডাটা’ (Calistoga crassicaudata)। সম্প্রতি এই বোলতার চিত্তাকর্ষক কিছু ছবি এবং বিস্তারিত বর্ণনা প্রকাশিত হয় ‘যুটাক্সা’ জার্নালে।

বলা হয়, এই বোলতাগুলো দৈর্ঘ্যে ৯.৮ মিলিমিটার এবং এর বাঁকানো হুলের দৈর্ঘ্য দেহের প্রায় অর্ধেক।

গবেষকদলের সহকারী পতঙ্গবিজ্ঞানী ইলারি সাকস্‌জারভি বলেন, আমরা প্রতিনিয়ত নতুন নতুন প্রজাতি আবিষ্কার করছি। কিন্তু খুব অল্প সংখ্যক প্রজাতি আমাদের অভিভূত করতে পারে।

জানা যায়, এই বোলতাগুলো আংশিক-পরজীবী। অন্য পতঙ্গের দেহে এরা ডিম পাড়ে এবং পর্যায়ক্রমে ওই পতঙ্গকে মেরে ফেলে। অন্য পতঙ্গের দেহে ডিম পাড়ার জন্য প্রকাণ্ড হুল ব্যবহার করে এরা।  

বিজ্ঞানীরা বলছেন, এই হুলের দংশনে তেমন ব্যথা পাওয়া যায় না। তাছাড়া এরা মানুষের জন্য তেমন বিপদজনক নয়। কারণ এদের প্রকাণ্ড হুলগুলো বেশ দুর্বল হওয়ায় মানুষের চামড়ায় বিঁধতে পারে না। আমাজনে পোকামাকড়ের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে বাস্তুসংস্থানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এই বোলতা।

বাংলাদেশ সময়: ০২২৫ ঘণ্টা, জুলাই ১৩, ২০১৮
এনএইচটি/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।