ঢাকা, রবিবার, ১ বৈশাখ ১৪৩১, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৪ শাওয়াল ১৪৪৫

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

নবাবগঞ্জে বনের জমি উদ্ধার করতে গিয়ে বন কর্মকর্তা হামলার শিকার 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮১৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২৪
নবাবগঞ্জে বনের জমি উদ্ধার করতে গিয়ে বন কর্মকর্তা হামলার শিকার 

দিনাজপুর: দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলায় বনের জমিতে গড়া অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করতে গিয়ে খাইরুল আলম নামে এক বন কর্মকর্তা স্থানীয়দের হামলার শিকার হয়েছেন। বর্তমানে তিনি দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নবাবগঞ্জ উপজেলার মালিপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।  

নবাবগঞ্জ বন বিভাগে কর্মরত মোকারম হোসেন বলেন, মালিপাড়ায় বাবলু নামে একজন অবৈধভাবে বনের জমি দখল করে ইটের দেয়াল করছিলেন। খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে দেয়াল অপসারণ করে ফিরছিলাম। এসময় হঠাৎ বাবলু ও তার পরিবারের সদস্যরাসহ ১০ থেকে ১৫ জন লাঠি নিয়ে আমাদের ওপর হামলা করেন। এতে কর্মকর্তা খাইরুল আলমের মাথা, হাত ও পায়ে আঘাত লেগেছে। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।  

হামলার শিকার বন কর্মকর্তা খাইরুল আলম বলেন, বনের জমি দখলমুক্ত করতে যাওয়ায় তারা আমাদের ওপর ক্ষিপ্ত হন। একপর্যায়ে তারা লাঠি নিয়ে আমাকে মারধর করেন।

দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের ইনডোর মেডিকেল অফিসার ডা. রবিউল ইসলাম বলেন, বন কর্মকর্তা খাইরুল আলমের মাথায় আঘাত লেগেছে। পাশাপাশি বাম পা ও হাতে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। আমরা প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়েছি। কয়েকটি পরীক্ষা নিরীক্ষা করতে হবে। তারপর বিস্তারিত জানা যাবে।  

চোরকাই রেঞ্জের বন কর্মকর্তা নিশিকান্ত মালাকার বলেন, কিছু লোক বিভিন্ন উপায়ে বনের জায়গা দখল করে ঘরবাড়িসহ বিভিন্ন স্থাপনা নির্মাণ করে থাকেন। সেগুলো দখলমুক্ত করতে গেলে আমরা বারবার হামলার শিকার হই। আজ খাইরুল আলমের সঙ্গেও এমনটা হয়েছে। আমরা এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) সঙ্গে কথা বলেছি। এ ঘটনায় আমাদের পক্ষ থেকে মামলা করা হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২৪
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।